সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

ads

এবছরই অভিন্ন প্রশ্নপত্রে তাকমিল জামাতের পরীক্ষা

OURISLAM24.COM
এপ্রিল ১২, ২০১৭
news-image

টিম আওয়ার ইসলাম: এবছরই অভিন্ন প্রশ্নপত্রে সারাদেশের তাকমিল জামাতের পরীক্ষার সিদ্ধান্ত হচ্ছে বলে জানা গেছে। বুধবার সকালে ঢাকার খিলগাঁওয়ের মাখজানুল উলুম মাদরাসায় এক জরুরি বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়।

এছাড়াও বৈঠকে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে আওয়ার ইসলামকে জানিয়েছে বৈঠকের একাধিক সূত্র।

১১ এপ্রিল মঙ্গলবার গণভবনে শীর্ষ আলেমদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদের স্বীকৃতি ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, দারুল উলুম দেওবন্দের মূলনীতি ঠিক রেখে দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের সমমান দেয়া হলো। 

বৈঠকে স্বীকৃতির ঘোষণার পর এর রূপরেখা কী হবে তা নিয়ে বুধবার সকালেই বৈঠকে বসেন শীর্ষ আলেমগণ।

আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা নূর হোসেন কাসেমী, মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা আবদুল হামিদ মধুপুরের পীর, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু, মুফতি মুহাম্মদ আলী ও মুফতি ইয়াহইয়া মাহমুদু প্রমুখ।

সূত্র জানায়, স্বীকৃতির রূপরেখা, পরীক্ষা ও অন্যান্য কার্যাদির জন্য ৩২ সদস্যের একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। এ কমিটি রাবেতাতুল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ নামে কাজ করবে।

Image may contain: one or more people, people sitting and indoor

৩২ সদস্যের কমিটিতে চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন, বেফাকের সভাপতি ও হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী, কো চেয়ারম্যান আল্লামা আশরাফ আলী।

অন্যান্য সদস্যের মধ্যে বেফাকের পক্ষ থেকে ৫ জন হলেন, আল্লামা আনোয়ার শাহ, আল্লামা নূর হোসেন কাসেমী, মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা নূরুল ইসলাম।

কমিটির চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে ১৫ সদস্য, আল্লামা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা মোস্তাফা আজাদ, মাওলানা আবদুল হামিদ, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা জসিমুদ্দীন, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা নূরুল আমিন, মাওলানা উবায়দুর রহমান মাহবুব, মাওলানা মুশকাত আহমদ, মাওলানা নূরুল হুদা ফয়েজী, মাওলানা আবদুল জব্বার জিহাদী।

কমিটির বাকি ১০ সদস্য অন্যান্য চারবোর্ড থেকে দেয়া হবে। সেই তালিকা আমাদের হাতে এসে পৌঁছেনি এখনো।

জানা যায়, বৈঠকে চলতি বছর থেকেই শীর্ষ ৬ বোর্ড অভিন্ন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়ার জন্য ঐক্যমত পোষণ করেন। সে মতে চলতি বছর দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট মাস্টার্সের সমমান পাবে।

স্বীকৃতির উচ্ছ্বাস বনাম বিকৃতির শঙ্কা

কওমি সনদের স্বীকৃতি: আমাদের লাভ ও ক্ষতি

প্রসঙ্গ কওমি স্বীকৃতি: ‘বন্যরা বনেই সুন্দর’

 

এ জাতীয় আরও খবর