২০১৮-১০-২৮

মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮

ভাইরাল হওয়া ছবিটির অন্তরালে যে ঘটনা

OURISLAM24.COM
news-image
ইফতেখায়রুল ইসলাম

ফেইসবুকে গত দুইদিন অস্ত্র হাতে পুলিশের অন্তর্বাস পরা একটি ছবি দেখেছি সবাই। শুধু দেখই খ্যান্ত হইনি, মুখ ফস্কে দুই-একটা গালিও দিয়েছেন অনেকে। আবার কেউবা সেই পুলিশকে সন্ত্রাসী বা একটি রাজনৈতিক দলের ক্যাডারও বলেছেন। এটা সত্য যে এই ছবি দেখে যে কারোরই মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, এটাই স্বাভাবিক।

পুলিশ কতোটা খারাপ হলে এমন নগ্নভাবে অস্ত্র নিয়ে কোন অপারেশনে যায়(!) অনেকে মতামত দিয়েছেনও যে জরুরি অবস্থায় পুলিশটি পোশাক পরার সময় পায় নাই, তাই এভাবেই কর্তব্যের টানে ছুটে এসেছেন। এরকম বিভিন্নজনে বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন। তবে আসল ঘটনা আমরা কেউ জানিনা বা জানার চেষ্টাও করিনা। আসুন জেনে নেই কি ঘটেছিলো সেদিন।

রাজধানীর পোস্তগোলায় নিত্যদিনের মতো রাস্তায় চলাচল করছে যানবাহন। পুলিশের একটি দলও প্রতিদিনের মতো ডিউটিতে ছিলো সেখানে। প্রতিদিন যেভাবে পুলিশ ডিউটি করে সেদিনও ঠিক সেভাবেই ডিউটিতে ছিলো তারা।

হঠাৎ গাড়িচালক শ্রমিকরা অতর্কিতে হামলা করে পুলিশকে। অপ্রস্তুত পুলিশ কিছু বুঝে উঠার আগে তাদেরকে শ্রমিকরা টেনে হিছড়ে এক-এক দিকে নিয়ে যায়। এসময় ওই পুলিশ সদস্যের পোশাক টেনে শ্রমিকরা ছিনিয়ে নেয়।

অতঃপর প্রায় নগ্ন সেই পুলিশকে অজ্ঞাত ব্যক্তি একটি লুঙ্গি দিয়ে সাহায্য করেন যা পরার মতো সময়ও ছিলো না তার। আর সেই সময়ই ক্লিক করে ছবি তুলেন কিছু ব্যক্তি এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় ভিন্ন ক্যাপশনে।

প্রতিদিন এভাবেই খবরের অন্তরালে ঢাকা পড়ে যাচ্ছে অসংখ্য খবর। আমরা যাচাই বাছাই না করে মনগড়া ক্যাপশনে সাজাই সেই খবরের পরের দৃশ্য। তার আগে যে খবরটি সেটি আর আমরা খোঁজ নেই না। আসুন কোন কিছুর বিস্তারিত না জেনে আগেই কোন মতামত না দেই। জানতে চেষ্টা করি এমনটি কেনো হলো। তাহলেই পেয়ে যাবো আসল খবর।

লেখক: সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডেমরা জোন)

যে কারণে যোহর ও আসরের নামাজে আস্তে কেরাত পড়া হয়