২০১৮-১০-১৯

শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

মা-মেয়ে মিলে জামাইকে জবাই করার চেষ্টা

OURISLAM24.COM
news-image

এম ওমর ফারুক: চট্টগ্রামের রাউজানের গহিরায় প্রবাসী স্বামীকে জবাই করে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ১৮  অক্টোবর বৃহঃস্পতিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রাউজান গহিরা ইউনিয়নের দলই নগর এলাকার মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী আবুল বশর বাবুলের কন্যা উম্মে হাবিবা মায়া (১৯) ও তার মাতা রাশেদা আকতার প্রবাসী স্বামী ফখরুল ইসলাম (২৮) কে জবাই করে হত্যার প্রচেষ্টা চালায়।

হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হওয়ার পর উম্মে হাবিবা মায়া ও তার মা রাশেদ আকতার ভাড়া বাসায় গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লাগিয়ে দিয়ে ফখরুল ইসলাম আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারণা চালানোর চেষ্টা করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উম্মে হাবিবা মায়ার সাথে প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে বিয়ের প্রস্তুতি নিলে তার বয়স কম হওয়ায় রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দেয় । পরে গোপনে উম্মে হাবিবাকে ফখরুল ইসলাম বিয়ে করে মধ্যপ্রাচ্যে চলে যায় ।

ফখরুল ইসলাম মধ্যপ্রাচ্যে চলে যাওয়ার পর উম্মে হাবিবা মায়া অপরজনের সাথে পালিয়ে যায় বলে দাবী করে ফখরুল ইসলামের স্বজনেরা। মায়ার পরকিয়ার সংবাদ পেয়ে প্রবাসী স্বামী ফখরুল ইসলাম তার স্ত্রী উম্মে হাবিবাকে রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খানের সমঝোতায় তার স্ত্রী উম্মে হাবিবাকে তালাক দেয়।

উম্মে হাবিবার নিকাহ নামার ধার্য করা টাকা পরিশোধ করা বাবদ ফখরুল ইসলাম উম্মে হাবিবাকে চেক প্রদান করে। কিন্তু চেক থেকে টাকা উত্তোলন করতে না পেরে বিদেশ ফেরত ফখরুল ইসলামকে হাবিবা ও তার মা ফুসলিয়ে গহিরা জনতা ব্যাংকের পাশে তাদের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায় এবং আহত ফখরুলকে হাবিবা ও তার মায়ের সহযোগিতায় শয়ন কক্ষে নিয়ে তার পা বেঁধে ফেলে এবং গলা কেটে হত্যার প্রচেষ্টা চালায়।

এ ঘটনাকে ধামা চাপা দিতে ভাড়া বাসায় গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লাগিয়ে দিয়ে ফখরুল আত্মহত্যা করেছে বলে শোর চিৎকার করে চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়,এবং আশপাশের লোকজন ছুটে আসে আহত ফখরুলকে উদ্ধার করে,তাকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই নুর নবী জানান ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহত ফখরুল ইসলামের শ্বাশুড়ী রাশেদা আকতার (৩০) কে আটক করে রাউজান থানায় নিয়ে আসে।

এই ঘটনার পর এলাকায় চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। ঘাতক স্ত্রী উম্মে হাবিবা মায়ার স্বামী ফখরুল ইসলাম রাউজান পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের গহিরা মোবারক খিল এলাকার হালদার খান চৌধুরীর বাড়ীর তাজুল ইসলামের পুত্র ।

বিকল্পধারা ভেঙে টুকরো; বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে বহিস্কার

-আরআর