২০১৮-১০-১৫

শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

ইত্তিহাদুল উলামা সাভার উপজেলার কাউন্সিল ৩১ অক্টোবর

OURISLAM24.COM
news-image

সুফিয়ান ফারাবী
ভ্রাম্যমাণ প্রতিবেদক

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ কিছু নির্দিষ্ট লক্ষ্য-উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে শুরু হয় ইত্তিহাদের ব্যানারে সাভারের উলামায়ে কেরামের পথচলা। সাভারের শীর্ষ আলেমদের নেতৃত্বে যাত্রা শুরু করে এ সংগঠন দিনে দিনে বেশ বড় একটি প্লাটফর্ম তৈরী করতে পেরেছে। পাশাপাশি সাভারের মুসল্লী ও সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে  সংগঠনটি।

বিভিন্ন সময়ে নানান ইস্যুতে কর্মসূচি দিয়ে ইতিমধ্যেই সুনাম অর্জন করেছে অরাজনৈতিক এ সংগঠনটি। সবচে বেশি চোখে পড়েছে রোহিঙ্গা সঙ্কটে সংগঠনের কর্মতৎপরতা। রোহিঙ্গাদের দেশে বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি দিতে সরকারকে চাপ প্রয়োগ করতে হাজার হাজার মুসল্লী ও আলেমদের মাধ্যমে বিশাল মিছিলের আয়োজন করে।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে অনুষ্ঠিত সেই মিছিলে উচ্চ থেকে নিম্ন সব পেশার মানুষের উপস্থিতি এতটাই বেশি ছিল যে, কেউ কেউ মন্তব্যই করে বসেছিলেন, সাভারের ইতিহাসে এতো বড় মিছিল কখনো হয় নি।

মজলুম রোহিঙ্গারা দেশে অনুপ্রবেশের পর যে বিশাল খাদ্য ও অন্যান্য আসবাব পত্রের সল্পতা দেখা দিয়েছিল তা মেটাতে দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম হয়েছেন সাভারের উলামায়ে কেরাম। বিভিন্ন সময়ে বণ্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। মানিকগঞ্জ, রংপুর, দিনাজপুরসহ দেশের দূরে ও অদূরে ছুটে গিয়েছেন মানবতার টানএবং দায়িত্ববোধ থেকে।

এছাড়া প্রতিবছর বার্ষিক ইসলাহী মজলিস, রমজান মাসে বিশেষ আহ্বান, মুয়াল্লিম প্রশিক্ষণ ও সাধারণ মানুষের  কুরআন শিক্ষার ব্যবস্থা করেছেন। সাভারে তাবলীগের ভেতরে চলমান সঙ্কট নিরসনেও ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে সংগঠনটি।

সংগঠনটির আত্মপ্রকাশের পর থেকে আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন রাজাসন দারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল মান্নান পাটোয়ারী। সদস্য সচিবের চেয়ারকে অলঙ্কৃত করে রেখেছিলেন জামিয়া সিদ্দিকিয়ার মুহতামিম  মাওলানা আলি আকবর।

সাভারের মানুষের ভালোবাসার এ সংগঠনটির প্রথম কাউন্সিল হবে আগামী ২৩ অক্টোবর রোজ মঙ্গলবার। ইতিমধ্যে কাউন্সিলের আংশিক প্রস্তুতি সম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানান সাভার দারুল আমান মাদরাসার মুহাতামিম ও  মসজিদ কমপ্লেক্সের খতিব মুফতি নাজমুল হাসান বিন নূরী।

কাউন্সিলের স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে ইত্তিহাদুল উলামা সাভার উপজেলার অস্থায়ী কার্যালয় সাভার দারুল আমান মাদরাসায় (রাজারবাড়ি মাদরাসা)।

দীর্ঘদিনের মাঠ কাপানো এ সংগঠনের কর্মীরা নতুন নেতৃত্ব চান নাকি বর্তমানে যারা আছেন তাদেরকেই পুন:রায় দলপতি নিযুক্ত করবেন, তা জানা যাবে  কাউন্সিলের পর।

ইত্তিহাদুল উলামার একজন শীর্ষস্থানীয় দায়িত্বশীল  নাজমুল হাসান বিন নুরির কাছে সংগঠনটি গঠনের উদ্দেশ্য জানতে চাইলে তিনি  আওয়ার ইসলামকে বলেন, ইত্তিহাদুল উলামা সাভার উপজেলা গঠনের উদ্দেশ্য:

১। আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের আকিদায় বিশ্বাসী সর্ব স্তরের আহলে ইলদের মাঝে সুদৃড় ঐক্য স্থাপন করা এবং দেওবন্দি চিন্তাধারার আকাবিরে আসলাফের ন্যায় নিজেদের আত্মিক উন্নতির লক্ষ্যে তাজকিয়ায়ে নফস এর মেহনতকে জোরদতার করা।

২। কওমি মাদরাসাসমুহের সমস্যাবলী দুরীকরণে প্রচেষ্টা করা।

৩। সমাজের সকল শ্রেণীর লোকদের সম্পর্কের ভীত আরো সুসংহত ও মজবুত করার জন্য তাদের মাঝে দাওয়াত ,তালিম, তাজকিয়ার মেহনত করা। বিশেষভাবে দাওয়াতে ইসলামের লক্ষ্যেবেফাকুল মাদারিসির কওমিয়্যার কর্মসুচি বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন এলাকায় জামাত প্রেরণ করা।

৪। যেকোন ধরনের প্রকিৃতিক দুর্যোগ, দুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে আসা। সমাজে সহযোগিতার নামে ঘুপটি মেরে বসে থাকা ইসলাম বিরুধী চক্রগুলোর মূল উদ্দেশ্য জাতির সামনে উন্মোচন করে ইসলামের মূর আদর্শকে জনগনের সামনে তুলে ধরার ব্যবস্থা করা।

৫। সব ধরণের বাতিল কুসংস্কার ও জাহালতের বিপরিতে ইলমে ইলাহির আলোকে সুন্নতে নববীর মাধ্যমে সুদৃড় জনমত তৈরি ও অটল অবিচলভাবে ইসলামি চেতনাকে ধারণ করে সর্বপ্রকার বাতিলের মুকাবিলা করা।

জানা গেছ, ৩১ তারিখের এ সভায় মেহমান হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, বেফাকের মহা সচিব মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মধুপুরের পীর সাহেব আল্লামা আব্দুল হামিদ, আল্লামা মাহফুজুল হক, আল্লামা ওবায়েদুল্লাহ ফারুক ও বিশিষ্ট ওয়ায়েজ মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী।

আমন্ত্রীত মেহমানদের মাঝে উপস্থিত থাকবেন, ঢাকা ১৯ আসনের এমপি ডা. এনামুর রহমান, স্থানীয় পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল গনি, তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর।

আরও পড়ুন: মিডিয়া কাভারেজ না পাওয়ার খেদ ও কিছু বাস্তবতা

আরএম/