২০১৮-১০-১১

শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮

‘আল্লামা আহমদ শফির নেতৃত্বে আলেমগণ ঐক্যবদ্ধ আছেন’

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: গত ১ অক্টোবর হাটহাজারী মাদরাসায় চট্টগ্রাম জেলা বেফাক কর্তৃক আয়োজিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর বক্তব্যকে কেন্দ্র করে একশ্রেণির মিডিয়া যে বিতর্ক সৃষ্টির পায়তারা চালাচ্ছে এবং আল্লামা শাহ আহমদ শফির বিরুদ্ধে ক্রমাগত বিষোদগার করছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

আজ (১১ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে আল হাইআতুল উলইয়ার নেতৃবৃন্দ আল্লামা আহমদ শফীর প্রতি বিষোদগারের প্রতিবাদ জানান।

নেতৃবৃন্দ বলেন, আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশের অধীন ৬ বোর্ড, বাংলাদেশের সকল কওমি মাদরাসা, মসজিদের ইমাম ও খতিবগণ এবং উলামায়ে কেরাম, ছাত্রবৃন্দ ও সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার কর্তৃক কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদীসের সনদের মাস্টার্স (ইসলামিক স্টাডিজ এবং আরবি) সমমান প্রদানের বিষয়টি গোষ্ঠীবিশেষ ভালোভাবে গ্রহণ করতে পারেনি।

আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্বে এ দাবি সফলভাবে আদায় হওয়ায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশকে জড়িয়ে এ গোষ্ঠী আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে বিতর্কিত করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা মিথ্যাচার ছড়াচ্ছে কিংবা সরকার থেকে টাকা নেয়ার যেসব উদ্ভট গল্প উপস্থাপন করছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট এবং হুজুরের সম্মান ও মর্যাদা বিনষ্ট করার জঘন্য ষড়যন্ত্র।

বিবৃতিতে হাইআতুল উলইয়ার নেতৃবৃন্দ বলেন, কওমি মাদরাসাসমূহ মুসলিম জনসাধারণের আর্থিক সহায়তায় পরিচালিত হয় এ কথা সকলেরই জানা। তাই কারো অর্থ সাহায্যের কথা মাইকে প্রকাশ করা দোষের কিছু নয়। বরং মাইকে প্রকাশ করাই প্রমাণ করে এ ধরনের অর্থ সাহায্যের পেছনে কোন অসৎ উদ্দেশ্য নেই।

আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে জড়িয়ে যেসব প্রোপাগান্ডা চালানো ও মিথ্যাচার ছড়ানো হচ্ছে, আল-হাইআতুল উলয়া এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

এ সব অপপ্রচার থেকে বিরত থাকার জন্য এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে এ সব অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন আল-হাইআতুল উলয়ার অধীন ৬ বোর্ডের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ।

কওমি মাদরাসা সনদ আইনের গেজেট প্রকাশ
লজিং যুগের নীরব অবসান

-আরআর