২০১৮-০৯-২০

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

হাটহাজারীতে বেফাকের শুকরানা মিছিল

OURISLAM24.COM
news-image

ওমর ফারুক আজাদ
আওয়ার ইসলাম

বহু প্রতিক্ষা উপেক্ষা করে দীর্ঘ সময়ের প্রাণের দাবি লক্ষ ছাত্রদের ভবিৎষত চিন্তা করে অাল্লামা শাহ অাহমদ শফীর তত্বাবধানে কওমী সনদের স্বীকৃতি বিল জাতীয় সংসদে পাশ হওয়ায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে শোকরানা মিছিল করেছেন চট্টগ্রাম উত্তরজেলা বেফাকুল মাদারিসিল অারাবিয়া বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার (২০সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলা ডাক বাংলো চত্বরের সামনে এ শোকরানা মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত মিছিল পূর্বে সংক্ষিপ্ত অনালোচনা সভায় ফতেপুর মাদরাসার পরিচালক মাও মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে মাওলানা অানাস মাদানী বলেন, দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে লক্ষ কওমী ছাত্রদের ভবিৎষতের কথা চিন্তা করে বিশিষ্ট অালেমদের প্রচেষ্টায় গতকাল সংসদে সনদের বিল পাশ হয়েছে।

এই সনদের মান ঠিক রাখতে ছাত্রদের ভাল করে লেখাপড়া করে যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। অন্যথায় এ সনদের কোন মূল্য থাকবেনা। দেশ ও জাতির সেবা করতে হলে অাগে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। জাতীয় এই মহৎ কাজটি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট সকল দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান।

উক্ত শোকরানা মিছিলে অারো বক্তব্য রাখেন,মাওঃ মীর ইদ্রিস, মাওঃ হাবিবুল হক নদভী মাওঃ নুরুল ইসলাম জদিদ মাওঃ শফীউল অালম, মাওঃ এনায়েত উল্লাহ,মাওঃ ইবরাহীম খলিল, মাওঃ অালমগীর মাসুদ।

এসময় বক্তারা বলেন, বর্তমান দেশে কওমী ও সরকারী অালীয়া মাদরাসা রয়েছে। কিন্তু সরকার জানে একমাত্র অাদর্শ সন্তান তৈরী হয় কওমী মাদরাসায়।

অালীয় মাদরাসায় কেমন লেখাপড়া হয় সেটা সকলেই জানে। অাগে কওমী মাদরাসাকে জঙ্গী প্রজনন কেন্দ্র বলে অপবাদ দিত। কিন্তু বর্তমান সরকার নিরলস ভাবে বিভিন্ন গোয়েন্দা তদন্তের রিপোর্ট পেয়ে সেই অপবাদ থেকে মুক্তি দিয়েছে। তাই তারই সরকারের অামলে লক্ষ কোটি প্রাণের দাবি কওমী সনদের বিল সংসদে পাশ করেছে।

পরে ডাক বাংলো চত্বর থেকে হাটহাজারী বাজার সড়র, বাসষ্টেশন জিরোপয়েন্ট হয়ে রাঙামাটি সড়ক দিয়ে জাগৃতি হয়ে কাচারী সড়ক সহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাটহাজারী মাদরাসার প্রধান গেইট সংলগ্ন সড়কে এসে মোনাজাতের মাধম্যে শোকরানা মিছিলটি শেষ হয়।

আরো পড়ুন

কওমি সনদের বিল পাস হওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় খুশির জোয়ার