২০১৮-০৯-০৮

মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এসে গেল যাদুকরী মাদরাসা ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার

OURISLAM24.COM
news-image

হামিম আরিফ: শিক্ষাঙ্গনের কাজ সহজতর করতে এবার মাদরাসা ও আবাসিক হল (হোস্টেল) গুলোর জন্য ব্যতিক্রমী নানান ফিচার সম্বলিত সফটওয়্যার বাজারে এসেছে। সফটওয়্যারটি দিয়ে মূলত অফিসের যাবতীয় কাজ, তালিমাত বা শিক্ষা অফিস ও বোর্ডিংয়ের সব ধরনের কাজ করা যায়। এমনকি বিশেষ শর্তে কোনো ধরনের ইন্টারনেট ছাড়াও সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা যায়।

তুলনামূলক অনেক কমদামে ছাত্রসংখ্যানুপাতে মাসিক সার্ভিস চার্জের টাকা পরিশোধের শর্তে সফটওয়্যারটি দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকেই ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় কাজের কষ্ট লাঘবে এতে অসংখ্য ফিচারের পাশাপাশি যাদুকরী অনেক ফিচারও অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।

বিশেষত আবাসিক মাদরাসার জন্য অতি উপযোগী করে এই প্রথম সফটওয়্যারটি উন্নিত করেছে এস আর বিল্ডার্স কোম্পানি। এস আর বিল্ডার্স এর সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট শাখার বিজনেস প্রধান মুফতি এ এস এম মাহমুদ হাসান আওয়ার ইসলামকে বলেন, তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে বহুমুখি চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে মাদরাসাকে আধুনিকায়ন ছাড়া উপায় নেই। শিক্ষা ও একাডেমিক সার্ভিসে স্কুল/কলেজের মত মাদরাসা অঙ্গনেও বর্তমানে বেশ প্রতিযোগীতা শুরু হয়েছে। উচ্চ বিত্ত ও শিক্ষিত সমাজের অগণিত সন্তান এখন মাদরাসামুখি।

তাই মাদরাসাগুলোতে অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলার পাশাপাশি আধুনিকায়ন করা হলে মাদরাসা শিক্ষা আর কোনো ক্ষেত্রেই পিছিয়ে থাকবে না। সেই মানষিকতা লালন করেই আমরা এই প্রথম মাদরাসার যাবতীয় অফিসিয়াল, তালিমাত, আবাসিক বোর্ডিংয়ের কাজ এক সফটওয়্যারেই সম্পাদনের সুযোগ রেখে সফটওয়্যারটি বাজারজাত করছি। আলহামদুলিল্লাহ, ঢাকার বড় বড় মাদরাসাসহ বিভিন্ন জেলার অসংখ্য মাদরাসা আমাদের সফটওয়্যারটি ইতোমধ্যে ব্যবহার শুরু করেছেন।

সফটওয়্যার কোম্পানিটির অফিস মিরপুরের রূপনগরে ২২ নং রোডস্থ ৪৭ নাম্বার বাড়িতে। এছাড়াও কর্পোরেট অফিসসহ ঢাকায় মোট ৩টি জায়গায় ব্রাঞ্চ অফিস রয়েছে। সফটওয়্যারটি নিতে 01736-672426 অথবা 01687-602005 নাম্বারে যোগাযোগের অনুরোধ করা হয়েছে।

সফটওয়ারটির আংশিক বৈশিষ্টগুলো হলোঃ

১। শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় তথ্য যেমনঃ নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর, ছবি ইত্যাদি সংরক্ষণ করা। (ভর্তি ফরমে যেসব তথ্য সংরক্ষণ করা হয়)

২। শিক্ষার্থীদের মত সহকর্মীদেরও প্রয়োজনীয় তথ্য সংরক্ষণ করা। (নিয়োগপত্রে যে সব তথ্য রাখা হয়)

৩। প্রতিষ্ঠানের মাসিক/বাৎসরিক দাতা ও সদস্যদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংরক্ষণ ও প্রয়োজনীয় সব কাজ করার ব্যবস্থা।

৪। এ্যাডমিন বা শিক্ষকদের কাজ ভাগ করে দেয়া। তাই একজন এ্যাডমিন বা শিক্ষক কেবল তার নির্ধারিত কাজই করতে পারবে এবং কোন এডমিন কি কাজ করেছে তা প্রতিষ্ঠান প্রধান জানতে পারবেন।

৫। পরীক্ষার রেজাল্ট তৈরী করা, রেজাল্ট শিট প্রিন্ট, ট্যাবুলেশন শিট, প্রশংসা পত্র , সার্টিফিকেট প্রিন্ট।

৬। (প্রয়োজনে) মোবাইলের মাধ্যমে হাজিরা সংরক্ষন। মূলত আমরা নাম ডাকার হাজিরা খাতাটি এ্যাপসের মাধ্যমে ডিজিটাল সিস্টেমে রূপান্তর করেছি।

৭। ফিঙ্গার প্রিন্ট কিংবা আর এফ আইডি (ডিজিটাল) কার্ডের মাধ্যমে হাজিরা নেওয়ার ব্যবস্থা।

৮। প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় আয়-ব্যয় হিসাব সংরক্ষণ।

৯। শিক্ষার্থীদের সকল প্রকার বেতন ও ফি ইত্যাদি লেনদেন করা।

১০। মানি রিসিট, ভাউচার ও যে কোনো তথ্য প্রিন্ট।

১১। প্রবেশ পত্র, সিট প্লান, আইডি কার্ড প্রিন্ট।

১২। ভিজিটর বা গ্রাহকদের তথ্য সংরক্ষণ। অধিক নিরাপত্বার জন্য তাদের ফিঙ্গার প্রিন্ট সংরক্ষণ।

১৩। সফটওয়্যারটিকে ওয়েবসাইটে রূপান্তর করার সুযোগ।

১৪। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নিজেরা নিজেদের মার্কশিট, পত্যয়নপত্র, প্রশংসাপত্র, সনদপত্র সংগ্রহ করতে পারবে।(কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে)

১৫। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এডমিনগণ পৃথিবীর যে কেনো প্রান্ত থেকে সফটওয়ারে কাজ করতে পারবেন।

যে বৈশিষ্ট্যসমূহ সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমি –

১। সহকর্মী ও স্টাফদের বেতন প্রদানসহ সকল প্রকার হিসাব সংরক্ষণ।

২। শিক্ষক, স্টাফদের উপস্থিতি, অনুপস্থিতি ও লেটের উপর ভিত্তি করে নির্ধারিত বেতন থেকে হিসাব অনুযায়ী তার প্রাপ্য বেতন নির্ধারণ করা ও শিট প্রিন্ট।

৩। ডিজিটাল তথ্য বোর্ড।

৪। আমাদের নিজেদের তৈরী ডিভাইস দিয়ে কমপিউটার ছাড়াই রেজাল্ট এন্ট্রি, বেতন ও ফি এন্ট্রি এবং প্রিন্ট। ডিভাইস দিয়ে এ্যাটেন্ডেন্স সুবিধা।

৫। হোস্টেলে ডিজিটাল আইডি কার্ড (এটিএম কার্ডের মত) ব্যবহার করে বোর্ডিং পরিচালনা, খাবার এর মিলের হিসাব রাখা, টাকা লেন-দেন করা । শিক্ষার্থীদের হাত খরচের টাকা হারিয়ে ফেলার ঝুঁকি থেকে বাঁচতে ডিজিটাল পদ্ধতিতে টাকা সংরক্ষণ করা ।

৬। আবাসিক মাদরাসা/স্কুল অথবা হোস্টেলের দৈনিক বাজার, আপ্যায়ন, খরচসহ যে কোনো ব্যায় ভাইচার পদ্ধতিতে প্রিন্ট ও হিসাব সংরক্ষণ।

৭। সফটওয়ারেই যে কোনো ভাইচার ইমেজ আকারে সংরক্ষণ করার সুযোগ।

৮। সফ্টওয়্যার থেকে সহজেই দ্রুত সময়ে ফোন কল।

৯। শিক্ষার্থীর এ্যাডমিশন কনফার্ম হলেই ধন্যবাদ জ্ঞাপন সূচক SMS পাঠানো।

১০। প্রাক্তন ছাত্র, অভিভাবক, ভিজিটর, দাতাকে যে কোন ধরনের SMS পাঠানো।

১১। অভিভাবক, ভর্তিচ্ছু বা তথ্য প্রত্যাশীর জন্য SMS এর মাধ্যমে যে কোন তথ্য জানার ব্যবস্থা । (JSC. SSC পরীক্ষার ফলাফল SMS এর মাধ্যমে যেভাবে জানা যায়)

১২। SMS এর মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরীক্ষার রেজাল্ট জানার ব্যবস্থা । (JSC. SSC পরীক্ষার ফলাফল SMS এর মাধ্যমে যেভাবে জানা যায়)

১৩। ভয়েস রেকর্ড করে সফ্টওয়্যার থেকে অটো কল দেওয়ার সুবিধা।

১৪। বিশেষ দিবস, বিভিন্ন কর্ম সম্পাদন ও নির্দিষ্ট কাজ যথা সময়ে সম্পাদনের লক্ষে আপনার নির্ধারিত সময়ে স্বয়ংক্রিয় এলার্ম সিস্টেম।(কম্পিউটার স্ক্রিন শো, ফোনকল, SMS, E-mail এর মাধ্যমে)

১৫। টিচার, স্টুডেন্টস ক্লাশ রুটিন, পরীক্ষার রুটিন ও শিট প্লান প্রণয়ন করার সুবিধা। (শর্ত প্রযোজ্য)

১৬। ফায়ার (অনভিপ্রেত অগ্নিকান্ড) ও স্মোক এলার্ম সিস্টেম।

১৭। SMS চার্জ সবচেয়ে কম।

১৮। আমাদের সফটওয়্যারটি এক্সপার্ট কম্পিউটার অপারেটর ছাড়াই পরিচালনা করা যায়।

বিস্তারিত জানতে- ব্রাঞ্চ অফিসঃ রোড-২২, বাড়ি-৪৭, রূপনগর আ/এ, মিরপুর।

কর্পোরেট অফিসঃ রোড-১৬, বাড়ি-১০, রূপনগর আ/এ, মিরপুর।
ফোনঃ ০১৭৩৬-৬৭২৪২৬, ০১৯৭৯৪৮৮৮২৫, ০১৬৮৭-৬০২০০৫

ব্রাউজ করুন- http://www.srbuildersbd.com/

অারও পড়ুন:  মাদরাসা ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারে যে আকর্ষনীয় ডিভাইসটি সম্পূর্ণ ফ্রি

আরএম/