২০১৮-০৮-১৯

রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

‘মাদক নিয়ন্ত্রণে মাজারগুলোতে তল্লাশির আহ্বান আলেমদের’

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: দেশে মাদক নিয়ন্ত্রণে মাজারগুলোতে তল্লাশির আহ্বান জানিয়েছেন আলেমগণ।

শনিবার (১৮ আগস্ট) বাদ আছর ফরিদপুর শহরে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানান উলামায়ে কেরাম।

যুব উলামা কল্যাণ পরিষদ ফরিদপুরের ব্যানারে এ বিক্ষোভ মিছিলে কয়েক শ’ মুসল্লি অংশ নেন। মিছিলটি চকবাজার জামে মসজিদ থেকে মুজিব সড়ক হয়ে ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন যুব উলামা কল্যাণ পরিষদ ফরিদপুরের শীর্ষ নেত্রীবৃন্দ।

সারা বাংলাদেশ থেকে মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূলের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, হাফেজ মাওলানা শামসুল হক, মুফতী মোস্তাফা কামাল, মাওলানা আবু নাসির, মুফতী মুস্তাফিজুর রহমান, মাওলানা ক্বারী আতাউর রহমান, মুফতী আমিনুল ইসলাম, মাওলানা আশরাফ আলী প্রমুখ ওলামায়ে কেরাম।

বক্তারা বলেন, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ এই ৩টির একটিও ইসলাম সমর্থন করে না। শুধু সরকারই এর নির্মূল চায় না, হক্কানী আলেম উলামা দেশ-প্রেমিক জনতা সবাই এর নির্মূল চায়।

বক্তারা আরও বলেন, আমরা এ দেশের উলামায়ে কেরামের অবস্থান স্পষ্ট করতে চাই। এ দেশের ওলামায়ে একরাম কখনও কোনোভাবেই অবৈধ কোনো কিছু অর্জন করতে চায় না। মাদককে যেভাবে আলেমরা ঘৃণা করেন, সন্ত্রাসকেও একইভাবে ঘৃণা করেন। মাদক এবং সন্ত্রাসকে যেভাবে ঘৃণা করেন, তার চেয়ে বেশি ঘৃণা করেন ধর্মের নামে জঙ্গিবাদকে।

সুতরাং আলেম উলামাদের জঙ্গিবাদের তকমা দিয়ে কেউ রক্ষা পাবে না। জাতির কাছে এটি স্পষ্ট, এ দেশের কোনো হক্কানী উলামায়ে কেরাম জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না।

বক্তারা আরও বলেন, মাজারপুজারীরা বিভিন্ন জায়গায় মাদকের আড্ডা বসায়। মাজার পুজারীদের মত অন্য কেউ এত মাদকের আড্ডা বসায় না। পুলিশ ভাইদের বলতে চাই বাংলাদেশের প্রতিটি মাজার তল্লাশি করুন, সেগুলোতে অনেক মাদক পাওয়া যাবে। তাদের চিহ্নিত করে কঠিন শাস্তির আওতায় আনুন।

ব্যবসার হিসাব নিকাশ এখন হাতের মুঠোয়- ক্লিক

বক্তারা বলেন, প্রিয় ফরিদপুরবাসী আপনারা অবগত হয়েছেন। যুব উলামা কল্যাণ পরিষদ ফরিদপুর সমাজের যত ধরনের অন্যায়, মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদসহ বেহায়াপনা অশ্লীলতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে। ভবিষ্যতে আরো সোচ্চার থাকবে ইনশাআল্লাহ।

মাদকের মাধ্যমে ফরিদপুর শহরসহ সারা বাংলাদেশে যেভাবে যুব সমাজ ধ্বংস হচ্ছে এর একমাত্র কারণ যুব সমাজের মধ্যে দ্বীন ও ইসলামের বুঝ নাই।

তারা বলেন, মাদক সমস্ত গুনাহ’র মূল। কিছু মাদক (বিড়ি, সিগারেট) এর অনুমোদন দিয়ে আবার কিছু মাদককে না বলে মাদকমুক্ত সমাজ গড়া সম্ভব নয়। আমরা সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি ‘মাদকে নিয়ন্ত্রণ না করে নির্মূল করুন’।

আরও পড়ুন

‘কথিত সুন্নীরা বুঝতে পারছে কওমির স্বীকৃতি হলে তাদের দিন ফুরিয়ে যাবে’

-আরআর