২০১৮-০৮-১৫

বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মক্তব থেকে বাড়ি ফেরা হলো না মীমের

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: ফেনী শহরে একটি  ডোবা থেকে বেহেশতী আক্তার মীম নামের সাত বছর বয়সী এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (১৫ আগস্ট) দুপুর ১২টার দিকে শহরের আরামবাগ এলাকায় নির্মাণাধীন ভবনের পাশে ডোবাতে শিশুটির মৃতদেহ ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়ার মো. কবির পেশায় দিনমজুর। দীর্ঘদিন থেকে পৌর এলাকার আরামবাগে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন। তার মেয়ে বেহেশতী আক্তার মীম প্রতিদিনের মতো সকালে পার্শ্ববর্তী মক্তবের উদ্দেশ্যে বের হয়।

কিন্তু মক্তবের সময় পেরিয়ে গেলেও বাসায় না ফিরলে খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। একপর্যায়ে পার্শ্ববর্তী নির্মাণাধীন ভবনের পাশে ডোবা থেকে মীমের মরদহ উদ্ধার করা হয়। বেহেশতী আক্তার মীম স্থানীয় আরামবাগ মাদরাসার ছাত্রী।

মীমের মা নূর নাহার জানান, রাতে মীম তার দাদীর সাথে ঘুমায়। সকালে মক্তবের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে আর ফেরেনি সে।

মক্তবের শিক্ষক আবদুল করিম জানান, সকালে মক্তবে আসেনি মীম।

স্থানীয়রা বলছেন, ধর্ষণ অথবা ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যাকাণ্ডটি ঘটতে পারে। তবে পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্ত রিপোর্টে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেদ খান চৌধুরী এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ‘নিহত শিশু  বুধবার সকালে তার দাদীর বাসা থেকে মক্তবে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়। চার ঘন্টা পর পাশের ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।’

এ বছর হজের খুতবা দিবেন নতুন শায়খ, জানুন তার পরিচয়

ব্যবসার হিসাব এখন হাতের মুঠোয় (কল- 01771 403 470) ক্লিক করুন

আরএম/