২০১৮-০৮-১৩

সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

মাদরাসা ছাত্রকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন জাপা নেতার

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: শরীয়তপুরের বাঘিয়া এলাকায় হাফেজি মাদরাসার এক শিশু ছাত্রকে অমানসিক নির্যাতনে করেছেন জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব নান্নু মুন্সি।

জানা যায়, নান্নু ওই শিশুকে তার বাড়িতে নিয়ে পাষবিক নির্যাতন (বলাৎকার) করেছেন।  রোববার রাতে অসুস্থ ফয়সালকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে নান্নু মুন্সী পলাতক রয়েছে।

এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য  পালং থানা পুলিশ মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও অভিযুক্তের ভাই চুন্নু মুন্সীকে থানায় নিয়ে আসে।

জানা যায়, নান্নু মুন্সী ওই মাদরাসার জমিদাতা। এ সুবাদে গত ৯ আগস্ট মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ ইয়াছিনের কাছে দুই জন ছাত্র চান তার বাসায় থাকার জন্য। কারণ হিসেবে তিনি হাফেজ ইয়াসিনকে জানান তার পরিবার ঢাকায় গেছে এবং তিনি একা বাসায় থাকতে ভয় পান।

আপনার মাদকাসক্ত সন্তানকে নিয়ে আর চিন্তা নয়, ভর্তি করুন হলিকেয়ারে। 58316669, 09602111522, 01777014346, 01916385382

হাফেজ ইয়াসিন মাদরাসা ছুটির পরে ফয়সালসহ দুইজন ছাত্রকে পাঠায় নান্নু মুন্সির বাড়িতে। দুই দিন যাওয়ার পর ১১ আগস্ট রাতে নান্নু মুন্সি ১০ বছর বয়সী ছাত্র ফয়সালকে হাত-প বেঁধে জোরপূর্বক পাষবিক নির্যাতন চালায়।

এ বিষয়ে হাফেজ ইয়াছিন বলেন, তিনি মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতার ছেলে হওয়ায় এবং সমস্যার কথা শোনাই আমরা দুই জন ছাত্রকে তার বাড়িতে থাকতে পাঠাই। কিন্তু তিনি যে এমন খারাপ কাজ করবেন তা কে জানতো।

পালং মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুজ্জামান মিডিয়াকে বলেন, অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে এখনো মামলা আসেনি। ভিকটিমের পক্ষে অভিযোগ পেলে মামলা নেয়া হবে।

‘সরকারকে অভিনন্দন; তবে বাকি প্রক্রিয়াও শিগগির সম্পন্ন হোক’

-আরআর