শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮

১০০০ ফিলিস্তিনিকে রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ সৌদির

OURISLAM24.COM
আগস্ট ১০, ২০১৮
news-image

আবদুল্লাহ তামিম: এবারও হজে ১ হাজার স্বজনহারা ফিলিস্তিনিকে বাদশাহ সালমানের অথিতি হিসেবে বরণ করবে সৌদি আরব।

হজ ও উমরার জন্য সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজের উপদেষ্টা পরিষদের মহাসচিব আবদুল্লাহ এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান।

চলতি বছরের হজে সৌদি সরকারি অতিথি হিসেবে থাকবেন ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধে স্বজন হারানো এমন ১ হাজার ফিলিস্তিনি। নিহত ফিলিস্তিনিদের এসব স্বজন সৌদি আরবের রাজ পরিবারের অতিথি হবেন বলে জানান আবদুল্লাহ।

তিনি বলেন, ইসরায়েলের সঙ্গে সংঘর্ষে এবং ইসরায়েলি আগ্রাসনের শিকার হয়ে বিভিন্ন সময়ে যেসব ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে তাদের স্বজনেরা খাদ্য, বাসস্থান এবং ট্রান্সপাের্টে ভিআইপি মর্যাদা পাবেন। সৌদি বাদশা সালমানের অথিতিদের জন্য বরাদ্দ সব ধরনের সুযােগ সুবিধাই তারা পাবেন।

আবদুল্লাহ আরও জানান, এই সেবাটি নবম বছরে পদার্পন করেছে। অধিকার আদায়ের জন্য যেসব ফিলিস্তিনি তাদের জীবন উৎসর্গ করেছে; তিনি তাদের নায়ক বলে সম্বােধন করেন।

তিনি বলেন, শহিদদের পরিবারের সদস্যদের মনের ব্যথা কমাতে এবং সমবেদনা জানাতেই প্রতি বছর বিশেষ এ উদ্যোগ নেওয়া হয়। এই উদ্যোগ ফিলিস্তিনি সাম্রাজ্যের প্রতি আমাদের সমর্থনকেই নির্দেশ করছে।

[ব্যবসার যাবতীয় কাজ সহজ করতে এলো বিসফটি।  এখনই রেজিস্ট্রেশন করুন বিসফটি।]

গত বছর  হজ উপলক্ষ্যে গাজাবাসীর জন্য মিসর ৪ দিন খোলা রেখেছিলো ‘রাফা ক্রসিং’। এ সময়ের মধ্যে গাজার হজ কাফেলা মিসর হয়ে সৌদি আরব যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিলো।

গত বছরও গাজাবাসীদের মধ্য থেকে ২ হাজার ৫শ ৮জন হাজি ‘রাফা ক্রসিং’ ব্যবহার করে মিসর হয়ে হজ পালনে সৌদি আরব গিয়েছিলেন।

এদের মধ্যে ৫শ’ হজযাত্রী ফিলিস্তিনের স্বাধীনতা সংগ্রামের শাহাদাতবরণকারী পরিবারের সদস্য। শহিদ পরিবারের হজযাত্রীরা সৌদি বাদশাহ সালমানের নিমন্ত্রণে রাষ্ট্রীয় অতিথি হয়ে সৌদি আরব গমন করেছিলেন।

সূত্র: সৌদি গ্যাজেট

২০১৭ সালে সিরিয়ায় নিহত ৬৮,০০০ মানুষ

-আরআর