২০১৮-০৭-২৩

রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

‘রাস্তা বন্ধ করে রথযাত্রা হলে, কোরবানির হাট নয় কেন’

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম:মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাট দুইশত করার পাশাপাশি নির্দিষ্ট স্থানে কুরবানীর স্পট নির্ধারণ না করার দাবি জানিয়েছে আওয়ামী ওলামা লীগ।

রবিবার (২২ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ সহ-সমমাননা ১৩টি সংগঠনের আয়োজনে এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

মানবন্ধনে বক্তরা বলেন, ‘ঢাকাসহ সারাদেশে রাস্তাঘাটে পূজামণ্ডপ হতে পারে। রাস্তা বন্ধ করে রথযাত্রা হওয়ার পরও যদি যানজটে জনদুর্ভোগ না হয়। সেখানে মুসলমানদের ওয়াজিব কোরবানি করতে যানজটসহ বিভিন্ন অজুহাতে প্রতিটি এলাকায় পশুর হাট বরাদ্দ না করা এবং হাট কমানো কোরবানি বিরুদ্ধে কঠোর সাম্প্রদায়িক সিদ্ধান্ত।’

তারা বলেন,‘বর্জ্য ব্যবস্থাপনার অজুহাতে প্রতিবছর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কোরবানিবিরোধী চক্রান্তকারীদের নির্দেশে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনসহ সারাদেশে সব সিটি করপোরেশন পবিত্র কোরবানির উপর হস্তক্ষেপ করে আসছে। পশু জবাইয়ের স্থান নির্দিষ্ট করার অবাস্তব ও অগ্রহণযোগ্য নির্দেশনা জারি করে আসছে। যা দেশের মুসলমানের ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপের শামিল।’

কোরবানির পশুর হাট কমানোর ষড়যন্ত্র বন্ধ এবং রাজধানীতে দুইশত হাট করার দা‌বি জা‌নি‌য়ে বক্তারা বলেন, ‘দুই কোটি জনসংখ্যার ঢাকা মেগাসিটিতে যেখানে কোরবানির পশুর হাট বাড়ানোর কথা সেখানে কোরবানিবিরোধীদের ষড়যন্ত্রে কমানো হয়েছে তিনটি পশুর হাট।

গতবার এ সংখ্যা ছিল, ২৩টি এবার হয়েছে ২০টি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী ঢাকায় ৩০ লাখ কোরবানি হয়ে থাকে সে অনুযায়ী মাত্র ২০টি পশুর হাট থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার লোককে কোরবানির পশু সংগ্রহ করতে হবে যা অবাস্তব, অযৌক্তিক এবং অন্যায় সিদ্ধান্ত।’

এ সময় তারা মদের উপর ট্যাক্স কমানোর দাবীকারী মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারের দাবিও জানান।

ওলামা লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মো. আখতার হোসেন বুখারীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব কাজী মাওলানা মো. আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সম্মিলিত ইসলামী গবেষণা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা মো. আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।

আরও পড়ুন- ইসলামের প্রথম মসজিদ কোনটি?