সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে হেফাজতকে নিয়ে আজগুবি সংবাদ

OURISLAM24.COM
জুন ২৪, ২০১৮
news-image

এ এস এম মাহমুদ হাসান
বিশেষ প্রতিবেদক

দেশের সব স্তরের নির্বাচন নিয়েই আছে বিভিন্ন মহল থেকে অতি বাড়াবাড়ির রেকর্ড। পক্ষে বিপক্ষের নানান শক্তি প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে সত্য মিথ্যা একাকার করে নির্বাচনি মাঠ গরমের পায়তারা চালায়। থাকে নানা গুজব। এমনই এক নিউজ ইন্টারনেটে ঘুরছে গাজীপুর সিটি নির্বাচন নিয়ে।

সম্প্রতি শুক্রবার ‘গাজীপুরের সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রাথী জাহাঙ্গীর আলমকে হেফাজতের সমর্থন’ শিরোনামে নিউজ করে বেশ কয়েকটি নামসর্বস্ব নিউজ পোর্টাল।
নিউজগুলোতে হেফাজতসহ অপরাপর ইসলামি সংগঠনগুলো আওমী লীগ সমর্থিত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দেওয়ার সংবাদ প্রচার করেছে। অথচ গাজীপুর সিটি নির্বাচনে অন্তত দুটি প্রভাবশালী ও জনপ্রিয় ইসলামি রাজনৈতিক দল তাদের প্রার্থী দিয়েছে।

প্রশ্ন উঠেছে, ইসলামি রাজনৈতিকদলগুলো প্রার্থী দেওয়া সত্যেও হেফাজত আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দেওয়ার তথ্য কতটা সত্য হতে পারে? আজগুবি তথ্য দিয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে নির্বাচনে ধর্মকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করারও অভিযোগ উঠেছে নিউজপোর্টালগুলোর প্রতি।

নিউজ পোর্টালগুলো বলছে, নাগরিক সকল সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর আলম চান গাজীপুরকে একটি সৌহার্দ্যপূর্ণ এবং শান্তির নগর হিসেবে গড়ে তুলতে। নৈতিক এবং সামাজিক অবক্ষয় রোধে তার কর্মপরিকল্পনা ইতোমধ্যে মন কেড়েছে গাজীপুরের নিষ্ঠাবান এবং ধর্মভীরু ভোটারদের। হেফাজতে ইসলামসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন সমর্থন জানিয়েছেন মো. জাহাঙ্গীর আলমকে।

শুক্রবার গাজীপুর জেলা হেফাজতে ইসলামীর আমীর মুফতি মাসউদুল করিম হাসান উদ্দিন জাহাঙ্গীরের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে তাকে সমর্থন জানান। ইসলামের আদর্শকে ধারণ করে গাজীপুরকে জাহাঙ্গীর আলম নিয়ে যাবেন অনন্য উচ্চতায় এমনটিই সাংবাদিকদের কাছে ব্যক্ত করেন তিনি।

নিউজ পোর্টালগুলোর এমন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সংবাদ হেফাজতে ইসলামের কর্মী ও সমর্থকদের নজরে এলে অনেকেই আওয়ার ইসলামকে প্রকৃত তথ্য তুলে ধরার অনুরোধ জাানান।

হেফাজতের সমর্থন শীর্ষক নিউজ পোর্টালগুলোর সংবাদ যাচাইয়ে এই প্রতিবেদক ফোনে কথা বলেন গাজীপুর জেলা হেফাজতে ইসলামের আমীর মুফতি মাসউদুল কারীমের সাথে।

তিনি আওয়ার ইসলামকে বলেন, জাহাঙ্গীর আলমকে কবে, কিভাবে সমর্থন দিলাম? হেফাজত একটি অরাজনৈতিক ইসলামি সংগঠন। প্রচলিত কোনো রাজনৈতিক নির্বাচনে হেফাজত কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়া বা না দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। যেটা হেফাজতের গঠনতন্ত্র বিরোধী।

তাছাড়া হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী কোনো নির্বাচনে কোরো পক্ষে হেফাজতের সমর্থন থাকবে না বলে ইতোমধ্যে বিবৃতিও দিয়েছেন।

আওয়ার ইসলাম ঈদসংখ্যা ঘরে বসে কিনতে অর্ডার করুন

আওয়ামী লীগ সমর্থিত পার্থী জাহাঙ্গীর আলম কখনো আপনার সাথে দেখা করে সমর্থন চেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে মুফতি মাসুদুল করীম বলেন, শুধু আওয়ামী লীগ না, বিএনপিসহ অন্যান্য দলের পার্থীরাও আমার সাথে একাধিকবার দেখা করে সমর্থন চেয়েছেন। কিন্তু আমি কাউকে সমর্থন দেইনি। বরং আমি যার দ্বারা জনগণ, দেশ, ইসলামের উপকার হবে তাকে নির্বাচিত করার জন্য দোয়া করেছি।

তিনি বলেন, এর মানে এই নয় যে, আমি জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দিয়েছি। এটা প্রশ্নই ওঠে না। মিডিয়াগুলো হেফাজতকে বিতর্কিত করতে মিথ্যার আশ্রয় নিচ্ছে। তাই হেফাজতের নেতা কর্মীদের খুব সজাগ দৃষ্টি রেখে সকল পদক্ষেপ নেওয়ার আহবান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, রমজানের আগে হেফাজতের ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী সিঙ্গাপুর যাওয়ার সময় বিমানবন্দরের সামনে মাদরাসা বাবুস সালামে তার সঙ্গে দেখা করেন জাহাঙ্গীর আলম। এ সময় তিনি নির্বাচনের জন্য দোয়া চান। এ ছবিটি দিয়েও বলা হচ্ছে হেফাজত আওয়ামী লীগকে গাসিক নির্বাচনে সমর্থন দিয়েছে।

মাওলানা মাসউদুল করীম বলেন, জাহাঙ্গীর আলম সেখানে কেবল সৌজন্য সাক্ষাৎ ও দোয়া নিতেই গিয়েছিলেন। সেখানে সমর্থন নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। তিনি মিডিয়াগুলোকে গুজব না ছড়ানোরও আহ্বান জানান।

গাজীপুর সিটি নির্বাচন; দুই আলেমের নগরপরিকল্পনা

-আরআর