সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮

হাটহাজারী মাদরাসায় ড. নুরুল আবছার আযহারীকে নিয়োগ

OURISLAM24.COM
জুন ২৩, ২০১৮
news-image

ইশতিয়াক সিদ্দিকী, হাটহাজারী প্রতিনিধি

সম্প্রতি মিশরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে বিস্ময়কর সাফল্য অর্জনকারী শিক্ষার্থী ড. মাওলানা নুরুল আবছার আল আযহারীকে দারুল উলুম হাহাটহাজারীর শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মাদরাসার মহাপরিচালক শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী দারুল উলুম হাটহাজারীর শিক্ষকদের মতামতের ভিত্তিতে এ নিয়োগ প্রদান করেন।

আজ ২৩জুন (শনিবার) জামিয়া প্রধানের কার্যালয়ে নতুন শিক্ষাবর্ষে ভর্তি ও নবীন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ভর্তি পরীক্ষাসহ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জামিয়ার শিক্ষকমণ্ডলিদের নিয়ে বিশেষ বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী আশা প্রকাশ করে বলেন, ড. মাওলানা নুরুল আবছার আল আযহারীকে নিয়োগদানের মাধ্যমে জামিয়ার উচ্চতর উলুমুল হাদিস ও উচ্চতর আরবি সাহিত্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মানোন্নয়নে আমূল পরির্বতন আসবে। এদেশে জামিয়ার উচ্চততর শিক্ষা ব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করবে, শিক্ষার মান বাড়াবে এবং যেকোন চ্যালেঞ্জ মুকাবেলায় যোগ্য সুনাগরিক তৈরি করবে ইনশাআল্লাহ।

প্রসঙ্গত, সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত ড. মাওলানা নুরুল আবছার আল আযহারী সম্প্রতি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিস্ময়কর সাফল্য অর্জনের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে নতুন মাত্রায় পরিচয় করে দিয়েছেন মাতৃভূমি বাংলাদেশকে। আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় তার সাফল্য নিয়ে বেশ আলোচনাও হয়েছে।

গত ১৮ জানুয়ারি বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান আলআযহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন জামিয়া দারুল উলুম হাটহাজরীর উর্ত্তীণ মেধাবী ছাত্র গবেষক ড. মাওলানা মুহাম্মাদ নুরুল আবছার। তার থিসিসের বিষয় ছিল, ইমাম ইবনে আবী হাতিম আল-রাযী রহ. (মৃত্যু ৩২৭ হিজরি) রচিত ‘ইলালুল হাদীস’ গ্রন্থের মতানৈক্যপূর্ণ সূত্রের হাদীসসমুহের মধ্যে ইমাম আবু হাতিম আল-রাযী রহ. (মৃত্যু ২৭৭ হিজরি) এবং ইমাম আবু যুরআ আল-রাযী রহ. (মৃত্যু ২৬৪ হিজরি) কর্তৃক অগ্রাধিকার প্রধান কিংবা সামঞ্জস্য বিধানের সূক্ষ্ম কারণগুলোর উদঘাটন এবং সেগুলোর তাত্ত্বিক ও প্রায়োগিক গবেষণা।

গবেষণায় আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টরেট শ্রেণীতে সর্বোচ্চ পর্যায়ের ফলাফলের ‘মারতাবাতুশ শারফিল উলা মা’আত তাওছিয়াতি বিততীবাআ’হ’ – অধিকারী হয়েছেন তিনি।
(مرتبة الشرف الأولى مع التوصية بالطباعة) (First class of honors with the recommendation to print the thesis) ৷

সর্বোচ্চ পর্যায়ের রেজাল্টের পাশাপাশি তার গবেষণাকর্ম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশের এক গৌরবোজ্জ্বল স্বীকৃতি পায়৷ এই প্রথম বাংলাদেশি ড. মাওলানা নুরুল আবছার আলআযহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিস্ময়কর ফলাফলে ডিগ্রী অর্জন করে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের নতুন পরিচয় তুলে ধরেন৷

এ থিসিসের ডিফেন্সে (মুনাকাসা)র দায়িত্বশীল ডক্টরগণ তাকে নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, ‘যদি ডিফেন্স (মুনাকাসা) ছাড়াই কাউকে ডক্টরেট ডিগ্রি দেয়া হতো তাহলে আমরা ড. মাওলানা নুরুল আবছারকেই দিয়ে দিতাম৷’

তার প্রসঙ্গে আরো বলেন, ‘বিভিন্ন আরব দেশে আরো অনেক মুনাকাসার দায়িত্বেও ছিলাম কিন্তু এমন সুবিন্যস্ত তাত্বিক রিসালাহ (থিসিস) অতীতে কখনো দেখিনি।’

‘ইসলামে একসঙ্গে তিন তালাক নেই; সমাজ ভুল ধারণায় বসে আছে’

-আরআর