২০১৮-০৬-২১

রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সৌদি জোটের দখলে ইয়েমেনের হুদাইদা বিমানবন্দর

OURISLAM24.COM
news-image

আবদুল্লাহ তামিম: সৌদি জোট ইয়েমেনের হুদাইদা বিমানবন্দর ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের কাছ থেকে  বুধবার দখলের পর লড়াই আশেপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়ায় সেখানে মানবিক বিপর্যয়ের আশংকা দেখা দিয়েছে।

সৌদি জোট বাহিনীর একজন মুখপাত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায় বিমানবন্দর দখল করে নেয়ার পর আশেপাশের হুথি বিদ্রোহীদের ঘাঁটিতে আক্রমণ অব্যাহত রেখেছে জোট বাহিনী।

সৌদি জোটের মুখপাত্র তুর্কি আল-মাল্‌কি আল আরাবিয়া টিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমরা বিমানবন্দরের কাছে হুথিদের দুর্গগুলো ধ্বংস করে দিচ্ছি।’

স্থানীয়রা জানিয়েছে বিমানবন্দরে লড়াইয়ের তীব্রতা কমে এসেছে, কিন্তু জোটের যুদ্ধবিমান ইরান সমর্থিত হুথিদের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

ইয়েমেনের অসংখ্য মানুষের জন্য রসদ সরবরাহের একমাত্র উপায় হচ্ছে হুদাইদা বন্দর। বন্দরটি অচল হয়ে গেলে বিপুল সংখ্যক মানুষ বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে বলে আশংকা করছে বিভিন্ন সংস্থা।

সৌদির নেতৃত্বাধীন জোটবাহিনী ২০১৫ সালে ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ শুরু করে। সেখানে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকার ও ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের মধ্যে লড়াই চলছে, কিন্তু অনেকের মতে এটির আসলে ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যেকার যুদ্ধ।

যুদ্ধের অচলাবস্থা কাটিয়ে উঠতে গত সপ্তাহে জোট বাহিনী দারুনভাবে সুরক্ষিত হুদাইদা আক্রমণ করে।

তাদের লক্ষ্য হচ্ছে বেসামরিক প্রাণহানির সংখ্যা কম রেখে ও ইয়েমেনের মানুষের ত্রান সরবরাহের ব্যাঘাত না ঘটিয়ে বন্দরটি দখল করে নেয়া।

হুদাইদার বাসিন্দা ফাতিমা জানান, তারা পাঁচদিন ঘরের মধ্যে আটকা রয়েছেন যুদ্ধের ভয়ে। এক সপ্তাহের মধ্যেই তাদের খাবার ফুরিয়ে যাবে এবং বোতলের পানির দাম খুব বেশি।

মাদক মামলায় সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড : প্রধানমন্ত্রী