২০১৮-০৬-১১

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যেই আসছে মাদক চালান!

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: সারা দেশে মাদক বিরোধী অভযান চলছে। কিন্তু এর মাঝেও মাদক পাচার থেমে নেই। কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে বিজিবির অভিযানে ১ লাখ পিস ইয়াবা ও মিয়ানমারের বিভিন্ন মালামাল জব্দ করা হয়েছে। তবে পাচারকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, সোমবার ভোরে হোয়াইক্যং বিওপির দায়িত্বপূর্ণ লম্বাবিল এলাকায় দিয়ে নাফ নদী পার হয়ে ইয়াবার একটি চালান মায়ানমার থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে বলে খবর পায় বিজিবি। পরে ওই এলাকায় নদীর পাড়ে ওঁত পেতে থাকে তারা। এসময় ৩ জনকে নৌকায় করে বাংলাদেশের আসকে দেখা যায়।

বিজিবি সদস্যদের টের পেয়ে ইয়াবা চোরাকারবারিরা তাদের নৌকাটি ঘুরিয়ে মায়ানমারের দিকে চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে বিজিবি সদস্যারা স্পিডবোটে তাদেরকে ধাওয়া করে। একপর্যায়ে চোরাকারবারিরা তাদের নৌকা শাবল দিয়ে ফুটো করে সাঁতরিয়ে মায়ানমারের অভ্যন্তরে চলে যায়।

পরে টহল দল নদীতে ভেসে যাওয়া কাপড়ের ২৪টি বস্তা উদ্ধার করে সেগুলো তল্লাশি করে তিন কোটি টাকার ১ লাখ পিস ইয়াবা এবং ৩৩ লাখ ৮১ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের বার্মিজ বিভিন্ন ধরণের কাপড় ও মালামাল উদ্ধার করে।

২ বিজিবির অতিরিক্ত পরিচালক শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধারকৃত বার্মিজ মালামালগুলো টেকনাফ শুল্ক গুদামে জমা করার কাজ চলছে।

উদ্ধারকৃত ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা।

আরো পড়ুন কবি ফররুখ আহমদের কী অপরাধ?