মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮

সম্প্রীতির ইফতার মাহফিল অায়োজন করে মিসরের বিশ্বরেকর্ড

OURISLAM24.COM
মে ২৮, ২০১৮
news-image

রকিব মুহাম্মাদ
আওয়ার ইসলাম

  সম্প্রীতির ইফতার মাহফিল অায়োজন করে বিশ্বরেকর্ড করল মিসরের মানুষ।মূলত দীর্ঘ টেবিলে ইফতার আয়োজন করেই এ রেকর্ড গড়েছে মিসর।

মিলেমিশে এক সঙ্গে বসে ইফতার করতে ভুল করেন না ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। একসঙ্গে সম্প্রীতির ইফতার মাহফিল মুসলিম বিশ্বে অনেক আগ থেকে চলে আসছে।

এর ধারাবাহিকতায় বড় একটি ‘ইফতার টেবিল’ বসেছিল মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া শহরে।যা চার হাজার ৪০৩ মিটার লম্বা। যেখানে এক হয়ে ইফতার করেছেন সাত হাজারেরও বেশি মানুষ। যা লম্বায় ছিলো চার হাজার ৪০৩ মিটার (প্রায় সাড়ে চার কিলোমিটার)।

নীল নদ আর পিরামিডের এ দেশটি এভাবে একসঙ্গে দীর্ঘ টেবিলে ইফতার আয়োজন করে বিশ্বের আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে ।

ওই ইফতার টেবিলে সারিবদ্ধভাবে শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সের মানুষ অংশ নেয়। কারও পোশাক-আশাকে আভিজাত্যের ছাপ, কারও দারিদ্র্যের। তবে কারও মধ্যে ছিল না কোনো জড়তা। সবাই একই রকম ইফতার নিয়ে বসেছিলেন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে।

স্মরণীয় এ সম্প্রীতির ইফতার টেবিলটির আয়োজন করেছিল ‘রেডিও অ্যাক্টিভ’ নামে তরুণদের একটি সংগঠন। তবে এ আয়োজনে মিসরীয় সরকারের সমন্বয়ও ছিল সংগঠনটির সঙ্গে।

২০১৪ সালে দুই কিলোমিটারজুড়ে ইফতার আসরের অয়োজন করেছিল ভূমধ্য উপকূলভূমি ইতালি। পাশাপাশি এক হাজার ২৮৬ মিটার লম্বা ইফতার টেবিলের আয়োজন করে রেকর্ডভুক্ত হয়ে আছে ফিনল্যান্ডও। এ ছাড়া সৌদি আরবের জেদ্দাসহ বিভিন্ন শহরে বড় বড় ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয় প্রতিবছরই।

এদিকে, ভারতের শ্রীনগরে ডাল লেকের তীরে প্রায় দেড় কিলোমিটারেরও বেশি লম্বা কাপড় বিছিয়ে ‘দস্তরখানা’য় সাড়ে তিন হাজার মানুষের ইফতার আয়োজন করা হয়। যা স্মরণীয় হয়ে এশিয়ার মধ্যে সর্বোচ্চ রের্কড গড়ে আছে দেশটির জম্মু ও কাশ্মীর শহর।

কাশ্মীরের সুশীল সমাজ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় ‘লাউড বিটল’ নামে একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি এ ‘দস্তরখানা’ ইফতার মাহফিলটির আয়োজন করেছিল। যা সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ শহরের সর্বোচ্চ রেকর্ড।

আরও পড়ুন : বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির ইফতার মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী