শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮

রমজানে পাঁচটি ইসলামিক প্রোগ্রাম উপস্থাপনা করছেন শরাফত করিম

OURISLAM24.COM
মে ২৬, ২০১৮
news-image

কাউসার লাবীব: শরাফাত করিম। দক্ষিণ বঙ্গের জেলা নোয়াখালীতে জন্ম। ছোটবেলা থেকেই প্রবল ইচ্ছে অনাবিল শান্তির স্বপ্নীল ভূবন মানবতার ধর্ম ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে টেলিভিশনে আয়োজিত অনুষ্ঠানের সঞ্চালক হওয়ার।

তার প্রবল ইচ্ছে তাকে আজ স্বপ্ন ছুঁতে সহায়তা করেছে। সিয়াম সাধনার এ মাসে প্রায় অর্ধ ডজন অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করছেন বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে।

কীভাবে তিনি তার মনগহীনে লালন করা স্বপ্ন পূরণ করেছেন এ সম্পর্কে  জানতে চাইলে আওয়ার ইসলামকে তিনি বলেন, ‘টেলিভিশনে উপস্থাপনা করা আমার ছোটবেলা থেকেই শখ।এ শখ পূরণের জন্য আমি নির্ভিকভাবে এগুতে থাকি।

‘অনেক চড়াই-উৎড়াই পেড়িয়ে প্রমিত উচ্চারণ শেখার জন্য ভর্তি হই আবৃত্তি একাডেমিতে।এরপর লাগাতার দীর্ঘ একবছর নিজে নিজে অনুশীলন করি।’

তিনি বলেন, আমার এ প্রচেষ্টা বৃথা যায় নি। শুরুতেই বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনে কাজের সুযোগ পাই এবং আল্লাহর অশেষ রহমতে সে সুযোগ কাজে লাগাই। এরপর সে বছর বৈশাখী টিভি ও চ্যানেল নাইনে অনুষ্ঠান করার সুযোগ পাই।

এর ধারাবাহিকতায় এ বছর এসএ টিভি, দাওয়া টিভি ও চ্যানেল নাইনে রমজানে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করছি। এমনকি আমি দুটি কমার্শিয়াল বিজ্ঞাপনও করেছি।

আপনার অনুষ্ঠানগুলোর ফিডব্যাক কেমন পাচ্ছেন? জানতে চাইলে তিনি বলেন, দর্শকরা আমাকে প্রত্যাশার চেয়ে অনেক বেশি অনুপ্রাণিত করছে। বিশেষ করে এসএ টিভির প্রোগ্রামের জন্য তো টিভির মালিকও আমাকে অনেক অনুপ্রাণিত করেছেন। আমি তো এখনো স্টুডেন্ট, এ বয়সেই তাদের এমন ভরসামূলক কথা আমাকে অনেক দূরের স্বপ্ন দেখতে সহায়তা করছে।

Image may contain: 2 people, including Sharafat Karim, people sitting

শরাফাত করিমকে উপস্থাপনার পাশাপাশি বিভিন্ন শর্টফিল্মেও দেখা যায়। শর্টফিল্ম কেন করছেন জানতে চাইলে বলেন, ‘উপস্থাপনার সঙ্গে অভিনয়ের বড় একটা সম্পর্ক রয়েছে। উপস্থাপনার সঙ্গে সঙ্গে অভিনয়টা আমার মজ্জাগত পাওয়া বলা যায়। তাই এ প্রতিভাটাকে ভাল কাজে লাগানোর জন্য শর্টফিল্মে আসা। আমার দর্শকও আমাকে খুব ভালোভাবে গ্রহণ করেছে।

তিনি বলেন, আমার শর্টফিল্মে আমি ইসলাম, মুসলমান ও মাদরাসা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন দিক তুলে আনার চেষ্টা করি। আমাদের সমাজের মানুষ যে বিষয়গুলোকে নেগেটিভভাবে জ্ঞান করে সেগুলোকে সুন্দরভাবে তুলে ধরে মানুষকে সঠিক জিনিস বুঝতে সহায়তা করি।

তিনি আরো বলেন, আপনি দেখে থাকবেন আমার প্রত্যেকটি ভিডিওতে মৌলিক ও গুরুত্বপূর্ণ থিম রাখার চেষ্টা করি। যার কারণে আমার ‘নামাজ’ শিরোনামে শর্টফিল্মটা বিভিন্ন সাইট থেকে শেয়ার হয়ে প্রায় দেড়কোটিবার দেখা হয়েছে।

এছাড়া, সেজদা, অনুপ্রেরণাসহ বেশ কয়েকটি শর্টফিল্ম দর্শক প্রিয়তা পেয়েছে। আমি চেষ্টা করি গদবাঁধা জিনিস না রেখে সমাজের প্রয়োজন মোতাবেক কিছু বিষয় নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে।তবে আগামীতে ইনশাআল্লাহ আরো ভাল ও শিক্ষণীয় ভিডিও উপহার দিতে পারবো বলে আশা করি।

দর্শক মহলে তিনি উপস্থাপক হিসেবেই বেশি পরিচিত। তাই এ পথে নিজেকে কোথায় আবিষ্কার করতে চান? জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘নিজেকে দেশের সেরা উপস্থাপকদের মাঝে আবিষ্কার করতে চাই। এছাড়া একজন প্রাজ্ঞ ইসলামিক স্কলার হওয়ার স্বপ্ন বুনি আমি। সে জন্য কয়েক বছরের মধ্যেই লেখাপড়ার উদ্যেশ্যে দেশের বাইরে পা রাখার ইচ্ছে।

Image may contain: Sharafat Karim, smiling, sitting and indoor

সবশেষে তার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, আপনি এখনো শিক্ষার্থী। বলা যায় বেশ অল্প বয়সেই খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন। আপনার বয়সে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা অনেককেই দেখা গেছে, নিজেদের চরিত্রের সাদা চাদর পবিত্র রাখতে ব্যর্থ হয়েছে।

বিশেষ করে আহসান হাবীব পেয়ার নামের এক তরুণ তার দর্শকের বিশ্বাস আর ভালোবাসাকে বিপথে ব্যবহার করেছে। এ বিষয়ে আপনি কতটা সচেতন? আপনার ভক্তরা তাদের মতো আপনাকে হারিয়ে ফেলার সম্ভাবনা নেই তো?

এ প্রশ্নের জবাবে তিনি গম্ভীর কণ্ঠে বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমত ও আপনাদের দোয়ায় আমি এ বিষয়ে খুব সচেতন। নিজেকে নিজের জন্য, পরিবারের জন্য এবং আমার দর্শকদের জন্য স্বচ্ছ রাখতে চাই। অবশ্যই আল্লাহ আমার সহায় হবেন।

শরাফাত করিম বর্তমানে তামিরুল মিল্লাতে হাদিসে কামিল এবং কবি নজরুল কলেজে ইকনোমিক্সে অনার্স করছেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি ইসলামের সুমহান আদর্শ মিডিয়ার মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরবেন বলে আশাবাদি তার পরিবার ও বন্ধুসজন।

রমজান উপলক্ষ্যে কলরবের শিক্ষামূলক মিউজিক ভিডিও ‘আল্লাহ বলো’

-আরআর