২০১৮-০৫-২২

মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের কারণ মানুষ জানতে চায় : এরশাদ

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত ইফতার মাহফিলের পূর্ব এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেছেন, গত ৩-৪ মাসে দেশে ৭২টি বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অথচ প্রতিটি মানুষের ছিল বিচার পাওয়ার অধিকার। জাতি আজ জানতে চায়- কেন এই বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড।

সোমবার এ ইফতার পার্টিতে এরশাদ আরও বলেন, রমজান মাস এলেই নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি হয়। অতি মুনাফার জন্য ব্যবসায়ীরা মানুষের রক্ত শোষণ করে। অথচ পৃথিবীর সব রাষ্ট্রেই পবিত্র এ রমজান মাসে সরকারসহ সব ব্যবসায়ী ভর্র্তুকি দিয়ে থাকেন।

শুধু আমরাই ব্যতিক্রম। তিনি বলেন, আমাদের নোম্যানসল্যান্ডে এখনও সাড়ে ৪ লাখ মিয়ানমারের রোহিঙ্গারা মানবেতর জীবনযাপন করছে।

তারা ইফতার ও সেহেরি ঠিকমতো করছে কিনা তার খোঁজ কেউ রাখে না। তাদেরও বাংলাদেশে নিয়ে আশার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান এরশাদ।

সাবেক এ রাষ্ট্রপতি বলেন, ব্যাংকে টাকা নেই। এর হিসেবও নেই। টাকাগুলো গেল কোথায়? কে দেবে এর হিসাব! অনেকেরই বিদেশে ৪-৫টি বাড়ি। অথচ দেশের মানুষ ঠিকমতো খেতে পারছে না।

দেশের সর্বত্রই এই বৈষম্য। এই বৈষম্য দূর করতে হলে দেশবাসীকে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় বসাতে হবে। আর জাতীয় পার্টি ক্ষমতা নিতে প্রস্তুত।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, আগামী নির্বাচন সামনে রেখে জাতীয় পার্টির জোট আরও সম্প্রসারিত হবে। জাতীয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সম্ভাবনাময় দল হিসেবে অংশ নিয়ে সরকার গঠন করতে সমর্থ হবে।

চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা রিন্টু আনোয়ার, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, রওশন আরা মান্নান এমপি, নাজমা আকতার, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, মো. জহিরুল ইসলাম জহির, আরিফুর রহমান খান, আলমগীর শিকদার লোটন, সরদার শাহজাহান, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির হোসেন এমপি, মনিরুল ইসলাম মিলন, ইসহাক ভূঁইয়া, ফখরুল হাসান শাহাজাদা, নির্মল দাস, হেলাল উদ্দিন, মাহমুদ আলম, মাহবুবুর রহমান খসরু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে।

আরো পড়ুন- একজন রোজাদার যেন একজন সৈনিক!