২০১৮-০৫-২০

রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

আওয়ার ইসলামকে দারুল উলুম দেওবন্দের চিঠি

OURISLAM24.COM
news-image

রোকন রাইয়ান, তাওহিদ আদনান: উপমহাদেশের বিখ্যাত দ্বীনি বিদ্যাপীঠ ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের লাইব্রেরিতে বাংলাদেশের লেখকদের লেখা বই-কিতাব পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকম।

বাংলা ভাষায় রচিত গ্রন্থগুলোও অন্যান্য গ্রন্থের মতো বিশ্বমানের লাইব্রেরি মাকতাবায়ে শাইখুল হিন্দে মর্যাদার সঙ্গে জায়গা পাবে।

লাইব্রেরিতে জায়গা পাওয়া গ্রন্থগুলো বাংলাদেশের শিল্প সাহিত্য সংস্কৃতি ও বাংলাদেশি আলেমদের লেখালেখি, গবেষণাকর্ম, চিন্তা ও মননের জানান দিতে সক্ষম হবে।

সম্প্রতি এ বিষয়ে দারুল উলুম দেওবন্দের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আওয়ার ইসলাম কর্তৃপক্ষের একটি চুক্তি হয়েছে।

গতমাসে দেওবন্দের লাইব্রেরি বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় প্রকাশিত বইগুলো নিজেদের সংগ্রহে রাখার জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল। সে বিজ্ঞপ্তিতে সাড়া দিয়ে দেওবন্দ মাদরাসার মুহতামিম মুফতি আবুল কাসেম নুমানি বরাবর আওয়ার ইসলামের সম্পাদক হুমায়ুন আইয়ুব একটি পত্র লেখেন।

এছাড়াও তিনি ১৮ এপ্রিল দেওবন্দে সফরের সময় মাদরাসা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক ও চিঠির আবেদনের ভিত্তিতে বাংলাভাষার আলেমদের লেখালেখি ও গবেষণাকর্মকে একত্রিত করা ও দেওবন্দে পাঠানোর বিষয়ে অনুমোদন করে।

এ বিষয়ে গত ১৩ মে লেখা দারুল উলুম দেওবন্দের নায়েবে মুহতামিম মাওলানা আবদুল খালেক মাদরাজি স্বাক্ষরিত ফিরতি চিঠি পাঠানো হয়। চিঠিতে বলা হয়-

সম্মানিত ভাই
হুমায়ুন আইয়ুব
সম্পাদক
আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফের ডটকম

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আপনার সুস্বাস্থ্য ও সুস্থতা কামনা করি। পর সমাচার হলো, আপনি গত ২৭/৩/২০১৮ ইং তারিখে বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত উর্দু, বাংলা ও আরবি গ্রন্থগুলো একত্র করে দারুল উলূম দেওবন্দের গ্রন্থাগারে হাদিয়া হিসেবে পাঠানোর আগ্রহ ব্যক্ত করে একটি পত্র পাঠিয়েছিলেন।

কোনো সন্দেহ নেই আপনার এই ভাবনা ও উদ্যোগ দারুল উলুম দেওবন্দের প্রতি আপনার নিষ্ঠাপূর্ণ ভালোবাসার প্রমাণ। বিভিন্ন অঞ্চল ও ভাষার ইলমি কাজগুলো দারুল উলুমকে সরবরাহ করার এই উদ্যোগটি দারুল উলুমের গ্রন্থাগারের জন্য উপকারী হবে এবং যুগ যুগ ধরে দারুল উলুমের জ্ঞানপিপাসুদের জ্ঞান পিপাসা নিবারণ করবে।

আপনার এই পদক্ষেপটি দারুল উলুমের পক্ষ থেকে যথাযথ গুরুত্ব ও মূল্যায়নের উপযুক্ত। তাই আমরা আপনাকে অনুমতি দিচ্ছি আপনি আপনার উদ্যোগ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এগিয়ে যান। মহান আল্লাহ যেনো আপনাকে তাওফিক ও সফলতা দান করেন।

যারা দারুল উলুমের কল্যাণার্থে আপনাদের কাছে বিভিন্ন ইলমি প্রকশনা পৌঁছে দেবে, দারুল উলুম তাদের ধন্যবাদ জানাতে চায়। তাই দারুল উলুম আশা করছে, আপনি সেইসব দাতা ও তাদের দেয়া গ্রন্থগুলোর নাম লিপিবদ্ধ করবেন এবং গ্রন্থগুলো দারুল উলুমে পাঠানোর সময় সেই তালিকাটিও পাঠাবেন। যেনো দারুল উলুম আপনাদের ও তাদের শুকরিয়া আদায় করতে পারে।

আল্লাহর কাছে দোয়া করছি, তিনি যেনো এই উদ্যোগটিকে আপনার নেক আমলের পাল্লায় ওঠান, আপনার হায়াতে বরকত দান করেন, আপনাকে ও আপনার সংবাদ মাধ্যমকে ইসলাম ও মুসলমানদের কল্যাণে কাজ করার তাওফিক দান করেন এবং আপনার প্রচেষ্টাগুলো কবুল করেন। নিশ্চই আল্লাহ সৎকর্ম পরায়ণদের প্রতিদান নষ্ট করেন না।

সবশেষে কৃতজ্ঞতা ও সম্মান গ্রহণ করুন। ওয়াসসালাম।

নিবেদক। আবদুল খালেক মাদরাজি
ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ
জামিয়া ইসলামিয়া উলুম দেওবন্দ, দেওবন্দ ইউপি, ভারত।
২৬/৮/১৪৩৯ হি.

উল্লেখ্য, গত মার্চে দারুল উলুম দেওবন্দের লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় প্রকাশিত কিতাবাদি দারুল উলুম দেওবন্দের লাইব্রেরিতে পাঠ ও সংগ্রহের উদ্যোগ নেয়া হয়।

উদ্যোগের বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়ে বাংলাদেশের লেখকদের লেখা গ্রন্থ সংগ্রহ এবং দেওবন্দের লাইব্রেরিতে পাঠানোর বিষয়ে আওয়ার ইসলামের পেডে অনুরোধ জানানো হয়।

এছাড়াও গত ৮ এপ্রিল আওয়ার ইসলাম সম্পাদক হুমায়ুন আইয়ুব দেওবন্দ সফর করলে দারুল উলুম দেওবন্দের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়। কর্তৃপক্ষ আওয়ার ইসলামের অনুরোধে খুশি হন।

সে অনুযায়ী আনুষ্ঠানিকভাবে ১৩ মে লেখা একটি চিঠি প্রেরণ করেন আওয়ার ইসলামে।

দারুল উলুম দেওবন্দের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এ চুক্তির ফলে বাংলাদেশের লেখক-প্রকাশকদের প্রকাশিত যে কোনো গ্রন্থ বিশ্বের অন্যতম শাইখুল হিন্দ লাইব্রেরিতে পাঠ ও সংরক্ষণের জন্য পাঠানো যাবে।

উল্লেখ্য, আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকম এ মহৎ কর্মকে সামনে রেখে, বাংলাদেশের গ্রন্থ ও গবেষণাকর্ম একত্রিত করার জন্য দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরামকে নিয়ে একটি কমিটি করবে। একই সঙ্গে লেখক, প্রকাশক এবং প্রকাশনা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে আবেদন করবে ইনশাআল্লাহ।

আওয়ার ইসলাম টিভি – দেখুন ও সাবস্ক্রাইব করুন