রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮

দেওবন্দে তানভীর মোশাররফের বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

OURISLAM24.COM
মে ৮, ২০১৮
news-image

তাওহীদ আদনান
দেওবন্দ থেকে

বি-বাড়িয়ার কৃতি সন্তান মাওলানা তানভীর মোশাররফ একজন সচেতন আলেম৷ দায়িত্ববোধ নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার মতো একজন প্রত্যয়ী মানুষ৷ প্রতিভার অধিকারী শান্ত-শিষ্ট অমায়িক এই মানুষটিকে না দেখলে বুঝাই মুশকিল যে তিনি কতটা উম্মতের প্রতি দরদী আর মুশফিক৷

বাংলাদেশে বি-বাড়িয়া ও ফরিদাবাদ থেকে পড়ালেখা শেষ করে তিনি দেওবন্দ আসেন৷ দেওবন্দে এসে তিনি পুনরায় দাওরায় ভর্তি হন৷ এখানে একাডেমিক পড়ালেখার পাশাপাশি তিনি উদ্যোগ নেন একটি অনবদ্য কাজের৷

তাবলীগ জামাতের উপর গাইরে আহলে হকদের পক্ষ থেকে সৃষ্ট সংশয়বাদের খণ্ডনে দৃঢ় প্রত্যয়ে কলম তুলে নেন হাতে৷ দীর্ঘ পরিশ্রমের পর তার অনবদ্য লেখাগুলো মলাটবদ্ধ হয়ে ‘কোরআন ও হাদীসের দর্পণে তাবলীগ জামাত’ নামে আজ পাঠকের সামনে সমাদৃত৷

সুপ্ত প্রতিভার অধিকারী লোকটি এতোদিন ছিলেন পর্দার আড়ালে। আর আড়ালে থেকেই তিনি পাতায় পাতায় সাজিয়ে তুলেছেন ‘কেরআন ও হাদীসের দর্পণে তাবলীগ জামাত’ নামক বইটি। তার গবেষণালব্ধ লেখাগুলো মলাটবন্দী হয়ে অবশেষে এসে গেছে পাঠকের সামনে৷ প্রকাশ করেছে ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে মাকতাবায়ে শফীক ও বাংলাদেশ থেকে নবডাক প্রকাশনী।

গতকাল সোমবার বাদ যোহর দারুল উলুম দেওবন্দে মসজিদ রশিদের করিডোরে ছোট্ট একটি সেমিনার হয়৷ উক্ত সেমিমার বা অনুষ্ঠানেই আনুষ্ঠিক মোড়ক উন্মোচন হয় বইটির৷

এতে লেখক মাওলানা তানভীর মোশাররফ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দেওবন্দে অধ্যায়ণরত বেশ কিছু মেধাবী ছাত্র৷ অনুষ্ঠানে লেখক বইটি লেখার প্রেক্ষাপট ও লক্ষ্য-উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন৷ পাশাপাশি আরো কয়েকজন মেধাবী তরুণ বইটির ব্যাপারে অনুভূতি ব্যক্ত করেন৷

অনুষ্ঠানে বিশেষভাবে বইটির পরিচিয় তুলে ধরেন দেওবন্দে অধ্যায়ণরত গত বছর বাংলাদেশে হাইয়াতুল উলইয়াতে প্রথম স্থান অধিকারকারী মুহাম্মাদ ইলিয়াস হুসাইন৷

তার আলোচনার সারাংশ ছিলো ‘কোরআন ও হাদীসের দর্পণে তাবলীগ জামাত’ নামক বইটি দ্বীন প্রচারেরই একটি অংশ৷ দ্বীন প্রচারের ক্ষেত্রে মকবুল জামাত তাবলীগের জন্য বিশেষ অবদান রাখবে বইটি৷ যেহেতু বইটিতে দাওয়াত ও তাবলীগের প্রচলিত পদ্ধতির সকল প্রকার আলোচনার পাশাপাশি গঠনমূলক সমালোচনাও করার চেষ্টা করা হয়েছে৷ তাই আশা করা যায় যে কেউই বইটির মাধ্যমে উপকৃত হতে পারবে৷

অনুষ্ঠানে বইটির ব্যাপারে বিশেষ মতামত পেশ করেন মেধাবী তরুণ মুহাম্মাদ রিযওয়ান ও ফারুক আব্দুল্লাহ৷ তারাও গুরুত্বপূর্ণ মতামত ও অনুভূতি পেশ করেন বইটির ব্যাপারে৷ সাথে সাথে তারা বইটির মাকবুলিয়াতেরও কামনা করেন কায়োমনেবাক্যে৷

লেখক জানান, বইটিতে অভিমত লিখেছেন দারুল উলুম দেওবন্দ সংলগ্ন প্রতিষ্ঠান জামিয়াতুশ শায়েখ হুসাইন আহমাদ মাদানী-এর প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম ও শাইখুল হাদীস মাওলানা মুজাম্মেল আলী৷

বইটিতে আরো অভিমত দিয়েছেন ঢাকার জামিয়া শারইয়্যাহ মালিবাগ-এর সিনিয়র মুহাদ্দিসও শাইখুল হাদীস সানী মাওলানা জাফর আহমাদ৷

লেখকে আরো জানান, বইটি লেখা হয়েছে সম্পূর্ণভাবে জামিয়া ইসলামিয়া বনানী ঢাকা-এর সিনিয়র মুহাদ্দিস ও ইফতা বিভাগের মুশরিফ মুফতী মুহাম্মাদ আব্দুল মালেক-এর তত্ত্বাবধানে দ্বিনী খেদমতের মানসেই লেখা হয়েছে৷

বইটির ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে হাটহাজারী মাদরাসার ফারেগ, দারুল উলুম দেওবন্দের ছাত্র মাওলানা মুফতী মাহমুদুল হাসান শরীয়তপুরী বলেন, ‘বইটি দেখেছি৷ আমি মনে করি তাবলীগ সম্পর্কে জানতে ও বুঝতে সকলেরই বইটি পড়া উচিত৷ এক কথায় বইটি তাবলীগের সম্পূরক হিসেবেই উপকারে আসবে বলে আমার মনে হয়’

বইটটি লেখার প্রেক্ষাপট সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে লেখক জানান, মূলত বইটি লেখার উদ্যোগ নিয়েছি তাবলীগ সংশয়ের নিরসেন৷ তিনি বলেন বিভিন্ন সময়ে দেখা যায় আহলে হাদীস ফিরকা বা অন্যান্য গাইরে আহলে হকদের পক্ষ থেকে তাবলীগের বিভিন্ন কাজকে কলুষিত করা হয়৷ তাই তাবলীগের কাজগুলোর প্রমাণ্যতার প্রয়াস রাখা হয়েছে বইটিতে৷

বইটির বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন বেশ কিছু বিষয়বিস্তু নিয়ে লিখেছি বইখানা৷ তন্মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হলো ‘কোরআন হাদিসের আলোকে দাওয়াত ও তাবলিগ এবং দাওয়াতের শর্তসমূহ, প্রচলিত তাবলিগ; কিছু আপত্তি ও তার সমাধান এবং কিছু ভ্রান্তিকর বিষয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ’

বিষয়বস্তুর মধ্যে আরো রয়েছে ‘দলিলসহ তাবলিগের নতুন পুরাতন ছয় নাম্বার, তাবলিগি ছয় গুণের উপর আলাদা চল্লিশ হাদিস, দলিলসহ এজতেমায়ি আট কাজের পূর্ণ বিবরণ, খুসুসী-তালিমী ও উমুমী গাশতের একাধিক দাওয়াত, গাশতের আদব, তারুফি কথা, ঈমান একিনের কথা, ফজর বাদ ও মাগরিব বাদ বয়ানের বিবরণ’

শেষ দিকে আলোচনায় স্থান পেয়েছে ‘কোরআন হাদিসের আলোকে জান্নাত ও জাহান্নামের বিবরণ, দলিল আকারে ফজিলতসহ তাহাজ্জুদ, এশরাক, চাশত, আওয়াবিন, এস্তেখারা ও সালাতুস তাসবিহ নামাজের বিবরণ, বার কাজ, দায়ীর সিফাত ও আরো বহুসাধারণ জ্ঞান এবং জরুরি মাসনুন দোয়া ইত্যাদি’৷

দাওয়াত ও তাবলীগের বর্তমান পরিস্থিতিতে জনসাধারণের করণীয়

-আরআর