২০১৮-০৪-২২

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

সৌদিতে অভ্যুত্থান চেষ্টা, রাজপ্রাসাদের বাইরে গোলাগুলি!

OURISLAM24.COM
news-image

আবদুল্লাহ তামিম: সৌদি আরবের বাদশাহ সালমানের বাসস্থান রয়্যাল প্যালেসের বাইরে প্রচণ্ড গোলাগুলি ও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম নিউজ উইকের খবরে বলা হয়েছে, শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটার পর গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে।

তবে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর বলছে, স্থানীয় সময় রাত ১১টার দিকে রাজধানী রিয়াদের রয়্যাল প্যালেসের সামনে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। গোলাগুলির সময় সৌদি প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান কোথায় ছিলেন তা নিয়েও দুই রকম তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

মিররের খবরে বলা হয়েছে, গোলাগুলির সময় যুবরাজকে নিরাপদে পার্শ্ববর্তী সেনা বাঙ্কারে সরিয়ে নেয়া হয়।

অন্যদিকে নিউজ উইকের খবরে বলা হয়েছে, ওই সময় সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান ওই প্যালেসে ছিলেন না। তিনি দিরিয়ায় তার একটি ফার্মে অবস্থান করছিলেন। নিউজ উইকের খবরে স্থানীয় পুলিশ প্রধানের বরাত দেয়া হয়েছে।

কারা এ গুলিবর্ষণ করেছে এবং তাদের সংখ্যা কতো কিংবা কি উদ্দেশ্যে এ হামলা চালানো হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক গণোমাধ্যম ডেইলি সাবহা জানায়, তারা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সরকারী কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি জানিয়েছেন, একটি ড্রোন প্রাসাদের কাছিকাছি আসলে গুলি করে ভূপাতিত করার পরপরই গোলাগুলির ঘটনা শুরু হয়। ডেইলি সাবহা আরও জানায়, প্রাসাদ অভ্যুত্থানের ঘটনাও ঘটতে পারে।

প্রেস টিভি জানায়, বাদশাহ সালমানের প্রতিপক্ষ এই হামলা চালিয়ে থাকতে পারে বলে তাদের বেশ কয়েকটি সূত্র উল্লেখ করেছে।

এদিকে হামলাকারীর সংখ্যা ও তাদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত না হওয়া গেলেও বাদশাহ সালমানকে স্থানীয় বিমান ঘাঁটিতে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া সম্ভব হয়েছে বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সৌদি সরকারি কর্মকর্তা সংবাদ মাধ্যম রয়টার্সকে জানায়, গোলাগুলির সময় বাদশাহ সালমান রিয়াদের প্রাসাদে ছিলেন না। বাদশাহ এ সময় খামার দারিয়াতে অবস্থান করছিলেন বলে জানান তিনি।

সূত্র: নিউজ উইক

আরো পড়ুন- সিরিয়ার রাকায় গণকবরে ২শ’টি লাশ পাওয়া গেছে