২০১৮-০৩-১৩

রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন; বৃহস্পতিবার অপারেশন

OURISLAM24.COM
news-image

রোকন রাইয়ান: সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন লেখক, অনুবাদক ও মুহাদ্দিস মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন।

ঢাকার ফরিদাবাদ এলাকায় মুফতি আবু সাঈদ প্রতিষ্ঠিত দারুল ফিকরি ওয়াল ইরশাদ মাদরাসা থেকে বাসায় ফেরার পথে তিনি দুর্ঘটনার শিকার হন। প্রাথমিকভাবে আঘাতটি হালকা মনে করা হলেও তা একেবারেই হালকা নয়।

জানা যায়,  গত ৬ মার্চ মঙ্গলবার বিকালে পুরান ঢাকা থেকে ফেরার পথে দুটি বাসের সংঘর্ষে কাঁচ ভেঙে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলির রগ কেটে যায় তার। প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা নিতে স্থানীয় হাসপাতালে গেলে ডিউটি অফিসার অল্প দেখেই ছেড়ে দেন।

এরপর চার পাঁচদিন অতিবাহিত হলেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খিলগাঁওয়ের খিদমাহ হাসপাতালে ডা. গোলাম সামদানীর তত্ত্বাবধানে পরীক্ষা নিরীক্ষা শুরু করেন।

হাসপাতাল সূত্র আওয়ার ইসলামকে জানিয়েছে, মাওলানা যাইনুল আবিদীনের ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলির রগ কেটে গেছে। এ কারণে সেখানে নতুন রগ প্রতিস্থাপন করতে হবে বলে জানান।

আগামী বৃহস্পতিবার বিকেলে তার আঙুলের সার্জারি অপারেশন হবে বলে জানা গেছে।

দারুল উলুম বনশ্রীর সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন আজ মোবাইলে আওয়ার ইসলামকে আহত কণ্ঠে জানান, আজ ডাক্তার একাধিক পরীক্ষা নিরীক্ষা করছেন। সব কিছু ঠিক থাকলে বৃহস্পতিবার অপারেশন হবে ইনশাল্লাহ।

চিন্তাশীল এ আলেমের ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি লেখার শক্তি। এটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে ক্ষতিগ্রস্ত হবে উম্মাহ। তাই দ্রুত রোগমুক্তির জন্য সবার দোয়া চেয়েছে  আওয়ার ইসলাম পরিবার।

মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন ৩০ নভেম্বর ১৯৬৭ সালে মুন্সিগঞ্জ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দে দাওরায়ে হাদিস এবং আরবি সাহিত্যের উপর উচ্চতর ডিগ্রি লাভ করেন।

ত্রিভূবনে প্রিয় মুহাম্মদ সা., ভয় স্বপ্ন সংগ্রাম, নারীর শত্রু মিত্র, সাহিত্যের ক্লাস, বক্তৃতার ক্লাস, ভূবনজয়ী নারী ইত্যাদি তার মৌলিকগ্রন্থ। ভারতীয় নৌমুসলিমদের ঈমানজাগানিয়া সাক্ষাৎকার, হালাল হারাম, আলোকিত নারীসহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থের অনুবাদকও তিনি।

আল্লামা তকি উসমানির গুরুত্বপূর্ণ অধিকাংশ কিতাব এবং মাওলানা তারিক জামিলের বয়ানের অনুবাদ করে পাঠক সমাজে ব্যাপকভাবে সমাদ্রিত হয়েছেন। মুহাম্মদ যাইনুল আবিদনের আকস্মিক এ দুর্ঘটনায় পাঠক সমাজ গভীরভাবে শোকাহত।

 

মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভীর গভীর সমবেদনা

বিশিষ্ট লেখক, গবেষক ও অনুবাদ মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীনের আহত হওয়ার খবরে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন আরেক চিন্তক শিক্ষাবিদ আলেম ও গবেষক মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী।

দৈনিক ইনকিলাবের সহকারী সম্পাদক মাওলানা নদভী বলেন, মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীনের ডান হাত এবং তার আঙুল মুসলিম উম্মাহর বড় সম্পদ। তার লেখার স্রোতধারা থেকে এ জাতি মুহুর্মুহু উপকৃত হচ্ছে।

আমি চাই দ্রুত সময়ের মধ্যে মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীনের ডান হাত সুস্থ হয়ে উঠুক। আল্লাহ তায়ালা তাকে দ্রুত সমযের মধ্যে আবারও কলমের মধ্যে ফিরিয়ে আনুক।

মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী গত বছর বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত লেখক প্রকাশক সম্পাদকদের সম্মিলন অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, আমার ভাই মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীনের লেখায় আমি এতটাই মুগ্ধ যদি প্রয়োজন পড়ে আমার দুটি চক্ষুও তাকে দান করে দেব।

মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া যাত্রাবাড়ী মাদরাসায় ছাত্রদের দরস নেয়ার সময় খবরটি শুনে শোকাহত হন এবং তাৎক্ষণিক ছাত্রদের নিয়ে মুনাজাত করেন।

আওয়ার ইসলাম সম্পাদকের গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন

মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীনের দুর্ঘটনার খবরে গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন আওয়ার ইসলাম সম্পাদক  হুমায়ুন আইয়ুব।

তিনি বলেন, মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন একটি নাম একটি প্রতিষ্ঠান। এ সময়ের তরুণ প্রজন্মের আলোর প্রদীপ। তার লেখা, বলা ও দিক নির্দেশনায় এ প্রজন্মের তরুণরা নিজেদের নির্মাণ করছে।

স্বপ্নচারী ও গুণবিচারী এ লেখকের দুর্ঘটনায় পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে হুমায়ুন আইয়ুব বলেন, মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন পাঠক মহল ও আমাদের অফুরন্ত ভালোবাসায় দ্রুত সেরে উঠবেন বলে আমরা আশাবাদী।

এছাড়াও যে কোনো সহযোগিতা সবাই তার পাশে থাকবেন বলেও তিনি কামনা করেন।

উল্লেখ্য, মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকম পরিবারের একজ অভিভাবক এবং সম্পাদকীয় উপদেষ্টা। তার সরাসরি তত্ত্বাবধানে আওয়ার ইসলামের বছরব্যাপী লেখালেখি ও সাংবাদিকতা বিভাগ পরিচালিত হয়ে আসছে গত বছর থেকে।

তার আকস্মিক এ দুর্ঘটনায় শোকাহত আওয়ার ইসলাম পরিবারের প্রতিটি সদস্য।

আরও পড়ুন: সৌদির গ্রান্ড মুফতির ক্ষমতা কতটুকু? কে এই শায়খ আবদুল আজিজ