বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮

এ প্রথম বেফাকে অনুষ্ঠিত হলো ডিজিটাল সার্ভে প্রদর্শনী সেমনিার

OURISLAM24.COM
মার্চ ৯, ২০১৮
news-image

আবদুল্লাহ তামিম: বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া মিলনায়তনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত ঢাকা হলি সার্ভে ট্রেনিং সেন্টার এর পক্ষ থেকে ডিজিটাল সার্ভে প্রদর্শনী সেমনিার ও কৃতি শিক্ষর্থীদের মাঝে সনদ বিতরণী অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার বাদ মাগরীব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকা হলি সার্ভে ট্রেনিং সেন্টারের চেয়ারম্যান মুফতি মুহাম্মাদ উসমান গনীর পরিচালনায় ডিজিটাল সার্ভে প্রদর্শনী সেমনিার ও কৃতি শিক্ষর্থীদের মাঝে সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সম্মানিত মহা-পরিচালক আল্লামা যুবায়ের আহমাদ চৌধুরী, সহসভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢালকানগর বাইতুল উলূম মাদরাসার শিক্ষাসচিব, মুফতি মুহাম্মাদ রফী উদ্দীন।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অাল্লামা আবদুল কুদ্দুস, মুহতামিম জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলূম ঢাকা, মহাসচিব বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া।

বিশেষ আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার সহকারী মহাসচিব, জামিয়া রাহমানিয়া ঢাকার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক, জামিয়া ইসলামিয়া বায়তুন নূর মাদরাসার মুহতামিম, কোষাধ্যক্ষ বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া মাওলানা মুনিরুজ্জামান।

জামিয়া ইসলামিয়া লালমাটিয়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা ফারুক আহমাদসহ বিভিন্ন মাদরাসার আলেমগণ উপস্থিত ছিলেন। স্রোতাদের কাতারে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা ও মাদরাসা শাখায় ডিজিটিল সার্ভের উপর প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন আমন্ত্রীত অতিথিবৃন্দ।

বিভিন্ন শাখার দায়িত্বশীলগণ সনদ গ্রহণ করার পরই অতিথিবৃন্দ বক্তৃতা করেন। এ সেমিনারের আহ্বায়ক মুফতি মুহাম্মাদ উসমান গনী আমন্ত্রিত অতিথিদের সামনে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভূমি জরিপ পদর্শন করান। অতিথিবৃন্দসহ শত শত আগ্রহী ছাত্ররা মুগ্ধতায় তাকিয়ে ছিলো প্রজেক্টর ব্যনারের দিকে।

অনেক্ষণ পর্যন্ত আলোচনা করা হয় ভূমি জরিপের বিভিন্ন দিক নিয়ে। পরিচালক মুফতি উসমান গনী তুলে ধরেন কওমি ছাত্রদের জন্য কতটা প্রয়োজন। তিনি কওমি সিলেবাসের সিরাজি কিতাবের সাথে এ ভুমি জরিপের উপর তার লিখিত গ্রন্থ ‘ভূমি জরীপ শিখার সহজ উপায়’ কে কওমি ছাত্রদের সিলেবাসে অন্তর্ভূক্ত করার আবেদন জানায়। তিনি আরো বলেন, বায়তুল উলূম ঢালকানগর মাদরাসার শিক্ষাসচিব  মুফতি রফি উদ্দীন এ সার্ভে ট্রেনিং এর মূল পরিকল্পনা করেন। বেফাকের সাথেও এটাকে সম্পৃক্ত করার পিছনে সবটুকু অবদানই  ওনার।

আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ সবার বক্তৃতায় ওঠে এসছে এ ভুমি জরিপ শিক্ষার গুরুত্ব। সমাজে কতটা জরুরী এ বিষয়টি। তাই সভাপতির বক্তৃতায় আল্লামা যুবায়ের বলেন, কওমি ছাত্ররাই একদিন এ দেশের নেতৃত্ব দিবে। তাই তাদের ডিজিটাল বিষয়ে ও আধুনিক বিষয়ে জানা থাকা দরকার বলে আমি মনে করি।

ভূমি জরীপের এ হলি সার্ভে ট্রেনিং সেন্টারের চেয়ারম্যান মুফতি উসমান গনীকে এ কাজের ভবিষ্যত পরিকল্পনা ও স্বপ্নের কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, আমি চাই কওমি অঙ্গনের প্রতিটি ছাত্রই এ বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করুক,জানুক তারা। তিনি বলেন, আমরা এ ভূমি জরীপে ডিজিটালায়নের জন্য আধুনিক যন্ত্র বা মেশিনও ব্যবস্তা করছি। আমি আশা করি বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ গুরুত্বের সাথে বিষয়টিকে বিবেচনা করবেন। আমরা বিভিন্ন সময়েই এ বিষয়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে থাকি। ৬ মে থেকে ১০দিন ব্যাপী বেফাকের পাশেই ব্যবস্থা করা হয়েছে এবছরে ভূমি জরিপ প্রশিক্ষণ, এতে মুফতি উসমান গনী সরাসরি ক্লাস প্রদান করবেন।

বাংলাদেশ কাওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার মহাসচিব আল্লামা আবদুল কুদ্দুস বক্তৃতায় বলেন,ভূমি জরিপ বিষয়টি আলেমদের প্রেরণায় ছাত্ররা শিক্ষা করছে আমার অনেক ভালো লাগছে।তিনি এ ভূমি জরিপের বিষয়ে মুফতি উসমান গনীর গ্রন্থটি সিলেবাসে অন্তর্ভূক্ত করার বিষয়ে বেফাক কমিটির সাথে পরামর্শ  করবেন বলে আশ্বাস দেন। এবং এ কাজটিকে আরো এগিয়ে নিতে যথাযথ চেষ্টা করবেন বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন।