রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮

‘ছাত্র রাজনীতির কথা শুনলে অভিভাবকরা আতঁকে ওঠেন’

OURISLAM24.COM
ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৮
news-image

মাহমুদুল হাসান
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

ছাত্র রাজনীতির কথা শুনলে অভিভাবকরা আতঁকে উঠেন। ছাত্র রাজনীতি মানে এখন সন্ত্রাসের এক রূপ, এক ছায়া। ইউনিভার্সিটিগুলো আজ ছাত্র রাজনীতির নামে সন্ত্রাসের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। আজ ছাত্র রাজনীতির প্রতিনিধিত্ব নেই, বাংলাদেশের কোন কলেজ এখন আর ডাকসু নির্বাচন হয় না। ছাত্র রাজনীতি এখন ব্যবসায় পরিণত হয়েছে।

২৩ ফেব্রুয়ারি’ শুক্রবার ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার কার্যালয়ে কিশোরগঞ্জ জেলা সম্মেলনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যুগ্ম মহাসচিব গাজী আতাউর রহমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

গাজী আতাউর রহমান বলেন, বর্তমান ক্ষমতায় আরোহণকারী আওয়ামীলীগ জনগনের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়নি। বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে জনগনের ভোটের সঠিক অধিকার বাস্তবায়নে, জনগনের মতামতের গুরুত্বারোপের উপর ভিত্তি করে কিন্তু বর্তমান সরকার সেই অধিকার বিনষ্ট করেছে। আমরা আওয়ামী সরকারকে হুশিয়ারি করে বলতে চাই একাদশ নির্বাচন যদি জনগন সঠিক ভাবে ভোট দিতে না পারে তবে আমরা জনগনকে সাথে নিয়ে জনমতের অধিকার বাস্তবায়নের আন্দোলনে নামবে ইনশাআল্লাহ।

সম্মেলনের প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক আব্দুল জলিল তার বক্তব্যে বলেন, আজ আর্ন্তজাতিকভাবে ষড়যন্ত্র করে জাতিকে মেধা শূণ্য করার পায়তারা চলছে।  কোন পরিক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস না হলে তা আশ্চার্যের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। পঞ্চম শ্রেণীর পরিক্ষা থেকে ধরে ভার্সিটি পরিক্ষার সকল পরিক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হচ্ছে। আজ সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তারা প্রশ্নফাঁস করছে না, তবে প্রশ্নফাঁস করছে কারা? যদি সরকার প্রশ্নফাঁস রোধ না করতে পারে তবে আমরা গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি আমাদের দায়িত্ব দিন আমরা এর রোধ করতে ১০০ ভাগ সফলতা দেখিয়ে দেব।

সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি হাফেজ মাওলানা আলমগীর হোসাইন তালুকদার। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান কলুষিত ছাত্র রাজনীতির অধ্যায় থেকে পরিত্রাণের একমাত্র পথ সুস্থ রাজনীতির পথে হাঁটা।

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ইসলামি আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ, ইসলামী যুব আন্দোলনের জেলা নেতৃবৃন্দ, ইশা ছাত্র আন্দোলন জেলা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

সম্মেলনের শেষ পর্যায় কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল জলিল বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ২০১৮ সেসনের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন। নতুন কমিটির সভাপতি যোবায়ের আহমদ, সহসভাপতি এমদাদুল্লাহ মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবীরের নাম ঘোষণা করেন এবং দোয়ার মাধ্যমে সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।