বুধবার, ২০ জুন ২০১৮

বেফাকের ১১৬ সদস্যের নতুন কমিটিতে স্থান পেলেন যারা

OURISLAM24.COM
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮
news-image

আবদুল্লাহ তামিম: বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকের ১০ম কাউন্সিল সভায় নতুন কমিটির ঘোষণা করা হয়েছে আজ। রাজধানীর ফরিদাবাদ মাদরাসায় অনুষ্ঠিত মজলিসে উমুমিতে ১১৬ সদস্যের নাম ঘোষণা করা হয়।

বেফাকের সভাপতি ঘোষণা করেন হাটজাহারী মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী। সিনিয়র সহসভাপতি জামিয়া শরইয়্যাহ মালিবাগের মুহতামিম আল্লামা আশরাফ আলী। মহাসচিব জামিয়া ইমদাদিয়া ফরিবাদাদের মুহতামিম মাওলানা আবদুল কুদ্দুস।

সহসভাপতি করা হয়েছে ২৭ জনকে

আল্লামা আজহার আলী আনোয়ার শাহ (জামিয়া ইমদাদিয়া কিশোরগঞ্জ), আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী (বারিধারা), মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস (মনিরামপুর যশোর), আল্লামা মোস্তফা আযাদ (আরজাবাদ), প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান (সিলেট), মাওলানা আবদুল কুদ্দুস ( মিরপুর), মাওলানা আবদুল বারী ধর্মপুরী (মৌলভীবাজার), মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী (বাবুনগর, চট্টগ্রাম), মাওলানা নূরুল ইসলাম আযাদী (ওলামাবাজার ফেনী)

আল্লামা মাহমুদুল হাসান (যাত্রাবাড়ী), মাওলানা আবদুর রহমান হাফেজ্জী (মোমেনশাহী) মাওলানা আবদুল হামিদ (মধুপুর), মাওলানা নূরুল ইসলাম (খিলগাঁও), মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী (জামিয়া নূরিয়া), মাওলানা সাজিদুর রহমান (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), মাওলানা সালাহুদ্দীন (নানুপুর, চট্টগ্রাম), মাওলানা ছফিউল্লাহ (জামিয়া দ্বীনিয়া, মতিঝিল)

মুফতি জাফর আহমদ (ঢালকানগর), মুফতি ফয়জুল্লাহ (লালবাগ), মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু (সিলেট), মাওলানা আনাস মাদানী (হাটহাজারী) মাওলানা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী, মাওলানা বদরুদ্দীন (সিলেট), মাওলানা আশেক এলাহী (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), মাওলানা ফয়জুল্লাহ (মাদানীনগর)।

সহকারী মহাসচিব ৯ জন

মাওলানা মাহফুজুল হক (মুহতামিম, জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া ঢাকা), মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী (ইসলামবাগ মাদরাসার মুহতামিম) মুফতি নুরুল আমিন (মুহাদ্দিস, ফরিদাবাদ মাদরাসা ঢাকা), মুফতি কেফায়েতুল্লাহ আজহারী (আল মানহাল কওমী মাদরাসা উত্তরা), মুফতি নেয়ামাতুল্লাহ (জামিয়া সাহবানিয়া দারুল উলুম ঢাকা)

মাওলনা শামসুল হক (দ্বীনি শিক্ষাবোর্ড হবিগঞ্জ), মালানা নজরুল ইসলাম (এদারায়ে তালিমিয়া সিলেট), মাওলানা মোবারক উল্লাহ (এদারায়ে তালিমিয়া বি.বাড়িয়া), মাওলানা জামালুদ্দীন মাহমুদ (তালিমি বোর্ড মাদানীনগর)।

কোষাধ্যক্ষ ১ জন

মাওলানা মুনিরুজ্জামান (মুহতামিম জামিয়া ইসলামিয়া বায়তুন নূর ঢাকা)

সাংগঠনিক সম্পাদক ১৫ জন

মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ সাদি (সওতুল হেরা মোমেনশাহী), মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহবুব (জামিয়া ইসলামিয়া মাহমুদিয়া বরিশাল) মাওলানা আনোয়ারুল করীম (জামিয়া এযাযিয়া দারুল উলূম,যশোর) মাওলানা ইয়াছিন (দারুল উলূম ফয়েজে আম, ঠাকুর গাঁও) মাওলানা ইসহাক (মেহেরীয়া মুইনুল ইসলাম চট্টগ্রাম) আবদুল খালেক (খাদিজা ইসলামিয়া মহিলা মাদরাসা সিলেট) মাওলানা  আবদুল কুদ্দুস (জামিয়া আরাবিয়া কাসেমুল উলূম কুমিল্লা) মাওলানা  হেলালুদ্দীন (চরকমলাপুর  মাদরাসা ফরিদপুর)

মাওলানা আবদুল্লাহ (জামিয়া ইসলামিয়া মদিনাতুল উলূম ঢাকা),মাওলানা সিহাবুদ্দীন (মাদরাসাতুল মদীনা নাটোর), মাওলানা  আবদুল আজীজ (জামিয়া ফারুকিয়া সিলেট), মাওলানা মীর ইদ্রিস আলী (আল হুদা মহিলা মাদরাসা হাটহাজারী চট্টগ্রাম), মাওলানা শফিকুল ইসলাম (মাহমুদীয়া মহিলা মাদরাসা সাইনবোর্ড ঢাকা), মাওলানা মাহবুবুর রহমান (হাজেরা পারভিন মহিলা মাদরাসা নেত্রকোনা), মাওলানা রশিদ আহমদ (জামিয়া এমদাদিয়া মহিলা মাদরাসা)।

সদস্যবৃন্দ

মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী (হাটহাজারী মাদরাসা চট্টগ্রাম), মাওলানা মুনিরুজ্জামান সিরাজী (বাবুনগর মাদরাসা বিবাড়িয়া), মাওলানা আবুল হাসান (জামিয়া ইসলামিয়া রংপুর), মাওলানা মাসুদুল করীম (দারুল উলূম মাদরাসা টঙ্গি গাজিপুর), মাওলানা ইসমাইল (নরসিংদী মাদরাসা), মাওলানা সাইদ নূর (রশিদীয়া মাদরাসা মানিকগঞ্জ), মাওলানা ইদ্রিস (বসিরহাট মাদরাসা চট্টগ্রাম), মাওলানা আনোয়ার (দারুল উলূম মাদরাসা যাত্রাবাড়ি ঢাকা), মাওলানা রুহুল আমীন (জামিয়াতুস সাহাবা ঢাকা), মাওলানা মোস্তাক আহমাদ (জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলূম খুলনা), মাওলানা আবদুল হক (আনোয়ারুল উলূম মাদরাসা নওগা), মাওলানা হাবীব (জামিয়া ইসলামিয়া কুষ্টিয়া)

মাওলানা আমিনুর রহমান (জামিয়া আশরাফিয়া পাবনা), মাওলানা আব্দুল হক (জামিয়া ফয়জুর রহমান, মোমেনশাহী), মাওলানা আইনুদ্দিন (জামিয়া আরাবিয়া আশরাফুল উলূম ফুলপুর মোমেনশাহী), মাওলানা যুবায়ের আহমাদ চোধুরী (মহাপরিচালক বেফাক), মাওলানা আহমাদ আলী (জামিয়া মিফতাহুল উলূম মাসকান্দা, মোমেনশাহী), মাওলানা আবু তাহের (দারুল উলূম বি-বাড়িয়া), মাওলানা নূরুল হুদা ফয়েজী (জামিয়া রশিদিয়া আহসানাবাদ চরমোনাই, বরিশাল), মাওলানা আবু মূসা (চৌধুরীপাড়া মাদরাসা ঢাকা), মাওলানা মুফতি গোলাম রহমান (মারকাযুল উলূম খুলনা)

মাওলানা জামালুদ্দীন (মিফতাহুল জান্নাত মহিলা মাদরাসা, মোমেনশাহী), মাওলানা জহুর আলী (জামিয়া ইব্রাহিমিয়া হবিগঞ্জ), মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী (বড়কাটারা মাদরাসা ঢাকা), মাওলানা ইসহাক (মেহেরিয়া মুঈনুল ইসলাম চট্টগ্রাম), মাওলানা নাসীরুল্লাহ (আশরাফুল মাদারিস যশোর), মাওলানা রফিকুল ইসলাম (জামিয়া ইসলামিয়া যশোর), মাওলানা যুবায়ের আহমাদ আনসারী (জামিয়া রাহমানিয়া বি-বাড়িয়া), মাওলানা মাহবুবুর রহমান (সাজিয়ারা মাদরাসা খুলনা), মাওলানা আশেকে মোস্তফা (বরমী মাদরাসা গাজিপুর), মাওলানা নূরুল ইসলাম (মাস্টার বাড়ি মাদরাসা গাজিপুর), মাওলানা আবদুল হালীম (খাজা মইনুদ্দিন মাদরাসা বরিশাল), মাওলানা ইদ্রিস আলী বিশ্বাস (জামিয়া ইসলামিয়া কুষ্টিয়া)

মাওলানা উসমান গণী (কাসেমুল উলূম ঝিনাইদহ), মাওলনা কাজি জাবের (বলহারা মাদরাসা মাগুরা), মাওলানা আবদুর রাজ্জাক (দারুল উলূম চুয়াডাঙ্গা), মাওলানা রশীদ আহমাদ (জামিয়া ইব্রাহিমিয়া মেরাজ নগর), মাওলানা আবদুল কাদের (আমলা পাড়া নারায়ণগঞ্জ), মাওলানা জামালুদ্দিন (নূরুল উলূম কুড়িগ্রাম), মুহতামিম (দেওভোগ মাদরাসা নারায়ণগঞ্জ)  মাওলানা আবুল কাসেম (পদুয়া ফেনী), মাওলানা শহিদুল্লাহ (জামিয়া রশিদিয়া ফেনী)

মাওলানা নূরুল হক (বটগ্রাম মাদরাসা কুমিল্লা), মাওলানা নোমান (বরুড়া মাদরাসা কুমিল্লা), মুফতি মিযানুর রহমান সাঈদ (শায়েখ জাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার ঢাকা) মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন (জামিয়াতুল উলূম আল ইসলামিয়া কিশোরগঞ্জ), মাওলানা সাইফুল ইসলাম (সাতক্ষিরা মাদরাসা), মাওলানা আমীনুল হক (নেজামিয়া মোমেনশাহী), মাওলানা আমীরুল ইসলাম (সরুরা মাদরাসা বাগেরহাট), মাওলানা আবুল হাসান (লামা মহিলা মাদরাসা সিলেট), মাওলানা জিল্লুর রহমান কাসেমী (দারুল উলূম হেমু সিলেট), মাওলানা মাহফুজুর রহমান (ইব্রাহিমিয়া মহিলা মাদরাসা বি-বাড়িয়া), মাওলানা মামুনুল হক (আমেনা বেগম মহিলা মাদরাসা বি-বাড়িয়া), মাওলানা বোরহানুদ্দীন কাসেমী (মহিলা মাদরাসা বি-বাড়িয়া)

মাওলানা মাহবুবুর রহমান (হালিমা সাদিয়া মহিলা মাদরাসা বি-বাড়িয়া), মাওলানা ইসমাঈল কিশোরগঞ্জ মহিলা মাদরাসা), মাওলানা মহিউদ্দীন ইকরাম (নতুনবাগ মাদরাসা ঢাকা), মাওলানা আবু সাঈদ (আলমতাজ মহিলা মাদরাসা সিরাজগঞ্জ), মাওলানা নাসীরুদ্দীন মাহমুদ (ফজিলাতুন নেসা মহিলা মাদরাসা বরিশাল), মাওলানা আবদুল্লাহ (উলূমুল ইসলামিয়া, বাহুবল হবি গঞ্জ) মাওলানা যাইনুল আবেদীন (তালীমুল কুরআন লালমনিরহাট), মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান (জাসিয়া সিদ্দীকীয়া তেরাবাজার শেরপুর), মাওলানা আনিসুর রহমান (বাবুস সালাম ঢাকা)।

কমিটি ঘোষণার আগে সভায় বেফাকের মহাসচিব আল্লামা আবদুল কুদ্দুস কওমি মাদরাসার উন্নয়নে বক্তব্য পেশ করেন এবং চারটি প্রস্তাব উত্থাপন করলে সেগুলো সবাই সম্মাতি দিয়ে অনুমোদন দেন।

গুরুত্বপূর্ণ সে চার প্রস্তাব হলো, আগামী বছর থেকে অন্যান্য জামাতের মতো মক্তব (নুরানি) বিভাগের বার্ষিক পরীক্ষাও বেফাকের অধীনে পরিচালিত হবে। ২. জরুরি ভিত্তিতে বেফাকের বহুতল ভবন নির্মাণ। ৩. কাফিয়া জামাতের বার্ষিক পরীক্ষাও বেফাকের অধীনে অনুষ্ঠিত হওয়া এবং ৪. ফতোয়া বিভাগের মান উন্নয়নের জন্য আগামী বছর থেকে ইফতার পরীক্ষা বেফাকের আওতায় আনা হবে।

বেফাকের সভাপতি হিসেবে আল্লামা আহমদ শফীর বিশেষ বক্তব্য