২০১৭-১০-২১

শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮

ছবি বিষয়ে দেওবন্দের ফতোয়াটি সময়োপযোগী: আল্লামা মাহমুদুল হাসান

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যক্তি ও কোনও প্রাণীর ছবি প্রকাশকে জায়েয নয় বলে দেওবন্দের দেয়া ফতোয়াকে সময়োপযোগী বলে অভিমত দিয়েছেন আল্লামা মাহমুদুল হাসান

রাজধানী ঢাকার জামিয়া মাদানিয়া যাত্রাবাড়ির মুহতামিম ও মজলিসে দাওয়াতুল হকের আমির আল্লামা মাহমুদুল হাসান কুরআনের আয়াতের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, কোনও গোনাহ যখন ব্যাপক হয়ে যায় অথবা মানুষ যখন অপরাধকে অপরাধ মনে না করে তখন আল্লাহর পক্ষ থেকে আজাব গজবও ব্যাপকভাবে শুরু হয়ে যায়।

বিশ্বনন্দিত ইলমি বিদ্যাপীঠ দারুল উলুম দেওবন্দ যে ফতোয়া প্রকাশ করেছে আমাদের উচিত তা মেনে চলা।
অপ্রয়োজনীয়, অনর্থক ও আত্মপ্রচারের জন্য ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ না করা চাই।

বিশেষ করে উম্মাহর দরদেদিল উলামাদের উচিত দারুল উলুম দেওবন্দের এই ফতোয়াকে আন্তরিকভাবে মেনে নেওয়া।

আওয়ার ইসলামে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, অজ্ঞাতে বা গোপনে আমাদের ছবি তুলে প্রকাশ করলে খুবই কষ্ট পাই। তিনি তার অগোচরে বা লুকিয়ে ছবি তুলে কষ্ট না দেওয়ার জন্য সবার কাছে অনুরোধও জানান।

তিনি কুরআন, হাদিস ও আকাবির আসলাফের চিন্তা-চেতনা ও মতাদর্শের একাত্মতা পোষণ করে বলেন, হুসাইন আহমদ মাদানী, মুফতি কেফায়াতুল্লাহ, ইউসুফ বিন নূরী, আল্লামা লুধিয়ানবী প্রমুখ মাশায়েখ উলামায়ে কেরামও ছবি তোলার শরয়ি দৃষ্টিভঙ্গি পেশ করেছেন। তারা সবাই যৌক্তিক কারণ ছাড়া ছবি তোলাকে না জায়েয বলেছেন।

আল্লামা মাহমুদুল হাসান মনে করেন, এ বিষয়ে আল্লামা সুলাইমান নদভী ও মাওলানা আবুল কালাম আজাদের দৃষ্টিভঙ্গিও আকাবির উলামায়ে কেরামের ফতোয়াকে সমর্থন করে।

দেওবন্দের ফতোয়া, স্যোশাল মিডিয়ায় ছবি প্রকাশ নাজায়েজ