রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮

প্রয়োজনে রোহিঙ্গা মুসলমানদের পক্ষে মিয়ানমার অভিমুখে লংমার্চ করা হবে

OURISLAM24.COM
আগস্ট ৩১, ২০১৭
news-image

আওয়ার ইসলাম : মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে নির্মূল অভিযান চালাচ্ছে। ধর্ষণ, লুটপাট, নির্বিচারে গুলিবর্ষণ, ঘরবাড়ি ভাঙচুর, জ্বালাও পোড়াও, অত্যাচার, জুলুম, বর্বরোচিত হত্যাকান্ড চালাচ্ছে। মিয়ানমারের বিভিন্ন নদীতে ভাসছে মুসলমান শিশু-কিশোর, যুবক-যুবতি, বৃদ্ধ-বৃদ্ধার মরা ও বিকৃত লাশ। মায়ের সামনে মেয়েকে, মেয়ের সামনে মাকে, স্বামীর সামনে স্ত্রীকে ধর্ষণ করে নির্বিচারে হত্যা করছে সরকারী বর্বর বাহিনী বলেন মন্তব্য করেন ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী।

তিনি বলেন, গ্রামের পর গ্রাম আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। ধ্বংস করা হচ্ছে বহু মসজিদ ও মাদরাসা। নারকীয় হত্যা ও অগ্নিসংযোগেরে এক ভীতিকর মুহূর্তে আহত, অসহায় ও বিপন্ন আজ রোহিঙ্গা মুসলমানদের জীবন। এই অবস্থায় চলতে দেয়া যায় না। এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। ইসলামী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, মানবিক এবং ধর্মীয় কারণে মিয়ানমারের মুসলমানদের পক্ষে জনমত গঠনের জন্য বাংলাদেশ সরকারকে বলিষ্ঠ ভূমিকা নিতে হবে। রোহিঙ্গা মুসলমানদের পক্ষে মিয়ানমার অভিমুখে প্রয়োজনে লংমার্চ করা হবে।

ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ বলেন, মিয়ানমার সরকার নিজ দেশের নাগরিক সংখ্যালঘু মুসলমানদের নির্বিচারে পুড়িয়ে মারছে। হত্যা, ধর্ষণ ও আগুনে পোড়ানোর মত নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ  চালানো হচ্ছে। চলছে গণহত্যা। সদ্যজন্ম নেয়া নিস্পাপ শিশু,সন্তানসম্ভবা মায়েরাও নৃশংসতা রেহাই পাচ্ছে না।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গারাই এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে লাঞ্ছিত ও অসহায় জনগোষ্ঠী। তারাই পৃথিবীর সবচেয়ে নির্যাতিত জনগোষ্ঠী। তাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত বর্বরতার প্রতিবাদ করা আমাদের ঈমানী ও মানবিক দায়িত্ব। এখন মুসলিম বিশ্বের চোখ বন্ধ করে, কানে আঙ্গুল দিয়ে চুপ করে থাকার সুযোগ নেই। মিয়ানমারের বর্বরতার বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিয়ে জোরালো প্রতিবাদের বিভিন্ন ধারা তৈরি করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মিয়ানমারের মুসলিম গণহত্যার উসকানি দাতা অং সান সুচিকে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মত কথা বলা বন্ধ করতে হবে। আন্তর্জাতিকভাবে তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী আইনে ব্যবস্থা নিতে হবে। রোহিঙ্গাদের মৌলিক স্বাধীনতা ও মানবাধিকার রক্ষা করতে হবে।মুসলমানরা যেখানেই আক্রান্ত হোক, সারা বিশ্বের সকল মুসলমান তাতে আক্রান্ত হয়। কোন দেশের সীমান্তের গন্ডিতে তা সীমাবব্ধ থাকে না।

গতকাল বিকেল ৫টায় লালবাগস্থ কার্যালয়ে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর নির্মম নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞের প্রতিবাদে ইসলামী ঐক্যজোট ঢাকা মহানগর আয়োজিত এক সমাবেশে ইসলামী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী ও মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ এসব কথা বলেন।  ইসলামী ঐক্যজোট ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী ঐক্যজোটের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা মাওলানা যুবায়ের আহমদ, যুগ্ম মহাসচিব মুফতী তৈয়্যব হোসাইন, মাওলানা আহলুল্লাহ ওয়াছেল, মাওলানা আনছারুল হক ইমরান, মাওলানা আব্দুল্লাহ ফরহাদ, মাওলানা ত্বহা, মাওলানা বজলুর রহমান প্রমুখ।

-এজেড