২০১৭-০১-১৬

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

৮ জন ধনীর হাতে ৩৬০ কোটি মানুষের সমান সম্পদ

OURISLAM24.COM
news-image

Oxfam-logoআওয়ার ইসলাম : পৃথিবীতে ধনী ও দরিদ্রের বৈষম্য যেনো পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড প্রকাশ করলো অক্সফাম। অক্সফামের নতুন তথ্য অনুযায়ী পৃথিবীর দরিদ্রতম জনগোষ্ঠির অর্ধেকের হাতে যে সম্পদ রয়েছে পৃথিবীর আটজন শীর্ষ ধনীর হাতে রয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি সম্পদ। ৮ জন মানুষের হাতে রয়েছে ৩৬০ কোটি মানুষের মোট সম্পদের চেয়েও বেশি সম্পদ।

বিশ্বের ধনী-গরীবের সম্পদের ব্যবধান যা ‘আশঙ্কা করা হয়েছিল তারচেয়ে অনেক বেশি’ বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে অক্সফাম। সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়াল্ড ইকোনমিক ফোরামের ৪৭তম বার্ষিক সভা শুরুর সময় প্রতিবেদনটি প্রকাশ করলো অক্সফাম।

বিশ্বের শীর্ষ আট ধনীর মোট সম্পদের পরিমাণ ৪২৬ দশমিক দুই বিলিয়ন ডলার। এই পরিমাণটি বিশ্বের দরিদ্রতম মানুষের মোট সংখ্যার অর্ধেকের (৩৬০ কোটি) যে পরিমাণ সম্পদ আছে তার সমান। প্রতিবেদনটি তুলে ধরা নতুন তথ্যে দেখা গেছে, বিশ্বের দরিদ্রতম জনসংখ্যার অর্ধেকের সম্পদ আগে যা হিসাব করা হয়েছিল তারচেয়েও কম। সম্পদের এই বৈষম্যকে ‘অসঙ্গত’ বলে বর্ণনা করেছে অক্সফাম।

নতুন প্রতিবেদনে দেখানো হয়েছে, যখন অনেক শ্রমজীবী সীমাবদ্ধ আয়ের সঙ্গে সংগ্রাম করে বেঁচে আছেন, তখন অতি ধনীদের সম্পদের পরিমাণ ২০০৯ সাল থেকে গড়ে ১১ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

888

এই আট ব্যক্তি হলেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, ফ্যাশন হাউজ ইনডিটেক্সের প্রতিষ্ঠাতা আমানসিও ওর্টেগা, ওয়ারেন বাফেট, বিজনেস ম্যাগনেট কার্লোস স্লিম হেলু, অ্যামাজন প্রধান জেফ বেজোস, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ, ওরাকলসের ল্যারি এলিসন এবং নিউ ইয়র্কের প্রাক্তন মেয়র ব্লুমবার্গ।

সূত্র : বিবিসি

-এআরকে