২০১৬-১২-০৪

বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ঐক্যের ফর্মুলা খোঁজছেন আলেমরা

OURISLAM24.COM
news-image

sikriti

হুমায়ুন আইয়ুব 

কওমি মাদরাসা শিক্ষা সনদের বিষয়ে ঐক্যের ফর্মুলা খোঁজছেন সর্ব স্তরের আলেমরা। সেই ঐক্যের ফর্মুলা বের করতে চলতি মাসের ১০ তারিখে শনিবার  চট্রগ্রামের হাটহাজারিতে বাংলাদেশ কওমি মাদরসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকের চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেতৃত্ব সব কয়টি বোর্ড এর আলেমরা এক সঙ্গে বসবেন। উপস্থিত থাকবেন বোর্ডের বাইরের শীর্ষ  কয়েকজন আলেমও। সূত্র জানিয়েছে, বৃহত্তর ঐক্যের স্বাথে বৈঠকে আমন্ত্রন পেতে পারেন, মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, মাওলানা মাহমুদুল হাসানসহ কয়েকজন।

নভেম্বর মাসের শেষ দিকে বাংলাদেশ কওমি মাদরসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকের চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফীর চিঠি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন একটি প্রতিনিধি  দল। প্রধানমন্ত্রী চিঠি পেয়ে কওমি সনদের জন্য আল্লামা শফীর নেতৃত্বে আলেমেদের ঐক্য হওয়ার আহ্বান জানান। সেই ধারাবহিকতায় প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের আলোকে ঐক্যের ফর্মুলা  খোঁজছেন দেশের শীর্ষ আলেমরা।

উলামা বাজার মাদরাসার মহাপরিচালক সাইয়িদ আহমদ আর নেই

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ কওমি মাদরসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকের সিনিয়র-সহসভাপতি আল্লামা আশরাফ আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  ১০ তারিখের বৈঠকে সব বোর্ডগুলোকে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে  ঐক্যের স্বার্থে কয়েকজন শীর্ষ আলেমকেও বৈঠকে দাওয়াত করা হয়েছে। আশা করি আল্লামা শফীর নেতৃত্বে আলেমেরা ঐক্যবদ্ধ হবেন। ঐক্যের ফর্মুলার জন্যই এই বৈঠক।

একই বিষয়ে জানতে চাইলে, উত্তরবঙ্গ বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া গওহরডাঙ্গা র্বোড এর সভাপতি মুফতি রুহুল আমীন বলেন, ১০ তারিখের বেঠকের আমন্ত্রন পেয়েছি এবং হাটহাজারিতে সেদিন যাবো ইনশাআল্লাহ। আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে আশা করি কওমি সনদের স্বীকৃতির জন্য ঐক্যবদ্ধ কোন ফর্মুলা জাতি পাবে।

ফরিদাবাদ মাদারাসার প্রিন্সিপাল, বেফাকের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের দায়িত্ব পাওয়া মাওলানা আবদুল কুদ্দুস জানান, বৈঠকে সব কওমি মাদরাসা বোর্ড এর নেতাদের দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। আশা করি সবাই উপস্থিত হবেন। আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নেত্বেতে সবাই একমত হবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা। মূলত সেখানে পরামর্শ করেই একটা ঐক্যের ফর্মুলা দেওয়া হবে।

কওমি মাদরাসা শিক্ষা কমিশনের কো-চেয়াম্যান আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ জানান, হজরত আল্লামা আহমদ শফী বৃহত্তর ঐক্যের স্বার্থে বৈঠক আহ্বান করেছেন। হজরত যে ফর্মুলা দিবেন আশা করি দেশ ও জাতির উপকারেই আসবে। কওমি ছাত্রদের আশার প্রতিফলন ঘটবে। হজরতের পক্ষ থেকে আমাকে সিনিয়র কয়েকজন আমন্ত্রন জানিয়েছে। হয়তো আনুষ্ঠানিকভাবে দাওয়াতও দেয়া হতে পারে। তবে স্বীকৃতি নিয়ে কোন সংসয় নেই। ঐক্যবদ্ধভাবেই স্বীকৃতি হবে ইনশাআল্লাহ।

আল্লামা শাহ আহমদ শফীর প্রেস সচিব মাওলানা মনির আহমদ জানান, বৈঠকের প্রস্তুতিমূলক কাজ চলছে। দাওয়াত দেওয়া হচ্ছে।

রকমারি-আওয়ার ইসলাম সিরাত কুইজ, প্রতিদিন সৌভাগ্যবান একজন জিতে নিন ৩০০ টাকার বই।