২০১৬-০৬-১৪

রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

‘ধর্ম ও শিক্ষা একসঙ্গে চলতে পারে না’

OURISLAM24.COM
news-image

ডেনমার্কওয়ালি খান রাজু : স্কুল চলাকালীন সময়ে মুসলিম শিক্ষার্থীদের নামাজ পড়া নিষিদ্ধ করেছে ডেনমার্কের একটি স্কুল। স্বাস্থ্য ও শিক্ষা বিষয়ক ওই স্কুলটির ভাষ্য, ধর্ম এবং শিক্ষা একসঙ্গে চলতে পারে না। তাই স্কুলের সময়ে শিক্ষার্থীরা নামাজ পড়তে পারবে না।

‘এসওপিইউ হিলেরড’ স্কুলের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগের উত্তরাঞ্চলের এক মুসলিম ছাত্রী প্রতিবাদলিপি সংবলিত একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করলে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। ওই প্রতিবাদলিপিতে লেখা ছিল, ‘স্কুল পরিচালকের নতুন নির্দেশনা। কেউ একজন কি স্কুলের সময়ে নামাজ পড়তে পারবে? উত্তর হচ্ছে, ‘না’।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্কলটির একজন শিক্ষক ইনগার মার্গারেথ জেনসেন। তিনি বলেন, ‘আমরা বিষয়টি সম্পর্কে আমাদের শিক্ষার্থীদের অবহিত করেছি। এর আগে আমরা কিছু ঘটনার মুখোমুখি হয়েছি, যার কারণে আমাদের স্কুলের আচরণবিধি নতুন করে মনে করিয়ে দিতে হলো।’

তিনি আরো বলেন, ‘অনেক শিক্ষার্থী স্কুলে প্রার্থনাগার প্রতিষ্ঠা করতে চায়। এছাড়া সম্প্রতি মুসলিম শিক্ষার্থীদের আগের চেয়ে অনেক বেশি নামাজ পড়তে দেখা যায়। তারা প্রার্থনার জন্য স্কুলের হলঘর ব্যবহার করে। ধর্ম এবং শিক্ষা একসঙ্গে চলতে পারেনা। এটা ব্যক্তিগত জীবনের সঙ্গে জড়িত।’

ইন্টারনেটে প্রতিবাদলিপি সংবলিত ছবি পোস্টকারী শিক্ষার্থী মিয়া ভিক্টোরিয়া লানডেরোড হানসেন বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীরা মনে করি না যে এই সিদ্ধান্ত সঠিক। আর এ কারণে আমরা এর বিরুদ্ধে গণস্বাক্ষর সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা মনে করি সব শিক্ষার্থীকে সমানভাবে দেখা উচিত।’ সূত্র : ক্যাম্পাসটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকম

আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকম / ওএস