Tag Archives: আওয়ামী লীগ

রায়ের পাঁচ ভাগের চার ভাগই অবান্তর: ব্যারিস্টার মওদুদ

আওয়ার ইসলাম

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় পড়ে অবাক হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন খালেদা জিয়ার প্যানেল আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, ‘এই রায় ১ হাজার ১৬৮ পৃষ্ঠার। যদিও এর পাঁচ ভাগের চার ভাগ একেবারেই অবান্তর। সেগুলো কোনও গ্রাউন্ডস না, কিন্তু সবই দিয়েছেন উনি (বিচারক)।’ মঙ্গলবার বিকেলে খালেদা জিয়ার আপিল আবেদন হাইকোর্টর সংশ্লিষ্ট বেঞ্চে উপস্থাপনের পর সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, ‘‘রায়ের সত্যায়িত কপি গতকাল বিকেলে পেয়েছি। সঙ্গে সঙ্গেই আমাদের আইনজীবীরা আপিল প্রস্তুতির কাজে লেগে যান। আমরা রায়টি পড়ে অবাক হয়েছি। একটা উদাহরণ দেই আপনাদের, আপনারাও টেলিভিশনে স্ক্রলিং করেছেন, ‘খালেদা জিয়া যে ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন, তিনি তা স্বীকার করে নিয়েছেন’।

এমন একটা মিথ্যা, সম্পূর্ণ অসত্য কথা রায়ের মধ্যে লিখে সারাদেশের মানুষের মধ্যে প্রচার করা হলো। এটাও একই ষড়যন্ত্রের অংশ। কোনও আসামি কি বলে, আমি ক্ষমতার অপব্যবহার করেছি? সেখানে একটা প্রশ্নবোধক চিহ্ন ছিল।’’

এই আইনজীবী অভিযোগ করে বলেন, ‘‘খালেদা জিয়া এক জায়গায় বলেছেন, ‘অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে নির্বিচারে গুলি করে। প্রতিবাদী মানুষদের হত্যা করা হচ্ছে। ছাত্র ও শিক্ষকদের হত্যা করা হচ্ছে। এগুলো কি ক্ষমতার অপব্যবহার নয়? ক্ষমতার অপব্যবহার আমি করেছি?’ সে প্রশ্নবোধক চিহ্নটাকে উঠিয়ে দিয়ে এখানে একটা দাঁড়ি দিয়ে দিয়েছে।’’

‘শেয়ার বাজার লুট করে লক্ষ কোটি টাকা তসরুপ হয়ে গেলো। নিঃস্ব হলো নিম্নআয়ের মানুষ। ব্যাংকগুলো লুটপাট করে শেষ করে দেওয়া হচ্ছে। সুতরাং এই যে আজকে রায়ের মধ্যে একটা মিথ্যা কথা বলে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে প্রশ্নবোধক চিহ্নটাকে তুলে দিয়ে সেখানে দাঁড়ি দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু অরিজিনালি খালেদা জিয়ার যে বক্তব্য, সেটা পরীক্ষা করে দেখেছি। সেখানে প্রশ্নবোধক চিহ্নটা আছে এবং সেটা রেকর্ডে আপনারা পাবেন। যখন বিচার হবে আমরা রেকর্ড কল করাব, যেন এটা পরীক্ষা করে দেখা যায়।’

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, ‘কোনও আসামি এই পর্যায়ে গিয়ে বলতে পারে না, আমি নিজে ক্ষমতার অপব্যবহার করেছি। তিনি প্রথমে বলতে গিয়ে দ্বিধাবোধ করতেন। সুতরাং সম্পূর্ণভাবে অবাস্তব ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এটা করা হয়েছে, যেন তার ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়।’ তিনি বলেন, ‘যাই হোক আজকে আমরা আপিল ফাইল করেছি। এই আপিলের নম্বরও পড়েছে। আপিল নম্বর ১৬৭৬/১৮।

আমরা আজ বারের সভাপতির (অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন) নেতৃত্বে স্লিপ দিয়েছি। কারণ দু’টি আদালত আছে এ ধরনের মামলা শুনানি করার জন্য। আমরা সিনিয়র বেঞ্চে গিয়েছি। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম একজন সম্মানিত ব্যক্তি। আমরা সবাই তাকে শ্রদ্ধা করি। আমরা সেই সিনিয়র বেঞ্চে গেছি। জয়নুল আবেদীন সেই স্লিপ দিয়েছেন। সেই স্লিপ আদালত গ্রহণ করেছেন। আমাদের সব সিনিয়র আইনজীবীর সঙ্গে তরুণ আইনজীবীরাও ছিলেন।

 

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনের উপ-নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থী ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম

আওয়ার ইসলাম: জাতীয় সংসদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন দলের সহ-সম্পাদক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম ।

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় উপ-নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সংসদীয় বোর্ডের এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও দলের সংসদীয় বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

নাসিরনগরের বিখ্যাত গুনিয়াউক পরিবারের বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকরুল হোসেনের ছেলে ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম।

ফরহাদ ১৯৯৩-৯৪ সালে মতিঝিল থানা ছাত্রলীগের আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এই দুই বছরের দায়িত্ব পালনের মেয়াদে তার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ও দক্ষতার গুনে ১৯৯৩ সালে মনোনীত হন ছাত্রলীগের জাতীয় কমিটির সদস্য পদে। পরের বছর ১৯৯৪ সালে ছাত্রলীগের জাতীয় নির্বাহী কমিটিতে জায়গা করে নেন সদস্য হিসেবে।

১৯৯৮ থেকে ২০০২ সাল এই চার বছর গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক, ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় কমিটিতে সদস্য হিসেবে এবং ২০১২ সাল থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনের সদস্য এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হক এর মৃত্যুতে আসনটি ফাঁকা হয়। আগামী ১৩ মার্চ উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এসএস/

আপিল করবে না ইসি; নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় হতাশ আওয়ামী লীগ: কাদের

আওয়ার ইসলাম: ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচনের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিল করবে না নির্বাচন কমিশন। এ বিষয়ে ইসি বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ইসির এক সভার পর কমিশন কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

হেলালুদ্দিন জানান, আদেশের পূর্ণাঙ্গ কপি পাওয়ার পর তা পর্যালোচনা করা হবে। স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত এ নির্বাচনের যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

এদিকে নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আওয়ামী লীগও হতাশ বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার কুমিল্লায় মহাসড়ক পরিদর্শনকালে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরিচ্ছন্ন ইমেজের কারণে নির্বাচনে বিজয়ের শতভাগ সম্ভবনা ছিলো। তাই নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আমরা হতাশ।

স্থগিতের আদেশ নিয়ে বিএনপি নেতারা মিথ্যাচার করছেন বলে অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের হাইকমান্ডকে খুশি করতে তারা মিথ্যাচারের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন।

এসএস/

আওয়ামী লীগ জিততে পারবে না বলেই নির্বাচন স্থগিত করেছে: ফখরুল

আওয়াার ইসলাম: ‘ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে সরকার জিততে পারবে না বলেই স্থগিত করা হয়েছে’ বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার বিএনপি চেয়ারপরসন রাজধানীর বকশীবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে সেখানে ডিসিসি উপনির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা তিন মাসের জন্য স্থগিতের প্রতিক্রিয়ায় এই মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ।

ফখরুল বলেন,  এটা নির্বাচন কমিশনের চরম ব্যর্থতা। কারণ, তারা সীমানা নির্ধারণ না করেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। এটা আইন অনুযায়ী হয় না।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকার যেহেতু নির্বাচনের ফলাফল আগেই জানতো, অর্থাৎ তারা হেরে যাবে। এবং হেরে যাবে বলেই তারা নির্বাচন বন্ধের এই সুযোগ নিয়েছে বলে আমরা মনে করি।

এসএস/

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী মহাপরিকল্পনা : প্রশিক্ষণ পাবে ১২ লাখ কর্মী, ৪ স্তরে চলবে প্রচার-প্রচারণা

আওয়ার ইসলাম : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।  এর অংশ হিসেবে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের প্রশিক্ষণ ও প্রচারনার মাধ্যমে  পুরোমাত্রায় সক্রিয় করার উদ্যোগ নিয়েছে দলটি।

আসন্ন নির্বাচনে সাফল্য পেতে দেশজুড়ে ১২ লাখ কর্মীকে পোলিং এজেন্ট হিসেবে প্রশিক্ষণ দেয়া।  খুব দ্রুততম সময়ে এ কর্মসূচি শুরু করা হবে।

সেইসঙ্গে অন্তত চারটি প্রক্রিয়ায় নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম বাস্তবায়নের প্রস্তুতি রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম সার্বিক বিষয় দেখভাল করবেন।

তিনি বলেন, এরই মধ্যে প্রাথমিকভাবে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়েছে।  এর অংশ হিসেবে খুব দ্রুতই সারাদেশে পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু হবে।

এ পরিকল্পনাটি খুব কম সময়ের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করা হবে।  তিনি অনুমোদন দিলেই বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া শুরু হবে।

এ পরিকল্পনার আওতায় কমপক্ষে ১১ লাখ ৬২ হাজার ৫০০ কর্মীকে পোলিং এজেন্ট করা হবে।  আওয়ামী লীগের নেতারা মনে করছেন,  আগামী নির্বাচনে কমবেশি ৪৬ হাজার ৫০০টি ভোটকেন্দ্র হতে পারে।

একেকটি ভোটকেন্দ্রে গড়পড়তা পাঁচটি করে বুথ করা হলে মোট বুথের সংখ্যা হবে দুই লাখ ৩২ হাজার ৫০০টি।  তবে এ সংখ্যার চেয়ে কমপক্ষে পাঁচগুণ বেশি পোলিং এজেন্ট নিয়োগ করা হবে।

আগামী মার্চ মাস থেকে পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু করার প্রস্তুতি রয়েছে।

দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সাবেক সরকারি কর্মকর্তা ও সংশ্নিষ্ট বিশেষজ্ঞরা তাদের প্রশিক্ষণ দেবেন।

এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে পোলিং এজেন্টদের নির্বাচনী আইন ও বিধিমালা শেখার পাশাপাশি সঠিকভাবে ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালনের বিষয়টি শেখানো হবে।

তিনশ’ সংসদীয় আসনের আওতাধীন সাতটি প্রশাসনিক বিভাগের (আটটি রাজনৈতিক বিভাগ) পাশাপাশি ৬৪টি প্রশাসনিক জেলা ও ৪৯১টি উপজেলায় এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচি চলবে।

 

জেলা পরিষদ নির্বাচনে আগ্রহীদের আবেদনপত্র আহ্বান আওয়ামী লীগের

al__flag
আওয়ার ইসলাম :  পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণে আগ্রহীদের আগামী ১৮ নভেম্বরের মধ্যে জীবন-বৃত্তান্তসহ আবেদনপত্র পাঠানোর আহ্বান জানিয়েছে আওয়ামী লীগ। আজ শনিবার সংগঠনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ জীবন বৃত্তান্ত পাঠাতে হবে। আবেদনপত্রের সাথে প্রার্থীর সদ্য তোলা দু’কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙ্গিন ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সংযোজন করতে হবে।

আগামী ২৮ ডিসেম্বর বুধবার দেশের ৬১টি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

আআ

৮ নভেম্বর টুঙ্গিপাড়ায় আ. লীগের নতুন কমিটির প্রথম যৌথ সভা

awami ligআওয়ার ইসলাম: আগামী ৮ নভেম্বর দুপুর ২টায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের প্রথম যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। সভাপতিত্ব করবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রো্বার দুপুরে দলটির দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ নব-নির্বাচিত কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা টুঙ্গিপাড়ায় চিরনিদ্রায় শায়িত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। কেন্দ্রীয় নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশগ্রহণ করার পর দুপুর দুইটায় সেখানে প্রথম যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের উল্লিখিত কর্মসূচিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদের সব সদস্যকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

এফএফ

মৃত ব্যক্তির কাছে ১০ টাকা কেজির চাল বিক্রি!

10-taka-kgআওয়ার ইসলাম: প্রায় ১ বছর আগে মৃত্যুবরণ করেছেন গৃহবধূ সরসা বানু । কিন্তু সরকারের খাদ্যাবান্ধব কর্মসূচির তালিকায় সুবিধাভোগী হিসেবে তার নাম তালিকাভূক্ত ও তার কাছে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসের চাল বিক্রি দেখানো হয়েছে।

চাল বিক্রির মাষ্টার রোলে মৃত সরসা ভানুর টিপসইও দেখিয়েছেন ডিলার। এমনকি তার দুই ছেলে, ছেলেদের বউ, নাতি ও তাদের বউসহ একই পরিবারের ৯ জনের নামে তালিকা করে কার্ড ইস্যু করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার রাউতি ইউনিয়নে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের তালিকা তৈরি ও চাল বিক্রির ক্ষেত্রে এমন নজিরবিহীন অনিয়ম ও দুর্নীতির ঘটনাটি ঘটেছে।

এ ছাড়া ওই ইউনিয়নে ১০ টাকা কেজির চাল বিক্রিতে একই ব্যক্তির নামে একাধিক কার্ড ইস্যু করাসহ তালিকায় নাম থাকার পরও সুবিধাভোগীদের চাল না দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এফএফ

আরও পড়ুন

আমি জীবনে কাউকে ‘মালাউন’ বলিনি: ছায়েদুল হক

আমাদের নীতি দেশকে উন্নত করা

hasina3আওয়ার ইসলাম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সমবায় দর্শনকে কাজে লাগিয়ে আমরা ধনী-গরিবের বৈষম্য কমাতে সক্ষম হয়েছি। আমরা খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি। তারপরও বহুদূর যেতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

শনিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ৪৫তম সমবায় দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের উন্নয়ন করতে হলে সবাইকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। আমাদের  নীতি দেশকে উন্নত করা। সমবায়কে বহুমুখী হিসেবে গড়ে তোলা। সমবায়কে যথাযথভাবে কাজে লাগাতে পারলে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবো।

তিনি বলেন, দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করতে ক্ষুদ্রঋণের বদলে ক্ষুদ্র সঞ্চয় ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। ক্ষুদ্র সঞ্চয় ব্যবস্থার আওতায় কেউ ২০০ টাকা জমা দিলে তাকে আরও ২০০ টাকা করে দুই বছর পর্যন্ত দেয়া হবে। এর মধ্য দিয়ে প্রত্যেকে স্বাবলম্বী হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, সমবায় দর্শনকে বঙ্গবন্ধু সত্যিকারের দর্শন হিসেবে দেখেছিলেন। এটাকে কাজে লাগিয়ে বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন সমাজের ধনী-গরিবের বৈষম্য দূর করতে। এ দর্শন কাজে লাগিয়ে আমরা ধনী-গরিবের বৈষম্য কমাতে সক্ষম হয়েছি।

আরআর

জনগণের কাছে যান, ক্ষমা চান

obaidul-kaderআওয়ার ইসলাম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মঙ্গলবার এক কনফারেন্সে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, জনগণের কাছে যান, তাদের মন জয় করুন। যারা খারাপ আচরণ করেছেন, ভুল করেছেন, তারা জনগণের কাছে ক্ষমা চান।
তিনি বলেন, ‘নিজেদের সংশোধন করুন। জনগণের মন জয় করাই আমাদের পরবর্তী এজেন্ডা।’

রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে জনগণের ভালোবাসা অর্জন এবং মন জয় করতে হবে। নিজেদের সংশোধন করতে হবে। অন্যথায় অস্ত্রধারীর বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, সেই অ্যাকশন শুরু হয়ে যাবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ প্রমুখ।

এবিআর