169652

ফিলিপাইনে সৌদি আরবের বিজয় দিবস উদযাপন!

বেলায়েত হুসাইন: মুসলিম বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী আরব রাষ্ট্র সৌদি আরব। দেশটির বিজয় দিবস পালিত হয় প্রতি বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর। ১৯৩২ সালের এই দিনে আবদুল আজিজ ইবনে আল-সৌদ সৌদি আরব সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন। সেই হিসেবে কাঙ্খিত দিবসটি আসার আর মাত্র ছয়দিন বাকি।

এদিকে দেশটির বিজয় দিবসের আগমন নিকটবর্তী হওয়ায় রিয়াদের মিত্র দেশ ফিলিপাইনের মুসলিম শিক্ষার্থীরা একটি সমবেত অনুষ্ঠান আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে তারা একযোগে সৌদি আরবের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে আসন্ন বিজয় দিবসকে অভ্যর্থনা জানায়।

এ সময় শিক্ষার্থীদের একটি বিশেষ অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে ফিলিপাইনে সৌদি আরবের নানারকম মানবিক কাজের প্রতি মুগ্ধতা ও ভালবাসা প্রকাশ করতে দেখা যায়।

আজ মঙ্গলবার এ ব্যাপারে ২০ বছর ধরে সৌদিতে কাজ করা ফিলিপাইন-লেখক আব্দুল হান্নান তাজু আল-আরাবিয়া ডটনেটকে জানান, প্রতিবছর এই সময়টিতে ফিলিপাইন-নাগরিকদেরকে সৌদির প্রতি আন্তরিক ভালবাসার বিভিন্ন অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে দেখা যায়। শিশু এবং নারীরাও এতে অংশ নেয়। স্কুলগুলোতে সৌদি আরবের জাতীয় সংগীত গাওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, পবিত্র কিবলা, ওহী অবতরণের তীর্থভূমি এবং হারামাইনিশ শারিফাইনের অবস্থানের জন্য ফিলিপাইনে বসবাসরত মুসলমানরা সৌদিকে বিশেষ মর্যাদা ও সম্মানের নজরে দেখে। এছাড়াও, শিক্ষাখাতে সৌদির অবদানের প্রতিও ফিলিপাইনের নাগরিকরা দেশটির প্রতি সমান শ্রদ্ধাশীল। কেননা, সৌদি আরবের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনেক ফিলিপাইনি শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে।

আব্দুল হান্নান নিজের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে উল্লেখ করেন,  দীর্ঘদিন ধরে খুব প্রশান্তি, স্থীরতা এবং ভালবাসা ও মুহাব্বাতের সঙ্গে সৌদিতে জীবন অতিবাহিত করছি। প্রয়োজনীয় জীবনোপকরণসহ সবদিকের সুবিধাই ভোগ করছি। আমার স্মৃতিকথা অনেক লম্বা; আমি এবং আমার পরিবার এখান থেকেই পড়াশোনা করে মানুষ হয়েছি। এজন্য আমি আল্লাহর নিকট সৌদি আরব এবং এর জনগণের জন্য কল্যাণের দোয়া করি-তারা যেন আজীবন সম্মান এবং ইজ্জত নিয়ে প্রতিষ্ঠিত থাকতে পারে।

সূত্রঃ আল আরাবিয়া ডটনেট

আরএম/

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.