168692

শায়খ নদভী ইনস্টিটিউটের আরবি লুগাহ কোর্সের উদ্বোধন

আওয়ার ইসলাম: আরবিতে দূর্বল ছাত্রদের জন্য শায়খ আবুল হাসান আলী নদভী ইসলামিক রিসার্চ ইনস্টিটিউট ‘আরবি লুগাহ ও আদব কোর্স’ চালু করেছে।

৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ৯টায় ঢাকার বিরুলিয়ায় অবস্থিত ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

‘শায়খ আবুল হাসান আলী নদভী ইসলামিক রিসার্চ ইনস্টিটিউট’ এর অধীনে আরবি লুগাহ ও আরবি কোর্সটি রমজান পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহের শুক্রবারে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ক্লাসের সময় ধার্য করা হয়েছে। কওমি মাদরাসার হেদায়াতুন্নাহু থেকে দাওরায়ে হাদীস পর্যন্ত আরবীতে দূর্বল যে কোনো ছাত্র এখানে অংশগ্রহণ করতে পারবে।

কোর্সে আরবী ভাষার চারটি দক্ষতা; ইবারত পড়ে বুঝা, লেখালেখি, কথোপকথন ও শুনে বুঝা-এর বিশেষ অনুশীলন এবং নাহু সরফের কায়দাসমূহ শীট আকারে মুখস্ত এবং কুরআন হাদিস থেকে ইজারা করানো হবে। আরবী ভাষায় রচনা, প্রবন্ধ, চিঠিপত্র লেখার নিয়মকানুন ও মিডিয়া আরবী শেখানো হবে।

কোর্স সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাওলানা শহীদুল ইসলাম ফারুকী বলেন, বর্তমান দীনি বিদ্যাপীঠগুলোতে উচ্চস্তরের কিতাবাদি আরবি ভাষায় প্রণীত হলেও প্রাথমিক সকল কিতাবাদি এখনো পর্যন্ত উর্দূ-ফার্সীতেই রয়ে গেছে। যে কারণে অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা আরবির মৌলিক ও বুনিয়াদী যোগ্যতা থেকে বঞ্চিত থেকে যায়। ফলে কুরআন-সুন্নাহ ও তার ব্যাখ্যামূলক গ্রন্থাদি এবং আধুনিক আরবি ভাষায় রচিত কিতাবাদি থেকে সরাসরি উপকৃত হতে শিক্ষার্থীদের বেগ পেতে হয়। এসকল দিক বিবেচনা করে আমরা আরবিতে দূর্বল ছাত্রদের ভবিষ্যতের প্রতি লক্ষ্য রেখে রমজান পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহের শুধুমাত্র শুক্রবারে ক্লাস রেখে একটি কোর্সের আয়োজন করেছি।

এদিকে বিশেষ এ কোর্সের পাশাপাশি এক বছর মেয়াদী আরবি লুগাহ ও আদব বিভাগেও প্রতিষ্ঠানটিতে ভর্তি চলছে। হেদায়াতুন্নাহু থেকে তাকমীল পর্যন্ত যে কোন ছাত্র এ বিভাগে ভর্তি হতে পারবে।

শায়খ আবুল হাসান আলী নদভী রহ. এর প্রিয়ভাজন খলীফা ও ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান মাওলানা মুহাম্মদ সালমান এর সভাপতিত্বে এবং পরিচালক মাওলানা শহীদুল ইসলাম ফারুকীর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব ইসমাইল হোসেন, মাওলানা সৈয়দ শামসুল হুদা, মাওলানা শুয়াইব আবুল খায়ের, মাওলানা আবু ইউসুফ মুহাম্মদ নাসির, মাওলানা কামালুদ্দীন ফারুকী, মাওলানা আতীকুল্লাহ শহীদ, মাওলানা আব্দুল গাফফার প্রমুখ।

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.