168099

সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডের উদ্যোগে সিআইপিএ কোর্সের উদ্বোধন

আওয়ার ইসলাম: সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ আয়োজিত আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত এবং বাহরাইনভিত্তিক অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড অডিটিং অর্গানাইজেশন ফর ইসলামিক ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশন প্রবর্তিত সার্টিফাইড ইসলামিক প্রফেশনাল অ্যাকাউন্ট্যান্ট কোর্সের উদ্বোধনী পর্ব শুরু হয়।

আজ শনিবার সকাল দশটায় বোর্ডের কাকরাইলে অবস্থিত ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হয়।

সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব জনাব শাহ আব্দুল হান্নান।

প্রধান আলোচক ছিলেন বোর্ডের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব এম আযীযুল হক এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অর্থসচিব ও ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান জনাব আরাস্তু খান, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেডের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব রুমি এ হোসেন ও ট্রাষ্ট ব্যাংক লিমিটেডের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়রা আজম।

এ পর্বে উপস্থিত অতিথি ও প্রশিক্ষণার্থীদের ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করে এর উদ্বোধন করেন সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডের সেক্রেটারি জেনারেল জনাব মুহা. আবদুল্লাহ শরীফ।

প্রধান অতিথি জনাব শাহ আব্দুল হান্নান তার বক্তৃতায় বলেন, ইসলামী ব্যাংকিংকে এগিয়ে নেয়ার জন্য ইসলামী ব্যাংকিং ও ফাইন্যান্সের জ্ঞানে সমৃদ্ধ হওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইসলামী অর্থনীতি প্রতিষ্ঠার মূল ইন্সট্রুমেন্ট হলো- ইসলামী ব্যাংকিং, যাকাত ও ওয়াকফ।

প্রধান আলোচক জনাব এম আযীযুল হক বলেন, পবিত্র কুরআনে সব শ্রেণীর মানুষের স্বার্থ সংরক্ষণ করা হয়েছে। সুদ শোষণের হাতিয়ার হওয়ায় ইসলামে সুদকে হারাম করা হয়েছে।

বিশেষ অতিথি জনাব আরাস্তু খান বাংলাদেশে সিআইপিএ কোর্স চালু করায় সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডকে মোবারকবাদ জানান। উন্নয়নমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নে তিনি সুকূক চালু করার প্রতিও গুরুত্বারোপ করেন।

বিশেষ অতিথি জনাব রুমি এ হোসেন বলেন, সেন্ট্রাল শরীয়াহ বোর্ডের ইতিহাসে আজকের এ কোর্স একটি মাইলফলক।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ সাইয়্যেদ কামালুদ্দীন জাফরী বলেন, জীবনের সকল ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে হলে জ্ঞানের ক্ষেত্রে উৎকর্ষ লাভ করতে হবে। ১৪টি ইসলামী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ২৭জন ফেলো উদ্বোধনী পর্বে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, উদ্বোধনী পর্বের শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে সিআইপিএ কোর্সের ক্লাস শুরু হয়।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Comments are closed.