২০১৯-০২-১২

বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মিরসরাইয়ে ১৫ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক ইসলামি স্কলারদের মিলনমেলা

OURISLAM24.COM
news-image

এম ওমর ফারুক আজাদ: চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ইসলামী মহা সম্মেলন। আন্তর্জাতিক ইসলামী স্কলারদের পদচারণায় মিলনেস্থলে রুপ নেবে এবারের সম্মেলনটি।

আগামি ১৫ফেব্রুয়ারি রোজ জুমাবার উপজেলার জোরারগঞ্জ থানাধীন মুহাম্মদিয়া আজিজুল উলুম তেমুহনী মাদরাসার উদ্যোগে আয়োজিত আন্তর্জাতিক এ মহাসম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আল্লামা ক্বারী নুরুজ্জামান ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি, বিশিষ্ট দানবীর ও সমাজসেবক কামাল উদ্দীন।

মাদরাসার ৩৬বছর ফূর্তী উপলক্ষে এবারের সম্মেলনটি হচ্ছে বর্ণিল আয়োজনের। এতে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখবেন দেশ-বিদেশের খ্যাতিমান স্কলারগণ।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে আসছেন মক্কা শরিফের সম্মানিত ইমাম শায়খ আব্দুল্লাহ হামেদ সাম্ভু। আন্তর্জাতিক স্কলারদের মধ্যে আলোচনা রাখবেন মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়ত হংকং এর চেয়ারম্যান শায়খ ক্বারী মুহাম্মদ তৈয়ব কাছেমী, শায়খ মাহমুদ আদিউলা (দক্ষিণ আফ্রিকা)।

মুফতি আব্দুল্লাহ মারুফ (শ্রীলংকা), শাইখ মিজানুর রহমান হানাফি (শ্রীলঙ্কা, শাইখ সালাহুদ্দীন জাহাঙ্গীর(লন্ডন)। জাতীয় ওলামা ও স্কলারদের মধ্যে উপস্থিত থেকে বক্তব্য-নসিহত উপস্থাপন করবেন জামিয়া আজিজুল উলুম বাবুনগর এর পরিচালক, আল্লামা মুহিব্বুলাহ বাবুনগরী।

দারুল উলূম হাটহাজারীর শাইখুল হাদিস ও নায়েবে মুহতামিম, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ’র মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী, ডক্টর মাহমুদুল হাসান আল আজহারী, ডক্টর আ. ফ. ম. খালেদ হোসাইন। এতে পবিত্র জুমু’আ’র ইমামতি করবেন প্রধান অতিথি শাইখ আব্দুল্লাহ হামেদ সাম্ভু।

এছাড়াও প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের কাসেমী, রাবেয়া বছরী পদক ও দস্তারে ফজিলত প্রদান করা হবে। সম্মেলন শেষে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় ইসলামী সঙ্গীত পরিবেশন করবেন সাড়া জাগানো কবি-শিল্পী ও রাষ্ট্র চিন্তক জাগ্রত কবি আল্লামা মুহিব খান।

এতে সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের উপস্থিত থেকে দ্বীনি আলোচনা শ্রবন করার দাওয়াত প্রধান করেছেন
মুহাম্মদীয়া আজিজুল উলুম তেমুহনী মাদরাসার নির্বাহী পরিচালক মাওলানা জমির উদ্দিন।

উল্লেখ্য: আজ থেকে ৩৬বছর পূর্বে আল্লামা হারুন বাবুনগরী (রহ.), আল্লামা হাজি ইউনুস (রহ.) প্রমুখের নির্দেশে মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন আল্লামা কারী নুরূজ্জামান।

সূচনাকাল থেকে প্রতিষ্ঠানটিতে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আগত শিক্ষার্থীরা দ্বীনি জ্ঞান অন্বেষণ করে যাচ্ছে। সু-শিক্ষা ও আদর্শ নাগরিক গঠনে দেশ বিদেশে এ প্রতিষ্টান সু-খ্যাতি অর্জন করেছে।

-এটি