২০১৯-০২-১১

শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

টেকনাফ মাতালেন বিশ্ব সেরা ক্বারীরা

OURISLAM24.COM
news-image

ইকবাল আজিজ
টেকনাফ প্রতিনিধি

৩ পর্বে পিন পতন নিরবতায় মুহুর্মুহু ‘আল্লাহু আকবর, সুবহানাল্লাহ’ ধ্বনির মাধ্যমে ঐশী মহাগ্রন্থ পবিত্র আল-কুরআনের সুললিত ও সুকন্ঠে তেলাওয়াতের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে টেকনাফ উপজেলা ওলামা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলন।

টেকনাফ পৌর ইদগাহ ময়দানে অনুষ্টিত ২য় আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলনে দেশ-বিদেশের খ্যাতিমান ক্বারীগণ তেলাওয়াত করেন। শেষে দুয়া পরিচালনা করেন টেকনাফ আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়ার প্রধান পরিচালক শায়খুল হাদীস আল্লামা মুফতী কিফায়তুল্লাহ শফীক্ব।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আর্ন্তজাতিক ক্বেরাত সম্মেলন কমিটির সভাপতি টেকনাফ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা রফিক উদ্দিন। এতে উপস্থাপনা করেন টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম সাইফী। সহযোগিতায় ছিলেন কক্সবাজারের হাফেজ মাওলানা ক্বারী রিদুয়ানুল কবির।

গতকাল রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠানটি শেষ হয় রাত পৌনে ১২টায়। এটি ছিল টেকনাফের ইতিহাসে ২য় আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলন। এ সম্মেলনকে ঘিরে সর্বস্তরের মানুষের আগ্রহ এবং উৎসাহ ছিল প্রবল। সম্মেলন শুরুর পর থেকে ঈদগাহ মাঠে জনসমাগম বাড়তে থাকে। শুরু হয় দেশী বিদেশী ক্বারীদের মিলনমেলা। দেশ-বিদেশের প্রখ্যাত ক্বারীদের কণ্ঠে উচ্চারিত সুরের মুর্ছনায় বিমোহিত হয়ে উঠে টেকনাফের আকাশ বাতাস। পবিত্র গ্রন্থের টানে ছুটে আসে কুরআন প্রেমিক জনতা।

বিকাল না গড়াতেই সভাস্থল ভরে ওঠে কুরআন শ্রোতাদের। সন্ধ্যা নাগাদ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে উঠে বিশাল ঈদগাহ ময়দান। শুধু বিদেশী ক্বারী নন, এতে তেলাওয়াত করেন আন্তর্জাতিক মানের দেশীয় ক্বারীগণ। প্রত্যেক ক্বারীর ভিন্ন ভিন্ন মন ছোঁয়া তিলাওয়াত কৌশলের সুরের মুর্ছনায় ব্যাকুল হয়ে উঠে মুমিন হৃদয়। তেলাওয়াতের এই সম্মেলনে কোন ছন্দ পতন হয়নি।

১ম পর্ব ছিল টেকনাফ উপজেলার বিভিন্ন মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের নিয়ে ক্বেরাত প্রতিযোগিতা। ২য় পর্ব ছিল স্থানীয় ক্বারীদের তেলাওয়াত। ৩য় পর্ব ছিল বিদেশী ক্বারীগণের তিলাওয়াত। বাদে ইশা শেষ অধিবেশনে ক্বেরাত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত শুনিয়ে শ্রোতাদের হৃদয়ে স্থান করে নেন মিসরের ক্বারী ইয়াহয়া শরক্বাভী, ক্বারী উসামা আল-হাওয়ারী, ক্বারী জামাল শিহাব, তানজানিয়ার ক্বারী রেজা আয়ুব, লন্ডনের ক্বারী আয়ুব আসিফ।

দেশীয় ক্বারীদের মধ্যে কুরআন তেলাওয়াত করেন আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত ক্বারী শহীদুল ইসলাম, ক্বারী মনজুর বিন মোস্তফা, ক্বারী আমজাদ হোছাইন, ক্বারী জাহেদ হোসাইন কাসেমী, ক্বারী মুহাম্মদ আনোয়ার। সব ক্বারীদের স্ব-স্ব উচ্চারণ ভঙ্গীমা ও কৌশলী তেলাওয়াতের সুর আলোড়িত করে পুরো সভাস্থল। যেন জমিনে নেমে আসে বেহেস্তী এক আবহ।

স্থানীয় ক্বারীগণের মধ্যে তিলাওয়াত করেন ক্বারী আতিকুল্লাহ, ক্বারী মুহাম্মদ আইয়ুব, ক্বারী মুহাম্মদ খুরশিদ আলম, ক্বারী মুহাম্মদ আরিফুল্লাহ, ক্বারী মকসুদ আলম, ক্বারী মুহাম্মদ আব্দুল হক, ক্বারী সাইদ আলম, ক্বারী ইলিয়াছ, ক্বারী আবদুর রহমান, ক্বারী আবদুল্লাহ, ক্বারী ছানাউল্লাহ প্রমুখ।

ক্বেরাত প্রতিযোগিতা :
টেকনাফের ১ম আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলনের মতো এবারেও শিক্ষার্থীদের উৎসাহ যোগাতে এন্তেজামিয়া কমিটির বিচক্ষণিক সিদ্ধান্তে ক্বেরাত প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে ১ম পর্বে টেকনাফ উপজেলার বিভিন্ন মাদ্রাসার ২০ জন প্রতিযোগী অংশ গ্রহণ করে।

তম্মধ্যে ১ম স্থান লাভ করে টেকনাফ জামিয়ার ছাত্র মুহাম্মদ হারুন, ২য় স্থান লাভ করে লেদা ইবনে আব্বাস মাদ্রাসার ছাত্র রফিকুল ইসলাম, ৩য় স্থান লাভ করে নয়াপাড়া দক্ষিণ কচুবনিয়া রওজাতুল জান্নাহ হেফজখানার ছাত্র আরফাত হোসাইন।

ধন্য টেকনাফ উপজেলা ওলামা পরিষদ: ১০ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় শুরু হয়ে রাত পৌনে ১২টায় শেষ হয় টেকনাফে ২য় আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলন। মাঝখানে নামাজ ও দুপুরের খাবারের বিরতি ছাড়া কোন ছন্দ পতন ঘটেনি।

মানুষের আগ্রহ, আন্তরিকতা, উপস্থিতি, উপস্থাপনা, অনড় বসে থাকাসহ সব কিছু মিলে পুরো অনুষ্টানটি ছিল অনন্য এবং প্রশংসনীয়। লাঠিতে ভর দিয়ে আসা অশীতিপর অনেক বৃদ্ধকেও শেষ পর্যন্ত বসে থাকতে দেখা গেছে।

এন্তেজামিয়া কমিটি তেলাওয়াত শোনার সুবিধার্থে দুরে দুরে মাইক স্থাপনের ব্যবস্থা করায় দোকানে ও ঘরে বসে-শুয়ে তিলাওয়াৎ শোনার সুযোগ পেয়েছে। মহিলাগণও শ্রবণের সুযোগ লাভ করেছে।

অনুষ্ঠান শেষে সকলেই তৃপ্ত। আন্তরিক দু’য়া কামনা করেছেন সবাই। উদ্যোগ নিচ্ছেন মানুষকে পবিত্র কুরআনের সাথে সম্পৃক্ততায় এ ধরণের আরও আয়োজনের। সর্বোপরি আন্তর্জাতিক মানের এ ধরণের একটি মহতী অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য ঘর ফিরতি মানুষের মুখে মুখে টেকনাফ উপজেলা ওলামা পরিষদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। নেপথ্যে যাঁরা শ্রম, মেধা, সময়, অর্থ ও সহযোগিতা দিয়ে বিশাল এই আয়োজনকে সাফল্যমণ্ডিত করেছেন তাঁদের জন্য অন্তঃস্থল থেকে বেরিয়েছে দু’য়া।

-আরএইচ