২০১৯-০১-১২

রবিবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৯

গাজীপুরে নাশকতার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার ৫

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: বেতন ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে আজ শনিবারেও গাজীপুরে বিভিন্নস্থানে বেশ কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা কর্মবিরতি, বিক্ষোভ ও ভাংচুর করেছে।

টঙ্গীতে আন্দোলনরত ৫ শ্রমিককে সাদা পোশাকধারী ব্যক্তিরা তুলে নেওয়ার খবরে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানা ও গাড়ি ভাংচুর এবং মহাসড়ক অবরোধ করেছে। এসময় একাধিক পয়েন্টে আন্দোলনরত শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এতে কয়েকজন আহত হয় বলেও জানা যায়।

টঙ্গী এলাকায় গার্মেন্টসে ভাংচুর ও নাশকতার সঙ্গে জড়িত ৫ জন সন্ত্রাসীকে আটক করেছে র‍্যাব-১ এর সদস্যরা। শ্রমিক অসন্তোষের মুখে এদিন জেলার প্রায় অর্ধশত কারখানা ছুটি ঘোষণা করেছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। পুলিশ ও কারখানা কর্তৃপক্ষের দাবী, ভ্রান্ত ধারণা থেকে শ্রমিকরা অযৌক্তিকভাবে গত কয়েকদিন ধরে এ আন্দোলন করছে।

পুলিশ ও শ্রমিকরা জানায়, সরকার ঘোষিত মুজুরী কাঠামোয় বৈষম্যের অভিযোগে তা দূর করে ন্যূনতম বেতন ভাতা বৃদ্ধি ও বাস্তবায়নের দাবিতে শনিবারেও গাজীপুরের বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকরা কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে।

সাদা পোশাকে পাঁচ শ্রমিককে ধরে নেয়ার খবরের সত্যতা স্বীকার করে ওসি কামাল বলেন, তাদের সন্ধান পাওয়া গেছে। তবে কারা বা কি কারণে তাদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সে ব্যাপারে কোন তথ্য জানাতে পারেননি তিনি।

এদিকে র‍্যাব-১ শনিবার বিকেলে জানায়, গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় গার্মেন্টসে ভাংচুর ও নাশকতার সঙ্গে জড়িত ৫ জন সন্ত্রাসীকে র‍্যাব-১ এর সদস্যরা আটক করেছে।

গার্মেন্টসের মুজুরী কাঠামো নিয়ে শ্রমিকদের আন্দোলনের নামে গত ৯ জানুয়ারি গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় পেট্রিয়ট, জিন্স এন্ড পোলো, গোল্ড স্টার, রেডিসন-১, নর্দার্ন ও সুমিসহ মোট ৯ টি গার্মেন্টসে ব্যাপক ভাংচুর ও সহিংসতার ঘটনা ঘটে।

আজ শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব এলাকায় শ্রমিক অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি কারখানা কর্তৃপক্ষ ওইসব কারাখানা বন্ধ ঘোষণা করে নোটিশ টানিয়ে দিয়েছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এসব কারখানা বন্ধ থাকার কথা ওই নোটিশে উল্লেখ করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে বলেও জানা যায়।

-এটি