২০১৮-১২-০৬

সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

আপিলেও টিকলেন না হিরো আলম

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: নির্বাচন কমিশনের আপিলেও মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে আলোচিত মডেল-অভিনেতা আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলমের। আজ বৃহস্পতিবার তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়।

জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন হিরো আলম। মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

বৃহস্পতিবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেন হিরো আলম। আজ আপিল যাচাইবাছাই শেষে তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করেন রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. ফয়েজ আহাম্মদ।

রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, ‘স্বতন্ত্র হিসেবে কেউ প্রার্থী হতে চাইলে বা নির্বাচন করতে চাইলে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর দাখিল করার কথা। কিন্তু হিরো আলমের মনোনয়নপত্রে নির্ধারিত ভোটারের স্বাক্ষর ছিল না।’

রিটানিং অফিস সূত্রে জানা গেছে, কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন নিলে তাকে তার নির্বাচনি এলাকার মোট ভোটারের ১ শতাংশের স্বাক্ষর লাগে। তবে হিরো আলম ভোটারদের স্বাক্ষরসংবলিত যে তালিকা জমা দিয়েছেন তা যাচাই করে দেখা গেছে, তিনি ভুয়া ভোটারদের তালিকা জমা দিয়েছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে নন্দীগ্রাম উপজেলা পরিষদের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও শারমিন আখতারের কাছে নিজের মনোনয়নপত্র জমা দেন সিডি ব্যবসায়ী থেকে তারকা বনে যাওয়া হিরো আলম। তার নির্বাচনি অভিজ্ঞতা এটিই প্রথম নয়; এর আগে স্থানীয় নির্বাচনে অংশ নেন তিনি।

কেপি