২০১৮-১২-০৫

সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

সব প্রার্থীর অভিযোগ আমলে নিয়ে ব্যবস্থার নির্দেশ সিইসির

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বলেছেন, ‘ইতোমধ্যে নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনসহ নানা অপরাধের প্রতিকার না পাওয়ার অভিযোগ আসা শুরু করেছে নির্বাচন কমিশনে।

মাঠ পর্যায়ে তদন্ত কমিটি নিরব রয়েছে। তদন্ত কমিটির বিচারকদের নির্বাচনি মাঠে সম্পূর্ণ শক্তি প্রয়োগ করতে হবে। যে কোনও প্রার্থীর অভিযোগ আমলে নিয়ে ব্যবস্থা নিতে হবে।’

সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অপরাধ দমনে গঠিত ইলেকটোরাল ইনকোয়ারি কমিটির বিচারকদের তিনি এ নির্দেশনা দেন। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) নির্বাচন ভবনে নির্বাচনি তদন্ত কমিটির বিচারকদের ব্রিফিং অনুষ্ঠান হয়।

সিইসি বলেন, কোড অব সিভিল প্রসিডিউর-১৯০৮’-এর সম্পূর্ণ শক্তি নিয়ে আপনারা মাঠে অবস্থান করবেন। এটা আপনাদের প্রকৃত, যেটা আপনাদের চেম্বারে নয়, মাঠে।

সমস্যার মুখোমুখি, প্রার্থীদের মুখোমুখি, আরচণবিধি যারা ভঙ্গ করবে তাদের মুখোমুখি, আপনাদের ওপরে অন্যরকম অভিজ্ঞতা। এটা অন্যরকম পরিবেশ বা অন্যরকম দায়িত্ব আপনাদের ওপরে অর্পিত হয়েছে। এটাকে আপনাদের ভালোভাবে দেখভাল করা দরকার।

তিনি বলেন, ‘আপনাদের ভিজিবল (দৃশ্যমান) হতে হবে। ভিজিবল যখন হবেন, আপনাদের কাজের মাধ্যমে যখন আস্থা রাখবে, আপনাদের যখন চিনবে, তখন থেকে আপনাদের ওপরে দায়িত্ব আসবে। তখন আর আমাদের ঢাকায় নির্বাচন কমিশনে শত শত অভিযোগ আসবে না।’

সিইসি আরও বলেন, ‘আমরা আশা করেছিলাম যে, প্রত্যেকটি কমিটি অন্তত ১২২টি অভিযোগ তদন্ত করবে। ১২২টা বাদ দিলাম, ২২টিও তদন্ত করা হয়নি। যাই হোক, মানুষের অভিযোগগুলো শুনবেন, আমলে নেবেন এবং তাদের রিলিফ দেবেন, যাতে তারা যাদের জায়গায় বসে, এলাকায় থেকে, ঢাকা পর্যন্ত না এসে আপনাদের কাছ থেকে, পাশে থেকে সমস্যাগুলোর সমাধান করতে পারেন।’

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন– কমিশনার মাহবুব তালুকদার, কবিতা খানম ও শাহাদাত হোসেন।

প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেছেন ৩১৮ জন

কেপি