২০১৮-০৮-০৮

শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯

হেফজ বিভাগের শিক্ষকদের জন্য ১৪টি পরামর্শ

OURISLAM24.COM
news-image

মুহাম্মদ হাফিজ
পাঠক

১. ছাত্রদের সকল পড়া শিক্ষকই শুনবেন। ছাত্র দিয়ে ছাত্রের পড়া শোনাবেন না।

২. সবক ও সবকের পারা একজন একজন করে শুনবেন। সাতসবক ও আমূখতা প্রয়োজনে একাধিকজনের একত্রে শুনতে পারেন।

৩. সবকের পারা শোনানোর জন্য নতুন সবক বন্ধ রাখবেন না। প্রয়োজনে সর্বোচ্চ একদিন বন্ধ রাখতে পারেন।

৪. ছাত্রের চেহারা, কান, মাথা ও স্পর্শকাতর কোন অঙ্গে বেত্রাঘাত করবেন না।

৫. রাগতাবস্থায় শাস্তি দেবেন না। ছাত্রকে শাস্তির উপযুক্ত হতে দেবেন না। বিশেষ পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে কর্তৃপক্ষকে জানাবেন।

৬. ছাত্রের সাথে উত্তম ভাষায় কথা বলবেন। গালিগালাজ পর্যায়ের কোন শব্দ ব্যবহার করবেন না।

৭. ছাত্র দ্বারা কোন ধরনের শারীরিক খেদমত নিবেন না। এটা নোংরামী।

৮. বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ক্লাস চলাকালীন অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার করবেন না।

৯. কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া শিক্ষকের মোবাইল থেকে কোন ছাত্রকে ফোন করার সুযোগ দিবেন না।

১০. ছাত্রের অভিভাবকের সাথে আচার ব্যবহার ও সম্পর্কের ক্ষেত্রে হুশিয়ার থাকবেন। ব্যক্তিগত আদান প্রদান থেকে বিরত থাকবেন।

১১. সুন্নতের পাবন্দি করবেন। ক্লাসের উপযুক্ত পোষাক পরিধান করবেন। ছাত্রদের তরবিয়তের প্রতি বিশেষ নজরদারী করবেন।

১২. ঘুম, গোসল, খানা, নামাজের সময় ও আছরের পরের সময়ে ছাত্রদেরকে শিক্ষকের নেগরানির আওতায় রাখবেন।

১৩. প্রাতিষ্ঠানিক আইন-কানুনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবেন।

১৪. সব ধরনের লেনদেন পরিচ্ছন্ন রাখবেন।

(লেখকের ফেসবুক টাইমলাইন থেকে নেওয়া )

আরও পড়ুন: কিছু জরুরী শিক্ষা পরামর্শ

আরএম/