সোমবার, ২৮ মে ২০১৮

সেই মাদরাসা সুপারকে লাঞ্ছনার ঘটনায় আটক ২

OURISLAM24.COM
মে ১৪, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম: মাদরাসার জমি দখলে বাধা এবং পরিচালনা কমিটিতে জায়গা না পেয়ে বাকেরগঞ্জে মাদরাসা সুপার আবু হানিফকে মাথায় মল ঢেলে লাঞ্চিত করার ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে।

মিনজু ও বাদল নামে এ ঘটনায় জড়িত ২ জনকে রোববার (১৩ মে) দিবাগত রাতে বাকেরগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এছাড়াও জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারে রাতভর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ।

গতকাল ওই ঘটনার ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ অপরাধীদের গ্রেফতারে নামে।

গ্রেফতারদের মধ্যে মিনজু (৪৫) বাকেরগঞ্জ উপজেলার ১২ নং রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের কাঠালিয়া গ্রামের মৃত মো. হাসেম মুসল্লির ছেলে এবং দায়েরকৃত মামলার এজাহারভুক্ত ৫ নম্বর আসামি।

অপরদিকে বেল্লাল (২৫) বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নূর মোহাম্মদের ছেলে। তাকে ফেসবুকে প্রকাশিত লাঞ্ছনারর ভিডিও ফুটেজ দেখে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার (১১ মে) বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নে কাঠালিয়া গ্রামের কাঠালিয়া ইসলামিয়া দারুচ্ছুন্নাৎ দাখিল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও সুপার মাওলানা মো. আবু হানিফকে প্রকাশ্যে লাঞ্ছনা করে তার ভিডিও ধারণ করা হয়।

এ দিন মাওলানা মো. আবু হানিফ বাদী হয়ে নিজের ছোটভাই জাকারিয়া হোসেন জাকিরসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরো ৫/৬ জনকে আসামি করে বাকেরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

জানা যায়, কাঁঠালিয়া গ্রামে দারুল উলুম দীনিয়া আরাবিয়া কমপ্লেক্স ও এতিমখানা নির্মাণের জন্য ২০০৯ সালে জায়গা কেনা হয়। কিছু ব্যক্তি ওই জায়গা দখল করে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনার পাঁয়তারা করলে ২০১৪ সালে একটি মামলা হয়।

অপরদিকে কাঁঠালিয়া ইসলামিয়া দারুচ্ছুন্নাৎ দাখিল মাদরাসায় কমিটির সভাপতি হিসেবে চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি অ্যাডভোকেট এইচএম মজিবুর রহমান নির্বাচিত হন। কিন্তু লাঞ্ছনাকারীদের মধ্যে থাকা খন্দকার মো. জাহাঙ্গীর আলম সভাপতি হতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু তিনি সভাপতি হতে না পারায় ক্ষিপ্ত হয়ে তার সঙ্গে ন্যাক্কারজনক এ কাজ করেন।

এদিকে এ ঘটনায় স্থানীয়রা বেশ ক্ষুব্ধ ও অপমানিত হয়েছেন। তারা খবর পেয়ে আলেম সমাজসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ সুপারের কাছে গিয়ে সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি স্থানীয়রাই দোষীদের ধরিয়ে দিতে পুলিশকে সহায়তা করছে।

উল্লেখ্য, গতকাল এ ঘটনার ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করা হলে সর্বপ্রথম আওয়ার ইসলাম নিউজ করে। এরপরই বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে এবং পুলিশ অপরাধীদের ধরতে নেমে পড়ে।

এ কেমন হিংস্রতা; বয়স্ক মুরব্বির মাথায় মল ঢেলে ভিডিও ধারণ

-আরআর