শনিবার, ২৬ মে ২০১৮

নোকিয়া ফোন ব্যবহারে ব্রেইন টিউমার; ১১৫ কোটি টাকার মামলা!

OURISLAM24.COM
মে ১৪, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম: আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা ডেইলি মেইলের এক খবরে বলা হয়েছে, মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রেইন টিউমারে। এই অভিযোগে ব্রিটেনের নেইল হোয়িটফিল্ড (৬০) নামে এক ব্যক্তি মামলা করেছেন মোবাইল ফোন ব্র্যান্ড নোকিয়ার বিরুদ্ধে।

নেইল হোয়িটফিল্ডের কান এবং মগজে অ্যাকুস্টিক নিউরোমা নামে একটি বিরল টিউমার হয়েছে। নোকিয়া ফোন ব্যবহার করে টিউমার হওয়ার অভিযোগে সাবেক এই সেলসম্যান নকিয়ার বিরুদ্ধে এক মিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১১৫ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণের মামলা করেছে।

নেইল মনে করেন, তিনি ব্রিটিশদের মধ্যে প্রথম যিনি কোনো মোবাইল ফোন কোম্পানির বিরুদ্ধে এই ধরনের মামলা করলেন।

তিনি দাবি করেন, ১৯৯০ সালের দিকে দীর্ঘসময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করার কারণে তাকে এই স্বাস্থ্যগত বিপদের মুখোমুখি হতে হয়েছে। সানডে মিররকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নেইল হুইটফিল্ড বলেন, আমার কোনো সন্দেহ নেই টিউমার হওয়ার মূল কারণ মোবাইল ফোন।

চিকিৎসা করার পর প্রায় পাঁচবছর আঠার  মতো আমি সারাক্ষণ মোবাইল ফোনের সাথে লেগে থাকতাম। ফোন থেকে উত্তাপ এসে আমার কানে লাগতো এটা আমি টের পেতাম।

তিনি আরও বলেন, আমি জানি এটা ডেভিড এবং গোলাইয়াথের যুদ্ধের মতো। সুবিচার পেতে আমার অনেক সময় লেগে যাবে আমি জানি। তারপরেও আমি এটা করছি আমার সন্তান এবং সারাপৃথিবীর শিশুদের কথা চিন্তা করে।

আয় করার সুযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়া এবং পেনসন কমে যাওয়া- এই দুটি কারণের উপর ভিত্তি করে তিনি তার ক্ষতিপূরণের মামলাটি সাজিয়েছেন। গত ছয় বছর ধরে তিনি এই মামলাটি চালিয়ে যাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, নব্বইয়ের দশকে সারা ইংল্যান্ডজুড়ে শত শত ব্রিটিশ নকিয়া ফোন ব্যবহার করতো। ১৯৯৯ সালে প্রতি চার সেকেন্ডে একটা করে নকিয়া ফোন বিক্রি হতো। পুরনো মোবাইল ফোন বিপজ্জনক মাত্রায় তেজস্ক্রিয়তা ছিল বলে বহুদিন ধরেই বিজ্ঞানী থেকে শুরু করে সর্বমহলের বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত ছিলেন।

আরো পড়ুন শ্যামল কান্তির শাস্তির অপমানে কানধরা সেলিব্রেটিরা কোথায়?

এইচজে