শনিবার, ২৬ মে ২০১৮

‘প্রিয় নবী সা. মানবতার পাশে দাঁড়িয়েছেন, রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে হবে আমাদেরও’

OURISLAM24.COM
মে ৫, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম : মিয়ানমারে জাতিগত নির্মূূল ও গণহত্যার শিকার রোহিঙ্গা মুসলমানদের মর্যাদা, নিরাপত্তা ও তাদের জাতীয় পরিচয় নিশ্চিত করতে বাংলাদেশে সফররত ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের তাদের পাশে দাঁড়াবার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (৫ মে) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ওআইসি’র পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫ তম সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) নিজে নিপীড়িত মানবতার পাশে দাঁড়িয়েছেন, আমাদেরও মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। কাজেই মিয়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী যখন জাতিগত নির্মূলের মুখোমুখি ওআইসি তখন নিশ্চুপ থাকতে পারে না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ওআইসিকে অবশ্যই মিয়ানমার সরকারের উপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে, যাতে মিয়ানমার বাংলাদেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত সমঝোতা অনুযায়ী তাদের অধিবাসী রোহিঙ্গাদের দেশে নিরাপদে ফেরত নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীও আমাদের সবার মতো মর্যাদার সঙ্গে বাঁচার এবং জীবন-জীবিকার অধিকার রাখে।

শেখ হাসিনা বলেন, নিপীড়িত মানবতার জন্য আমাদের চিত্ত ও সীমান্ত দুই-ই উন্মুক্ত করে দিয়েছি। মিয়ানমারের প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে সম্পূর্ণ মানবিক কারণে আশ্রয় দিয়েছি।

তিনি বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে তাদের ব্যথায় ব্যথিত। কারণ, আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের ১৮ জন সদস্য নির্মমভাবে নিহত হওয়ার পর আমি ব্যক্তিগতভাবে ছয় বছর দেশে ফিরতে পারিনি, উদ্বাস্তু হিসেবে বিদেশের মাটিতে কাটিয়েছি।

আরো পড়ুন : ২৫ বছর পর ঢাকায় শুরু হলো ওআইসির সম্মেলন

এসএস