মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮

আকাবিরগণ কখনো অনৈক্য চাননি; আমরা কেন অনৈক্যে

OURISLAM24.COM
মার্চ ২৩, ২০১৮
news-image

মাওলানা মাহমুদ হাসান সিরাজী
প্রিন্সিপাল, জামিয়া ওসমান ইবনে আফফান রা.

আমি রাজনীতি করি না। তবে যারা ইসলামি রাজনীতি করেন তাদের অনেক পছন্দ করি। তাদের পছন্দ করার মত অনেক যৌক্তিকতাও রয়েছে।

জনমানুষের দাবি-দাওয়াগুলো আদায় করতে রাজনৈতিক ভাষা লাগে। রাজনৈতিকভাবে মাঠে নামতে হয়। রাজনীতির সুরে কথা বলতে হয়। রাজ দরবারে রাজকীয় স্টাইল লাগে।

তবে হাল জামানায় রাজনীতিকে যতটা কলুষিত দেখছি রাজনীতি কিন্তু এতটা কলুষিত ছিল না। বর্তমানে রাজনীতির মাঝে যেভাবে নোংরামি চলে- জায়গাটা কিন্তু এতটা নোংরা ছিল না।

সুতরাং শুদ্ধ ও সুস্থধারার রাজনীতির বিকল্প নেই। শুদ্ধ ও সুস্থধারার রাজনীতির জন্য সমাজের সৎ ও যোগ্য লোকদের এগিয়ে আসতে হবে। সমাজের আমানতদার ও বিশ্বস্ত লোকদের সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে যেতে হবে।

মূল আলোচনায় ফিরে আসি। আমাদের ইসলামি দলগুলোর মাঝে ঐক্যের বিকল্প নেই। সবায় সবার হয়ে কাজ করে যেতে হবে। এখানে শুধু রাজনৈতিক দলগুলো একসাথে হলে হবে না। শুধু গণতান্ত্রিক দলগুলোর ঐক্য চাই না। গণতন্ত্র বৈধ অবৈধতার প্রশ্ন তো একেবারে ফেলেও দেওয়া যায় না। গণতান্ত্রিক পদ্ধতি ছাড়াও সমাজকে দেওয়ার মত অনেক কিছু রয়েছে এবং গণতান্ত্রিক কোনো দল না করেও সামাজিক অনেক ভূমিকা রাখা যায়।

সুতরাং সবাইকে নিয়ে একটা ঐক্যের প্লাটফর্ম করতে হবে। যাদের কিবলা এক, যাদের নবী এক, যারা একত্ববাদী তাদের সবাইকে নিয়েই ঐক্য করতে হবে।

সে ধারাবাহিকতায় ইসলামী আন্দোলনের নায়েবে আমীর মুফতি ফয়জুল করীম সাহেবের সাথে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করে অনেক প্রজিটিভ ধারণা পেলাম।

কিছু দিন আগে খেলাফত মজলিসের আল্লামা মামুনুল হক সাহেবের ঐক্যের একটা আহবানও আমাদের আশান্বিত করেছে।

আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের আকাবিরগণ কখনই অনৈক্য চান নি। আকাবিরগণ নিকট অতীতে কাদিয়ানীবিরোধী আন্দোলনের সময় ভারতবর্ষের আহলে হাদীসদের অন্যতম মুরুব্বী মাওলানা হুসাইন আহহমাদ বেটালভীকে নিয়েও এক সাথে কাজ করেছেন।

আপনার সন্তানকে ভর্তি করুন ঢাকা আইডিয়ালে

মাওলানা আকরাম খাঁন ও নওয়াব ছিদ্দীক সাহেবরাও আমাদের আকাবিরদের সাথে কাজ করেছেন। তাদের নেতৃত্বে সমাজ গঠনের বিপ্লবে শরীক ছিলেন।

তাহলে আমরা পারবো না কেন? আমাদের মনে রাখতে হবে, ‘ডিভাইডেট এন্ড রোলস’ নীতিটা আমাদের বিরুদ্ধে একটা বড় ধরনের ষড়যন্ত্র। আমরা জেনে, বুঝে কেন সে ফাঁদে পা দেব?

নিজেরা নিজেরা কেন তর্কে লিপ্ত হয়ে সঞ্চিত শক্তি ক্ষয় করবো? ফুরুয়ি মাসআলাগুলো কেন পরস্পরের মাঝে অনৈক্যের প্রাচীর হয়ে দাঁড়াবে?

সময়ের ভাবনায় আলেমদের ঐক্যের প্রয়োজনীয়তা