শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮

এশার পর যে সুরাটি পড়লে ক্ষমা করা পর্যন্ত সুপারিশ করতেই থাকে

OURISLAM24.COM
মার্চ ২২, ২০১৮
news-image

আবদুল্লাহ তামিম:  হজরত আবু হুরাইরা রা. থেকে বর্ণিত আছে যে, রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন; ” কোরআন শরীফে ৩০ আয়াত বিশিষ্ট একটি সূরা আছে, যা তার তেলাওয়াতকারীকে ক্ষমা করে না দেয়া পর্যন্ত তার জন্য সুপারিশ করতেই থাকবে। সূরাটি হলো تبارك الذي بيده الملك.– ‪‎তাবারাকাল্লাযী‬ বি ইয়াদিহিল মূলক অর্থাৎ ‪সূরা‬ মূলক… (আবু দাউদ-১৪০২, তিরমিজি-২৮৯১, ইবনে মাজাহ-৩৭৮৬, মুসনাদে আহমদ-২/২৯৯)

অন্য এক হাদিসে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,” আমার মন চায় প্রত্যেক মুমিনের হৃদয়ে যেনো সূরা মূলক মুখস্ত থাকে। “(বায়হাকীর শুআবুল ইমান-২৫০৭)

আরেকটি এক হাদিসে বর্ণিত আছে, যে এ সূরা তেলাওয়াতকারীর আমলনামায় অন্য সূরার ‪তুলনায়_৭০‬ টি নেকী বেশি লিখা হবে এবং ‪‎৭০টি‬ গোনাহ মুছে ফেলা হবে। (তিরমিজি-২৮৯২)

আর যে ব্যক্তি নিয়মিত সুরা মূলকের আমল করবে সে ‪‎কবরের‬ আজাব থেকে মুক্তি পাবে। (তিরমিজি-২৮৯০, মুসতাদরাকে হাকেম)

হাদীসে আছে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কোনো রাতে সুরা মূলক না পড়ে ঘুমাতেন না। (তিরমিজি-২৮৯২, হিসনে হাসিন)