বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৮

আত্মহত্যার মামলার ভয়ে আত্মহত্যা

OURISLAM24.COM
মার্চ ১৯, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম: নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলায় প্রেমিকের স্বজনদের নির্যাতন ও অপমান সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেন গার্মেন্টস কর্মী শান্তা আক্তার (১৮)। আর মামলার ফেঁসে যাওয়ার ভয়ে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে আত্মহত্যা করেছে শান্তা ও নাদিমের প্রেমে সহযোগিতাকারী সিয়াম (১৬)।

গতকাল রোববার দুপুরে বন্দর উপজেলার ফরাজিকান্দা এলাকার সিয়াম গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। এরআগে শনিবার প্রেমিকা শান্তা আক্তার আত্মহত্যা করেন।

নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সোনাকান্দা বেপারীপাড়া এলাকার আলম মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল হক মিয়ার মেয়ে শান্তা ইসলামের সঙ্গে একই এলাকার দ্বিন ইসলাম মিয়ার ছেলে নাদিমের প্রেম ছিল। তাদের প্রেমে সহযোগিতা করত ফরাজিকান্দা এলাকার সাইদুল মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া তাজুল ইসলামের ছেলে সিয়াম।

নাদিমের পরিবারের লোকজন প্রেমে সহযোগিতা করায় সিয়ামকে মামলার ভয় দেখালে রোববার দুপুরে ভয়ে সিয়ামও ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।