শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮

হাতের আঙুলে ম্যাসাজে সুস্থতা

OURISLAM24.COM
মার্চ ১৮, ২০১৮
news-image

শাহনাজ শারমিন
ফিচার রাইটার

সুস্থ শরীর আর রোগমুক্তির জন্য কত কিছুই তো করি আমরা। রোগ হলে শরীরে তার নানা উপসর্গ দেখা দেয়। যেমন আমাদের হাতের তালু বা আঙুলের কথাই বলা যেতে পারে। বেশ কিছু লক্ষণের মাধ্যমের বোঝা যায় শরীর রোগব্যাধিতে আক্রান্ত হয়েছে কিনা? কিন্তু আপনি জানেন কি, শরীরকে সুস্থ রাখার অন্যতম উপায় আপনার খালি হাতের পাঁচ আঙুলেই আছে?

শারীরিক সমস্যার সমাধানে অনেকেই ওষুধ খাওয়ার বদলে খোঁজেন চিকিৎসার বিকল্প পদ্ধতি। সেরকমই একটি বিকল্প চিকিৎসা পদ্ধতি হল রিফ্লেক্সোলজি বা অ্যাকুপ্রেসার। এই পদ্ধতি অনুসারে শরীরের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রেসার পয়েন্টকে চিহ্নিত করা হয়।

মনে করা হয়, এক একটি প্রেসার পয়েন্টের সঙ্গে জড়িত রয়েছে শরীরের আভ্যন্তরীণ নানা গুরু‌ত্বপূর্ণ অঙ্গ। এবং এই প্রেসার পয়েন্টগুলিকে স্পর্শ বা ম্যাসাজের মাধ্যমে ওই জড়িত আঙ্গুল দিয়ে নানা রোগ সারিয়ে তোলা সম্ভব।

চিকিৎসাবিজ্ঞানের জনক ইবনে সিনার রচনার ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর একদল গবেষক বলেছেন, আঙুল ম্যাসাজ করলে শরীরের বিভিন্ন অংশের উপকার হয়। ইবনে সিনা অপারেশন বা ওষুধ ছাড়াই অনেক রোগীকে সুস্থ করতে পেরেছেন নির্দিষ্ট আঙুলটি নির্দিষ্ট সময় ধরে আলতোভাবে ম্যাসাজের মাধ্যমে।

গবেষকরা আরও বলছেন, ইবনে সিনার কয়েক হাজার বছর আগেই চীনা চিকিৎসাশাস্ত্র আঙুল ম্যাসাজের কথা উল্লেখ করেছে।

বর্তমান সময়ের শরীর বিশেষজ্ঞরাও বলছেন একই কথা। তাদের কথায়, প্রতিটি আঙুল স্নায়ুর সঙ্গে যুক্ত থাকায়, নিয়মিত ম্যাসাজ পরোক্ষভাবে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গকে ভালোভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। নিয়মিত আঙুল ম্যাসাজে মাথাব্যথা, চাপ, ঝিমুনি, দুর্বলতা এবং অন্য যে কোনো স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান হয়।

এমনকি শুধু স্বাস্থ্য সমস্যা নয়, আবেগ নিয়ন্ত্রণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এই আঙুল। তাই স্বাস্থ্য সুরক্ষায় দৈনিক পাঁচ মিনিট করে আলতোভাবে আঙুল ম্যাসাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

কিন্তু প্রশ্ন হলো কোন আঙ্গুল ম্যাসাজে কোন রোগ থেকে মুক্তি মিলবে? চলুন, জেনে নিই আসলে কেমন করে কোন রোগ থেকে মুক্তি মিলবে!

কনিষ্ঠা
অনিশ্চয়তা এবং দুর্বলতা কাটিয়ে আপনাকে শান্ত করতে সাহায্য করে কনিষ্ঠা আঙুল। এই আঙুলের ম্যাসাজে একজন ব্যক্তির আত্মবিশ্বাসের উন্নতি ঘটে। এটি আমাদের শরীরে শিথিলতার ভাব এনে দিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

অনামিকা
অনামিকা আঙুল ম্যাসাজে বদহজম প্রক্রিয়ার উন্নতি ঘটে। একই সঙ্গে অস্থির চিত্তকে শান্ত রাখতে ভূমিকা রাখে অনামিকা। তবে এই আঙুল ম্যাসাজের সময় দীর্ঘশ্বাস নিলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

মধ্যমা
মধ্যমা আঙুল ম্যাসাজ করলে রাগ ও ক্লান্তি দূর হয়। এই আঙুলের ম্যাসাজে নেতিবাচক আবেগ কমে যাওয়ার পাশাপাশি যকৃৎ হয়ে ওঠে আরও স্বাস্থ্যবান।

তর্জনী
মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষ করে ভয়, দ্বন্দ্ব এবং অস্বস্থি- এই বিষয়গুলোর সঙ্গে হাতের তর্জনী জড়িত। যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা গেছে, তর্জনী কিডনির স্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। কাজেই যদি আপনি মাংসপেশীতে ব্যথা অনুভব করেন তাহলে তর্জনী ম্যাসাজ করুন।

বৃদ্ধাঙ্গলী
বৃদ্ধাঙ্গুলের সঙ্গে প্লীহা ও পাকস্থলীর যোগসূত্র রয়েছে। এই আঙুল ম্যাসাজে উদ্বেগ এবং চাপ কমে যায়। আপনার মেজাজ যদি খুব খারাপ হয় এবং আপনি যদি অনেক ক্লান্ত বোধ করেন তাহলে বৃদ্ধাঙ্গুলী ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এর ফল সঙ্গে সঙ্গেই টের পাবেন।

হাতের তালু
শুধু আঙুল নয়, হাতের তালুতেও আছে রোগমুক্তির উপায়। হাতের তালুতে ম্যাসাজ করলে ডায়রিয়া এবং কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তবে হাতের তালু হোক কিংবা আঙুল, ম্যাসাজের সময় অবশ্যই সঠিকভাবে শ্বাস নিন। তাহলে ভালো ফল পাবেন।

সৃষ্টিকর্তা আপনাকে সুন্দর দুটি হাত দিয়েছেন শুধু কাজের প্রয়োজনেই নয়। পাঁচ আঙুলে দিয়ে দিয়েছেন অসুখ সারানোর উপায়। তাহলে চলুন, নিয়মিত পাঁচ মিনিট আলতোভাবে ম্যাসাজ করি হাতের পাঁচ আঙুল।

সুস্থ থাকতে হলে যে ডাক্তারের কাছে গেলেই হবে কিবা কিছু ওষুধ খেয়ে নিলে হবে তা কিন্তু নয়। প্রথমত নিয়ম মতো খাওয়া-দাওয়া, ঘুম, পরিশ্রম ও শরীরচর্চাই যথেষ্ঠ। আপনার নিজের উপরই সুস্থতা নির্ভর করে।