বুধবার, ২৩ মে ২০১৮

মাটি ভর্তি টুকরি নিয়ে হাঁটছেন উপজেলা চেয়ারম্যান!

OURISLAM24.COM
মার্চ ৪, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম : ফেসবুকের কল্যাণে বিভিন্ন সেবামূলক ছবির মাধ্যমে ভাইরাল হচ্ছেন জনপ্রতিনিধিরা। সেই আলোচনা হয় ইতিবাচক, না হলে নেতিবাচক। এবার সিলেটের সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলীও (বীরপ্রতীক) আলোচনায় এলেন।

টুকরি মাথায় নিয়ে রাস্তায় মাটি কাটার কাজে শ্রমিকদের সাহায্য করেছেন এই জনপ্রতিনিধি। তিনি মাটিভর্তি টুকরি মাথায় নিয়ে শ্রমিকদের কাজে সহযোগিতা করছেন- শুক্রবার বিকাল থেকে এমন একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা যায়, শুক্রবার দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের বাগরা গ্রামের একটি রাস্তায় মাথায় টুকরি নিয়ে অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলীর মাটি কাটার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন দোয়ারাবাজার সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল খালিক। এরপর ছবিটি ভাইরাল হয়।

এদিকে ছবির নিচে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী আফরাজ আহমদ নামে একজন মন্তব্য করেছেন, আমরা দোয়ারা বাজারবাসী গর্বিত, উনার মতো একজন সৎ দক্ষ রাজনীতিবীদ ও শিক্ষাবিদ পেয়ে। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে তিনি নিজের জীবনবাজি রেখে এই দেশকে স্বাধীন করে এখনো তিনি সমাজের স্বার্থে কাজ করছেন।

ফজলুল হক নামে এক ব্যক্তি লেখেন, বীরপ্রতীক আবারও বীরের বেশে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে ইদ্রিস আলী, বীরপ্রতীক, উপজেলা চেয়ারম্যান দোয়ারাবাজার।

সাদিকুর রহমান মন্তব্য করেন, মাটি মাথায় উনি কোনো সাধারণ লোক নন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য নিজেই সাধারণ মানুষের সাথে মাথায় মাটি নিয়ে রাস্তা নির্মাণ কাজে সাহায্য করছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী স্যার। এভাবেই মূহূর্তের মধ্যে মন্তব্য আর শেয়ারে ভাইরাল হয় ছবিটি।

বিষয়টি নিয়ে অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী বীরপ্রতীককে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘রাস্তা নির্মাণে শ্রমিক ও এলাকাবাসী কাজ করছেন। তাদের উৎসাহ যোগাতে আমি নিজেও কাজে সাহায্য করি। আমরা জনপ্রতিনিধি, আমাদের জনগণের জন্য কাজ করে যেতে হবে। সে যেটাই হোক না কেন। শ্রমিকদের সঙ্গে কাজ করলে তারা উৎসাহ পায়।’

তিনি বলেন, এসি গাড়ি, এসি বাড়ি নয়-সবসময় মেহনতি মানুষের সঙ্গে মিশে থাকতেই আমি বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। বিডি বাংলা।