বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮

তাকওয়াবান আদর্শ নাগরিকরাই আগামী দিনে দেশ পরিচালনায় ভূমিকা রাখবে

OURISLAM24.COM
জানুয়ারি ২১, ২০১৮
news-image

আওয়ার ইসলাম: ইসলামী আদর্শ ও সংস্কৃতিকে মুছে ফেলার জন্য ইসলাম বিদ্বেষীরা পরিকল্পিত ভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। এ সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আদর্শ সমাজ প্রতিষ্ঠার জন্য তাকওয়াপূর্ণ ও সর্বক্ষেত্রে যোগ্যতা সম্পন্ন আদর্শ নেতৃত্ব গড়ে তুলতে হবে।

মাদরাসা হলো তাকওয়াবান ও আদর্শ নাগরিক তৈরির কারখানা। আগামী দিনে তাকওয়াবান ও আদর্শ নাগরিকরাই দেশ পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেছেন খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক সাহেব।

রোববার সকালে সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় অবস্থিত প্রাচীনতম দীনি বিদ্যাপীঠ ফুলবাড়ী আজিরিয়া ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসা পরিদর্শনকালে শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মোহাম্মদ ইব্রাহিম আলীর সভাপতিত্বে ও ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ জাকির হুসাইনের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,তোমাদের নিজেদেরকে তাকওয়াপূর্ণ আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে এবং কেননা আগামী দিনে দেশ ও জাতীয় সার্থে রাষ্ট্রের বিভিন্ন বিভাগে তোমাদেরকেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।

তিনি মাদরাসার একাডেমীক অবস্থারে নাজুকপরিস্থিতি দেখে একাডেমীক ভবনের উন্নয়নে সরকার ও স্থানীয় বিত্তশালীদের এগিয়ে আসারও আহবান জানান তিনি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা বায়তুলমাল সম্পাদক প্রিন্সিপাল মাওলানা শিব্বির আহমদ, শ্রমিক মজলিস সিলেট জেলা সিনিয়র সহ সভাপতি আমিনুল ইসলাম আমিন, মাদ্রাসার সিনিয়র আরবি প্রভাষক মাওলানা ইউসুফ আলী, আরবি প্রভাষক মাওলানা এহসানুল হক, ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক মকছেদ আলী, মাওলানা আফরুজ্জামান, শিব্বির আহমদ, সিনিয়র শিক্ষক আব্দুল হান্নান, এমাদ উদ্দিন, মাহতাব উদ্দিন খাঁ, একরামুল হক চৌধুরী সহ মাদ্রাসার সকল বিভাগের শিক্ষক- শিক্ষার্থী ও কর্মচারী বৃন্দ।

এসএস/